জাবিতে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ছাত্রলীগও হলে

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ৬ নভেম্বর ২০১৯, বুধবার, ১:৫০
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার পর প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী হল ছাড়ছেন অনেক সাধারণ শিক্ষার্থীরা। তবে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা এবং হল ছাড়ার সময়সীমা কয়েক দফা পরিবর্তন করে আজ সকাল ৯টায় করা হলেও আন্দোলনকারীদের পাশাপাশি হলে অবস্থান করছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা।
 
সরজমিন দেখা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬টি আবাসিক হলের অনেক শিক্ষার্থীরা হল ছাড়ছেন। তবে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা হলেই অবস্থান করছেন। একইসঙ্গে হলে রয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও। তাদের উপস্থিতির কারণে হামলার আশঙ্কা করছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

আরিফ হোসেন নামে ৪৭ ব্যাচের আন্দোলনকারী এক শিক্ষার্থী বলেন, বাড়িতে যেতে বললেই যাওয়া যায় না। আমরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলতে জানি।
আমার ভাইয়ের ওপর, বোনের ওপর, শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদ জানাতে।

এদিকে শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করলেও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে পানির লাইন। সেইসঙ্গে হলের ডাইনিং এবং আশপাশের সকল খাবার হোটেল বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন।

গতকাল দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ফারজানা ইসলামের সভাপতিত্বে সিন্ডিকেটের এক জরুরি সভায় অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্যাম্পাস বন্ধ ও বিকেল সাড়ে ৪টার মধ্যে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ দেয়া হয়। এরপর হল ছাড়ার সময়সীমা কয়েক দফায় পরিবর্তন করা হয়। সর্বশেষ আজ সকাল সাড়ে ৯টার মধ্যে হল ছাড়ার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানায় প্রশাসন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ডা. শফিকুর রহমান জামায়াতের নয়া আমীর

উপকূলীয় উন্নয়ন বোর্ড ও ১২ই নভেম্বর উপকূল দিবস ঘোষণার দাবি

পিয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণে নিয়ে এসেছি: মন্ত্রী

চবিতে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগ কর্মীর মারধর (ভিডিও)

মর্গে ছোট্ট ছোয়ার লাশ রেখে হাসপাতালে বাবা-মা

হবিগঞ্জের ৭ জন নিহত

একই পরিবারে নিহত ১, আহত ৭

ছাত্রদল নেতার মৃত্যু

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ১২ আসামীকে কুমিল্লা কারাগারে স্থানান্তর

তূর্ণা এক্সপ্রেসের চালক-গার্ডসহ ৩ জন সাময়িক বরখাস্ত

একবছরে ৫ বছরের কম বয়সী ১২০০০ শিশুর মৃত্যু

রাঙ্গা অনুতপ্ত, বক্তব্য প্রত্যাহার

সৌদি আরবে নারীত্ববাদ, সমকামিতা, নাস্তিক্যবাদ উগ্রপন্থিদের ধারনা

ঘুরতে যাবার সময় লাশ হলেন রুবেল, আহত মুন্না ঢামেকে

নিহতদের প্রত্যেক পরিবার পাবে ১ লাখ টাকা: রেলমন্ত্রী

বুলবুলের পর আসছে নাকরি