ফেঁসে গেলেন নাসরিন

মানবজমিন ডেস্ক

দেশ বিদেশ ১৪ অক্টোবর ২০১৯, সোমবার

বৃটেনে প্রতারণার আশ্রয় নিতে গিয়ে ফেঁসে গেছেন নিজেকে ‘বিকলাঙ্গ’ ও ‘সিঙ্গেল’ মা দাবি করা নাসরিন আক্তার (৫০)। তিনি এমন দাবি করে সরকারের কাছে দুই লাখ ৬০ হাজার পাউন্ড দাবি করেছিলেন। এ দাবির যথার্থতা পরীক্ষা করার জন্য পুলিশ তার ওপর নজর রাখে। এক পর্যায়ে দেখা যায় তিনি বিকলাঙ্গও নন। সিঙ্গেল মা-ও নন। তিনি দাবি করেছিলেন, পুরুষ পার্টনার তাকে ফেলে চলে গেছেন। কিন্তু তাকে পার্টনার সহ এক বিছানায় হাতেনাতে ধরেছে পুলিশ। এ ছাড়া তাকে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচতে দেখা গেছে।
সেই নাচ ভিডিও আকারে রয়েছে পুলিশের হাতে। এমন অপরাধে শুক্রবার তাকে দু’বছরের জন্য জেল দিয়েছে আদালত। এ খবর দিয়েছে লন্ডনের একটি ট্যাবলয়েড পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ। তবে এতে বলা হয়নি নাসরিন আক্তার বৃটেনেই জন্ম নিয়েছেন কিনা অথবা তিনি কোন দেশের বংশোদ্ভূত। ঘটনাটি পুরনো হলেও তা নতুন করে আলোচনায় এসেছে নাসরিনের জেল হওয়ায়। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ঘটনা ২০০২ থেকে ২০১৩ সালের মধ্যকার। এ সময়ে নাসরিন আক্তার নিজেকে বিকলাঙ্গ ও সিঙ্গেল মা হিসেবে পরিচয় দেন। বলেন, তিনি চলাচল করতে পারেন না। ফলে এতটাই অসুস্থ যে, কোনো কাজ করার ক্ষমতা নেই তার। তাকে ফেলে গেছেন পার্টনার আক্তার। ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিস (সিপিএস) এ কথা জানিয়ে বলেছে, এমন দাবি করে নাসরিন সরকারের কাছে দুই লাখ ৬০ হাজার পাউন্ড সহায়তা দাবি করেন। নাসরিন আক্তারের বসবাস ওল্ডহ্যামে। সেখানে ২০১২ সালে তার ওপর ছদ্মবেশী নজরদারি শুরু করে ডিপার্টমেন্ট অব ওয়ার্ক অ্যান্ড পেনশনস (ডিডব্লিউপি) বিষয়ক তদন্তকারীরা। সিপিএস বলেছে, এক পর্যায়ে পুলিশ পরের বছরই তার বাড়ি ঘেরাও করে। তখন নাসরিনের পার্টনার আক্তার দাবি করেন, তার সঙ্গে এক বিছানা শেয়ার করেন না নাসরিন। তিনি কাজ করতে পারেন না, চলাচল করতে পারেন না। তার দেখাশোনার জন্য অন্যের সাহায্য প্রয়োজন- এমন দাবি করা হলেও তাকে দেখা যায় এক বিয়ের অনুষ্ঠানে নাচতে। এসব ঘটনা ধরা পড়ার পর নাসরিন আক্তার তার বিরুদ্ধে সাত দফা প্রতারণার অভিযোগ স্বীকার করে নেন। ফলে ম্যানচেস্টার ক্রাউন কোর্ট শুক্রবার তাকে দু’বছরের জেল দেয়। সিপিএসের প্রতারণা বিষয়ক ইউনিটের সিমন টুনিক্লিফ বলেছেন, নাসরিন আক্তারকে বিচারের আওতায় আনতে তাদের ও ডিডব্লিউপির তিনটি বছর সময় লেগেছে। তিনি আরো বলেন, এমন অন্য ঘটনাগুলোর মধ্যে এটি একটি ব্যতিক্রমী ব্যাপার। তার বিরুদ্ধে বিচার শুরু হয় ২০১৭ সালে। তারপর এমন তথ্য সংগ্রহ করতে হয়েছে সিপিএস এবং ডিডব্লিউপি’কে। তার ভাষায়, আমরা এ বছরের শুরুর দিকে নাসরিন আক্তারের বিরুদ্ধে অধিক পরিমাণে প্রমাণ হাতে পাই। সেই প্রমাণ দেখে বিচারক সিদ্ধান্ত নেন যে, তিনি সুস্থ এবং যথেষ্ট ভালো আছেন। তাকে বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। এ বছর ৭ই অক্টোবর বিচার শুরুর আগের প্রস্তুতিমূলক শুনানিতে নাসরিন আক্তার তার বিরুদ্ধে সাত দফা প্রতারণার অভিযোগ স্বীকার করে নেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Noormd.

২০১৯-১০-১৩ ১৯:৫০:৩৭

উনার চালে ভুল হয়ে গেছে। বয়ানটা সরকারের নাদিয়ে পাবলিকের কাছে দিলে ফলপ্রসূ হতো। পায়ে ব্যান্ডেজ করে ক্রাচে ভর করে রাস্তায় দাঁড়িয়ে হাত পাতলেই হোত।

আপনার মতামত দিন



দেশ বিদেশ অন্যান্য খবর

সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা আবারো বৃদ্ধি পাচ্ছে-মার্কিন রাষ্ট্রদূত

২৯ জানুয়ারি ২০২০

বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার বলেছেন, আমি জীবনে প্রথম সুন্দরবনে এসে আড়াই দিন ...

১৩ ক্লাবে হাউজি তাস খেলা নিয়ে রায় পেছালো

২৯ জানুয়ারি ২০২০

ঢাকা ক্লাবসহ দেশের ১৩টি অভিজাত ক্লাবে টাকার বিনিময়ে হাউজি, ডাইস ও তাস খেলা নিয়ে জারি ...

স্কুলছাত্রী ধর্ষণ, হত্যা হাইকোর্টে ৮ জনের মৃত্যুদণ্ড বহাল

২৯ জানুয়ারি ২০২০

লক্ষ্মীপুরে স্কুলছাত্রী স্মৃতি নাথ সীমাকে ধর্ষণের পর হত্যা মামলায় ৮ জনের মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখেছেন হাইকোর্ট। ...

চট্টগ্রামে চার শিল্পপতির বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

২৯ জানুয়ারি ২০২০

বেসরকারি এ বি ব্যাংকের ১৯ কোটি ৭৯ লাখ ৬২ হাজার ৮২২ টাকা ৮০ পয়সা আত্মসাতের ...

চীনের গোপন জীবাণু গবেষণাগার থেকে করোনা ভাইরাসের উৎপত্তি?

২৯ জানুয়ারি ২০২০

 বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে করোনা ভাইরাস। এর দেখা মিলেছে চীনের উহান শহর থেকে। চীনের বেশ কয়েকটি ...

স্বাধীনতাবিরোধী ও বিতর্কিতদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম পরিবর্তন হবে

২৮ জানুয়ারি ২০২০

 গত বছর প্রকাশিত এমপিওভুক্তির জন্য যেসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান তালিকাভুক্ত হয়েছে এবং তার মধ্যে যে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের ...

ডিজিটাল নিরাপত্তা মামলায় প্রবীণ সাংবাদিক মুনিরের জামিন লাভ

২৮ জানুয়ারি ২০২০

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেয়ার ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন পেয়েছেন খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সাধারণ ...

‘বিক্ষোভকারীরা বাংলাদেশি মুসলিম’

২৮ জানুয়ারি ২০২০

কলকাতার পার্ক সার্কাসে এবং নয়াদিল্লির শাহিনবাগে নাগরিকত্ব সংশোধন বিল (সিএএ), নাগরিকপঞ্জী (এনআরসি) এবং প্রস্তাবিত এনপিআরবিরোধী ...

গোপীবাগে সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ বিএনপি কর্মী গ্রেপ্তার

২৮ জানুয়ারি ২০২০

রাজধানীর গোপীবাগে নির্বাচনী প্রচারের সময় আওয়ামী লীগ-বিএনপির  সংঘর্ষের ঘটনায় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ওয়ারী জোনের ...



দেশ বিদেশ সর্বাধিক পঠিত