ফ্রান্স শোকাহত মর্মাহত

প্রথম পাতা

কূটনৈতিক রিপোর্টার | ১১ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৩৫
বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদের বর্বর হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়েছে ফ্রান্স। ঢাকাস্থ ফ্রান্স দূতাবাসের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে আবরারের ছবিসহ প্রচারিত এক পোস্টে বলা হয়- “বুয়েট শিক্ষার্থীর হত্যার ঘটনায় আমরা (ফ্রান্স) অত্যন্ত মর্মাহত এবং বিস্মিত। আমরা ওই শিক্ষার্থীর শোকাহত পরিবার-স্বজন এবং বন্ধুদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করছি। একই সঙ্গে আশা করছি, তার হত্যার সঙ্গে জড়িতদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে এবং এই ঘটনায় ‘ন্যায় বিচার’ নিশ্চিত হবে।” সংক্ষিপ্ত তবে তাৎপর্যপূর্ণ ওই ইংরেজী বার্তায় ‘কিলিং’, ‘সিম্প্যাথি’ এবং ‘জাস্টিজ’- এই ৩ শব্দকে হ্যাশট্যাগ এ প্রকাশ করা হয়েছে। পোস্টটিতে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন অনেকেই। কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে এতে ৮৩ জন দু:খ প্রকাশ করে রিয়েক্ট করেছেন। ১৪ জন ভালবাসা প্রকাশ করেছেন। ১৭৯ জন পোস্টটি পছন্দ করে তাদের অভিব্যক্তি জানিয়েছেন।
মূল পেইজ থেকে পোস্টটি ৩৬ বার শেয়ার হয়েছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

shishir

২০১৯-১০-১০ ১৯:৪৮:০৫

আবরার এর মৃত্যুতে বাংলাদেশের সকল লোক শোকাহত, কোন সন্দেহ নাই সবাই এর বিচার চায়, বাংলাদেশের সরকার এই বিচার দ্রুততম সময়ের মধ্যেই সম্পন্ন করতে বদধ্যপরিকর। কিন্তু বিষয় টি নিয়ে পশিচমা দেশগুলোর প্রতিক্রিয়া কোন দেশের অভ্যনতরীন বিষয় হস্তক্ষেপ ও বিষয় টি নিয়ে ওরা রাজনীতি করছে বলে আমরা মনে করছি।

আপনার মতামত দিন

বরগুনার ঘটনায় বুধবার সারাদেশে বিএনপির বিক্ষোভ

বায়ু দূষণে বাড়ে হার্ট অ্যাটাক, অ্যাজমা

ভারত-পাকস্তান দ্বন্দ্ব তীব্র হয়েছে

ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ‘ইংলিশ ক্ল্যাসিক’ ১-১ গোলে ড্র

শপথ নিলেন হাইকোর্টের ৯ বিচারপতি

বলুন তো এটা কিসের ছবি!

জেল হতে পারে পর্নো তারকা ব্রিজেতের

সৌদিতে ধরপাকড়: আজ ফিরেছেন ৭০ বাংলাদেশী

বোমা সন্দেহে রহস্যজনক লাগেজে মিললো লাশ

অস্ট্রেলিয়ার সংবাদপত্রগুলোর প্রথম পৃষ্ঠা ফাঁকা

কাউন্সিলর রাজীবের ১৪ দিনের রিমান্ড

বিশ্লেষক হিসেবে প্রতিবন্ধী শিশুদের খুঁজছে বৃটিশ গুপ্তচর সংস্থা

পর্নো ব্যবসা এত বিপুল হয়ে উঠলো কীভাবে : পর্ব ১

‘সেগুলোতে কাজ করার আগ্রহ পাই না’

পদ হারালেন ওমর ফারুক

১০ বছর আমার চেহারা ভালো ছিলো এখন খারাপ হয়েছে: ওমর ফারুক চৌধুরী