এক সপ্তাহের সফরে আজ কিশোরগঞ্জ যাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট

বাংলারজমিন

আশরাফুল ইসলাম, কিশোরগঞ্জ থেকে | ৯ অক্টোবর ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:০৩
প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ এক সপ্তাহের সফরে নিজ জেলা কিশোরগঞ্জে আসছেন আজ। ১৫ই অক্টোবর পর্যন্ত তিনি কিশোরগঞ্জ জেলার তাড়াইল, সদর, মিঠামইন, ইটনা ও অষ্টগ্রাম উপজেলা সফর করবেন। আজ তাড়াইল উপজেলায় সফরের মধ্য দিয়ে সাত দিনব্যাপী এই সফর শুরু হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সফরের প্রথম দিন আজ দুপুর ১টায় প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ ঢাকা থেকে তাড়াইল উপজেলার উদ্দেশ্যে হেলিকপ্টারযোগে রওনা দিবেন। তিনি তাড়াইল উপজেলার শিমুলহাটি হেলিপ্যাডে অবতরণ করবেন। হেলিপ্যাড থেকে তিনি স্বাধীনতা ‘৭১ ভাস্কর্য এর উদ্বোধনের জন্য উপজেলা সদরে যাবেন। স্বাধীনতা ‘৭১ ভাস্কর্য এর উদ্বোধন স্থলের পার্শ্ববর্তী বালুর মাঠে প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে। পরে তিনি চিরচেনা হিজল-তমাল ছায়া আর হাওর নদী বেষ্টিত তাড়াইল উপজেলা পরিষদ চত্বরে স্বাধীনতা ‘৭১ ভাস্কর্য এর উদ্বোধন করবেন।
পরে তিনি তাড়াইল মুক্তিযোদ্ধা সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত সুধি সমাবেশে যোগ দেবেন। তাড়াইল প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ এর রাজনৈতিক জীবনের প্রথম নির্বাচন ১৯৭০ সালের নির্বাচনী এলাকায় অন্তর্ভুক্ত ছিল। টানা দুই মেয়াদে দেশের প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাড়াইলে এটিই তাঁর প্রথম সফর। ফলে তাঁর এই সফরকে ঘিরে তাড়াইল উপজেলাসহ আশপাশের এলাকায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। তাঁর আগমন উপলক্ষে তাড়াইলে ইতোমধ্যে সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হয়েছে।
তাড়াইলে সুধী সমাবেশ শেষে বিকাল ৫টায় প্রেসিডেন্ট মো. আবদুল হামিদ কিশোরগঞ্জের উদ্দেশ্যে হেলিকপ্টারযোগে তাড়াইল ত্যাগ করবেন। বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে কিশোরগঞ্জ শহরের আলোরমেলা এলাকায় শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম স্টেডিয়ামে অবতরণের পর তিনি সার্কিট হাউজে যাবেন। সেখানে প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে। সন্ধ্যা ৭টায় প্রেসিডেন্ট সার্কিট হাউজে সরকারি কর্মকর্তা, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে মত বিনিময় করবেন। মত বিনিময় শেষে শহরের খড়মপট্টি এলাকার নিজ বাসভবনে তিনি রাত্রিযাপন করবেন।
সফরের দ্বিতীয় দিন আগামীকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে প্রেসিডেন্ট পেশাজীবনের স্মৃতি বিজড়িত জেলা আইনজীবী সমিতিতে যাবেন। জেলা আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠানে যোগ দেয়া ছাড়াও জেলা আইনজীবী সমিতির নতুন ১০ তলা ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রেসিডেন্ট। পরে বিকাল ৩টায় শহরের শ্যাম সুন্দর আখড়া পরিদর্শনে যাবেন তিনি। এছাড়া সন্ধ্যা ৭টায় প্রেসিডেন্ট সার্কিট হাউজে গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় করবেন। মত বিনিময় শেষে শহরের খড়মপট্টি এলাকার নিজ বাসভবনে তিনি রাত্রিযাপন করবেন।
সফরের তৃতীয় দিন শুক্রবার (১১ই অক্টোবর) বেলা ১২টায় কিশোরগঞ্জ থেকে হেলিকপ্টারযোগে নিজ উপজেলা মিঠামইনে যাবেন। মিঠামইন ডাকবাংলোতে প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অনার প্রদান করা হবে। বাড়ির মসজিদে জুমআর নামাজ আদায় করবেন তিনি। পরে বিকাল ৩টায় মুক্তিযোদ্ধা আবদুল হক সরকারি ডিগ্রি কলেজ সংলগ্ন মাঠে সুধী সমাবেশে যোগদান করবেন প্রেসিডেন্ট। সন্ধ্যা ৭টার দিকে প্রেসিডেন্ট স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে মতবিনিময় করবেন। মতবিনিময় শেষে কামালপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি রাত্রিযাপন করবেন।
সফরের চতুর্থ দিন শনিবার (১২ই অক্টোবর) বেলা ১১টায় প্রেসিডেন্ট সারাবছর চলাচল উপযোগী ইটনা, মিঠামইন ও অষ্টগ্রাম সড়কসহ উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করবেন। পরে বিকাল ৩টায় তিনি মিঠামইনের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটরিয়ামে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে মিঠামইন, ইটনা ও অষ্টগ্রামের উচ্চ মাধ্যমিক (আলিম), মাধ্যমিক (দাখিল) এবং জুনিয়র  (জেএসসি ও জেডিসি) পর্যায়ের প্রায় ৮৫ জন শিক্ষার্থীকে সম্মাননা এবং শিক্ষাবৃত্তি প্রদান করবেন। এছাড়া ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে প্রেসিডেন্ট কর্মসংস্থানের উদ্দেশ্যে মিঠামইনের ১৫ জন ব্যক্তিকে সেলাই মেশিন প্রদান করবেন। এদিনও কামালপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি রাত্রিযাপন করবেন। সফরের পঞ্চম দিন রোববার (১৩ই অক্টোবর) প্রেসিডেন্ট দুপুর ২টার দিকে মিঠামইন থেকে হেলিকপ্টারযোগে ইটনার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। আড়াইটার দিকে ইটনা হেলিপ্যাডে অবতরণ করবেন তিনি। ইটনা ডাকবাংলোতে প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অনার দেয়া হবে। বিকাল ৩টায় ইটনায় রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সরকারি কলেজ মাঠে সুধী সমাবেশে যোগদান করবেন প্রেসিডেন্ট। সন্ধ্যা ৭টায় প্রেসিডেন্ট স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে ইটনার রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটরিয়ামে মতবিনিময় করবেন। মতবিনিময় শেষে তিনি সেখানকার জেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে রাত্রিযাপন করবেন। সফরের ষষ্ঠ দিন সোমবার (১৪ই অক্টোবর) বেলা ১১টায় প্রেসিডেন্ট ইটনা উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করবেন। দুপুর ২টার দিকে তিনি হেলিকপ্টারযোগে অষ্টগ্রাম উপজেলার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। অষ্টগ্রাম ডাকবাংলোতে প্রেসিডেন্টকে গার্ড অব অনার দেয়া হবে। বিকাল ৩টায় অষ্টগ্রাম খেলার মাঠে সুধি সমাবেশে যোগদান করবেন প্রেসিডেন্ট। সন্ধ্যা ৭টায় প্রেসিডেন্ট স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিদের সাথে অষ্টগ্রামের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অডিটরিয়ামে মত বিনিময় করবেন। মতবিনিময় শেষে তিনি সেখানকার জেলা পরিষদ ডাকবাংলোতে রাত্রিযাপন করবেন। সফরের শেষ দিন মঙ্গলবার (১৫ই অক্টোবর) বেলা ১১টায় প্রেসিডেন্ট অষ্টগ্রাম উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ পরিদর্শন করবেন। দুপুর আড়াইটায় তিনি হেলিকপ্টারযোগে ঢাকার উদ্দেশ্যে অষ্টগ্রাম ত্যাগ করবেন।
দ্বিতীয় মেয়াদে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার পর নিজ জেলায় এটি হবে তাঁর চতুর্থ সফর। এর আগে দেশের ২১তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে গত বছরের ২৪শে এপ্রিল শপথ নেয়ার পর গত গত বছরের ১১ই মে বাবা হাজী তায়েব উদ্দিন ও মা তমিজা খাতুন এর কবর জিয়ারত করতে নিজ গ্রাম মিঠামইনের কামালপুরে এক দিনের প্রথম সফরে এসেছিলেন তিনি। পরবর্তিতে গত বছরের ২৪শে সেপ্টেম্বর থেকে ২৮শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পাঁচ দিনের সফরে তিনি নিজের সাবেক নির্বাচনী এলাকা অষ্টগ্রাম, ইটনা ও মিঠামইন উপজেলায় বিভিন্ন কর্মসূচিতে অংশ নেন। পাঁচদিনের ওই সফরে হাওরের তিন উপজেলাতেই প্রেসিডেন্টকে গণসংবর্ধনা দেয়া হয়। সর্বশেষ গত বছরের ৮ই অক্টোবর তিন দিনের সফরে প্রেসিডেন্ট নিজ শহর কিশোরগঞ্জে এসেছিলেন। ওই সফরে প্রেসিডেন্টকে তাঁর শিক্ষাজীবনের স্মৃতি বিজড়িত সরকারি গুরুদয়াল কলেজে দেয়া হয় বিশাল ও অবিস্মরণীয় এক গণসংবর্ধনা।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘বিজিবি-বিএসএফ গুলিবিনিময়ের ঘটনা ভুল বোঝাবুঝি থেকে’

‘সমাজের কোথাও আমাদের সন্তানরা নিরাপদ নয়’

বিজিবির হাতে আটক ভারতীয় জেলে কারাগারে

মোটরসাইকেল থেকে পড়ে আহত ফিলিপাইনের প্রেসিডেন্ট

আসামে জেএমবি ক্যাডার গ্রেপ্তার

শাহ আমনতে সাড়ে ৭ কোটি টাকার সোনা জব্দ, বিমানযাত্রী আটক

সিরিয়ায় ৫ দিন হামলা স্থগিতে রাজি হয়েছে তুরস্ক: পেন্স

যুবলীগ চেয়ারম্যানের গণভবনে যাওয়া নিয়ে যা বললেন কাদের

আশুলিয়া ধর্ষণের শিকার আট বছরের শিশু

কাশ্মীরে জঙ্গি হামলা ও পুলিশের গুলিতে নিহত ৫

সিলেটের মেয়র আরিফুলের বিরুদ্ধে ঢাকায় মামলা

ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

কক্সবাজারে ‘গোলাগুলি’তে ২ রোহিঙ্গা নিহত

পাঁচবিবিতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৮ মামলার আসামি নিহত

‘বিষয়গুলো আমার মাথাতেই নেই’

সিঙ্গাপুরের ক্যাসিনোতে অন্য এক সম্রাট