তবে কী অভিমানে সরে গেলেন ফাহিম

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বুধবার
নাজমুল আবেদিন ফাহিম, ছিলেন বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (বিকেএসপি) কোচ। তার হাতেই গড়ে উঠেছেন আজকের সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীমরা। এমনকি তারা জাতীয় দলে এসেও হারাননি গুরুর সান্নিধ্য। যে কোনো সমস্যায় নাজমুল আবেদিনের পরামর্শ পেয়েছেন সাকিবরা। বিকেএসপির পর এই ক্রিকেট প্রশিক্ষকের ঠিকানা হয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। দীর্ঘ ১৪ বছর কাজ করেছে নানা পদে, ক্রিকেট ও ক্রিকেটারদের উন্নতির জন্য নিরলস পরিশ্রম করেছেন। কিন্তু সেই সম্পর্ক ছিন্ন করে তিনি চলে যাচ্ছেন! এরই মধ্যে জমা দিয়েছেন পদত্যাগ পত্র। যদিও বিসিবির পক্ষ থেকে তাকে পুনর্বিবেচনার অনুরোধ করা হয়েছে।
তবে তার বিদায় অনেকটাই নিশ্চিত। কী কারণে এমন বিদায়, অভিমান নাকি ব্যক্তিগত ইস্যু? এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি আসলে ব্যক্তিগত কারণেই পদত্যাগ করেছি। তাই এ ছাড়া অন্য কোন বিষয় নিয়ে মন্তব্য করতে চাই না। এরচেয়ে বেশি কিছু বলতেও চাই না।’ তবে বিভিন্ন সূত্রের দাবি বিসিবির অবহেলার কারণেই হয়তো তিনি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
নাজমুল আবেদিন ফাহিম বিকেএসপি ছেড়ে দীর্ঘদিন বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন। গেল ২ বছর ধরে তাকে কাজ করতে দেখা যাচ্ছে বিসিবির নারী বিভাগে। সেখানে অবশ্য বিভিন্ন দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। কখনো মনে হয়েছে কোচ কখনো বা ম্যানজার। তবে নারী বিভাগে তিনি কী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন, বা তার পদের নামটি ঠিকভাবে কেউ জানাতে পারেনি। এমনকি নাজমুল অবেদিন তার নারী বিভাগে পদ ও দায়িত্ব নিয়েও ছিলেন দ্বিধা-দ্বন্দ্বে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ তার পদত্যাগ নিয়ে বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়েছে ফাহিম স্যারের যোগ্য সম্মান তাকে দেয়া হয়নি বা হচ্ছিল না। সেই কারণেই হয়তো তার এমন পদত্যাগের সিদ্ধান্ত।’ অন্যদিকে বিসিবির সাবেক কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন ফেসবুকে নাজমুল আবেদিনের পদত্যাগে প্রতিক্রিয়া জানিয়ে দিয়েছেন দীর্ঘ স্ট্যাটাস। সেখানে তিনি লেখেন, ‘স্যার আপনার এমন সিদ্ধান্ত হয়তো আরো আগেই নেয়া উচিত ছিল।’
যদিও বিসিবির সিইও নিজামুদ্দিন সুজন জানিয়েছেন নাজমুল অবেদিনের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার অনুরোধ জানিয়েছে তারা। তিনি বলেন, ‘ফাহিম ভাই (নাজমুল আবেদিন) তার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন। বোর্ডেরও কিছু প্রক্রিয়া আছে। আমাদের তরফ থেকে তাকে বলা হয়েছে (পদত্যাগের সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করতে)। প্রধান নির্বাহী হিসেবে তাকে আমি বলেছি। তার মতো অভিজ্ঞ একজনকে রেখে দিতে আমাদের চেষ্টা থাকবেই।’ এমন অনুরোধ তাকে করা হয়েছে কিনা তা নিয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি নাজমুল আবেদিন। তিনি বলেন, ‘আসলে আমি এটা (বিসিবির অনুরোধ) নিয়ে কোনো ধরনের মন্তব্য করতেই চাই না। বিদায় নিচ্ছি, এটাই জানি।’ অন্যদিকে বিসিবি ছেড়ে নতুন কোন দায়িত্ব নিচ্ছেন কি না এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল আবেদিন বলেন, ‘না, এখনো কোন সিদ্ধান্ত নেইনি যে বিসিবি ছেড়ে কোথায় যাব বা কি করবো। আশা করি কিছু একটা করবো। সেটা নিয়ে পরেই চিন্তা করি।’

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধানে কাজ করার আগ্রহ ইইউ’র

কাউন্সিলর সাঈদকে অপসারণ

সতর্ক করেছে সংসদীয় কমিটি

গ্রামীণফোনের ১২ হাজার কোটি টাকা আদায়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা

ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে মোবাইল টাওয়ার অপসারণের নির্দেশ

মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

রূপপুর বালিশ দুর্নীতি অনুসন্ধানে দুদক

সুপরিচিত কুর্দি সাংবাদিককে পরিবারসহ হত্যা

নতুন ব্রেক্সিট চুক্তিতে সম্মত বৃটেন-ইইউ: জনসন

এরদোগানকে লেখা ট্রাম্পের চিঠি নিয়ে রাশিয়ার সমালোচনা

সম্রাটের জিজ্ঞাসা- শুধু তাকে কেনো?

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জার্সি উপহার ফিফা সভাপতির

শেখ হাসিনাকে ইডেন টেস্ট দেখার আমন্ত্রণ গাঙ্গুলির

সরকারের পদত্যাগ চান ডাকসুর সাবেক নেতারা

টি টেনে বাংলা টাইগার্সের দল ঘোষণা

সিরিয়া ইস্যুতে সমালোচিত ট্রাম্প, প্রতিনিধি পরিষদে নিন্দা