নবীগঞ্জে রাস্তা ও দেবোত্তর সম্পদ নিয়ে উত্তেজনা

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, নবীগঞ্জ (হবিগঞ্জ) থেকে | ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার
 নবীগঞ্জ উপজেলার দীঘলবাঁক ইউনিয়নের মৌজপুরসহ কয়েকটি গ্রামের চলাচলের রাস্তা ও সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দেবোত্তর সম্পদ নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্ক করছেন স্থানীয় লোকজন। প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্র জানায়, উপজেলার দীঘলবাঁক ইউনিয়নের মৌজপুর গ্রামে কালাচানতলী নামকস্থানে যুগের পর যুগ ধরে সনাতন ধর্মাবলম্বী লোকজন পূজা ও বিভিন্ন ধর্মীয় উৎসব পালন করে আসছেন। কুমারকাদা, দুর্গাপুর হোসেনপুর, মৌজপুরসহ কয়েকটি গ্রামের লোকজন কালাচানতলীতে প্রবেশ এবং পার্শ্ববর্তী হাওরাঞ্চলে যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা হিসেবে এ রাস্তা ব্যবহার করেন। সম্প্রতি কালাচানতলীর দেবোত্তর সম্পত্তির রাস্তা ও হাওরে যাতায়াতের রাস্তা চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেন কুমারকাদা গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী হেলাল মিয়া। তার বিরোদ্ধে দেবোত্তর সম্পদ দখল নিয়ে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ উঠে। হেলাল মিয়া প্রবাসে থাকায় তার মামা ওই গ্রামের মৃত মুনছব উল্লার পুত্র আকল মিয়া,সমশু মিয়া কর্তৃক উল্লেখিত স্থানে বাঁশের বেড়া দিয়ে চলাচলে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেন। এমনকি দেবোত্তর সম্পত্তি ও কালাচানতলীর রাস্তা দখলে মরিয়া হয়ে উঠে।
ওই গ্রামের মৌজপুরের বাসিন্দা অরুণ দেবনাথ জানান, পাকিস্তান আমল থেকে এই রাস্তা কালাচানতলীর রাস্তা ও হাওরাঞ্চলে চলাচলের রাস্তা হিসেবে ব্যবহার হয়ে আসছে। দুর্গাপুর গ্রামের বিশিষ্ট মুরব্বি হাজী আব্দুল কাইয়ুম বলেন, আমরা বয়স ৮০ বছর। জন্মের পর থেকে কয়েকটি গ্রামের লোকজন ওই রাস্তা দিয়ে হাওরাঞ্চলে যাতায়াত করে আসতে দেখেছি। এছাড়াও সনাতন ধর্মের লোকজন কালাচানতলীতে যাতায়াত করেন। কিছুদিন ধরে প্রভাবশালী একটি চক্র রাস্তা দখলের চেষ্টা করলে উত্তেজনা দেখা দেয়। যে কোনো সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা করেন তিনি। অভিযুক্ত আকল মিয়া বলেন, ক্রয়কৃত জমিতে বেড়া দেয়া হয়েছে। একটি মহল অযথা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদ বিন-হাসান বলেন, দেবোত্তর সম্পত্তি ও মানুষের চলাচলের রাস্তা নিয়ে বিরোধের বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এমপিও’র দাবিতে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচী

কূটনীতিকরা শিষ্টাচার লঙ্ঘন করেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ঢাকা কলেজ ছেড়েছেন আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ, ছাড়পত্র নিয়ে কুষ্টিয়ায়

মেয়ে ভারতে পাচার, দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন বাবা

সিরাজগঞ্জে ধর্ষকের যাবজ্জীবন

তুহিন হত্যায় পরিবারের সদস্যরা সম্পৃক্ত!

বিকালে আন্দোলনকারীদের সংবাদ সম্মেলন

প্রথমবার যৌথভাবে বুকার পুরস্কার দেয়া হয়েছে

ভারতে পালানোর সময় সাদাত গ্রেপ্তার

সৌদি আরবে লাল গালিচা অভ্যর্থনা পুতিনকে, শত শত কোটি ডলারের চুক্তি সই

সম্রাটের ১০ দিনের রিমান্ড, আরমানের ৫ দিন

লক্ষ্মীপুরে গণপিটুনিতে চোর নিহত

১০ টাকার জন্য নিজ সন্তানকে খুন করলেন মা

যৌতুকের জন্য নির্যাতন, স্বামী গ্রেপ্তার

‘আমার সামনে তখন একজন লিজেন্ডকে দেখি’

অস্ট্রেলিয়ায় প্রতিবাদের নামে নগ্নতা