কেবল নতুন কমিটি দিলেই সংকটের সমাধান হবে না

অনলাইন

তামান্না মোমিন খান | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ৩:০৬
ইতিহাসবিদ অধ্যাপক ড. সৈয়দ আনোয়ার হোসেন বলেছেন, সরকারি দলের  ছাত্র সংগঠন  যখন  সরাসরি দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে যায় তখন কমিটি ভেঙে নতুন করে গড়লেও সংকটের সমাধান হবে না। শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্য নয় সরাসরি দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে যাওয়ায় ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এটা ঠিক কাজ করেছেন প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু আমার প্রশ্ন হচ্ছে ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেওয়ার ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রীর হাতে থাকে কিভাবে। ছাত্রলীগ যেহেতু ছাত্রদের সংগঠন। ছাত্রলীগের ছাত্ররাই কমিটি ভাঙতে পারে এবং তারাই নতুন কমিটি গড়তে পারে। ছাত্রলীগ এখন ছাত্রদের সংগঠন নয় আওয়ামী লীগের অংশ হয়ে গেছে। এটি একটি অশনি সংকেত।
বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পে ছাত্রলীগকে অংশ দিতে হবে-এটা কবে থেকে চালু হলো? নিশ্চয় আনেক আগে থেকে চালু হয়েছে। এবার শুধু টাকার পরিমাণটা বেশি ছিল বলেই হয়তো নজরে এসেছে। দেশের ছাত্র রাজনীতি আজ কূলষিত। ছাত্রদের স্বার্থ নিয়ে তারা কাজ না করে সরাসরি দুর্নীতির সঙ্গে জড়িয়ে গেছে। ছাত্র রাজনীতিকে কূলষমুক্ত করতে হলে ছাত্র সংগঠনগুলো যেন কোনভাবেই প্রশাসনের সঙ্গে জড়িয়ে না পড়ে সেদিকে কঠোর নজর রাখতে হবে। এর দায়িত্ব যেমন প্রধানমন্ত্রীর আছে তেমনি বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষেরও আছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধানে কাজ করার আগ্রহ ইইউ’র

কাউন্সিলর সাঈদকে অপসারণ

সতর্ক করেছে সংসদীয় কমিটি

গ্রামীণফোনের ১২ হাজার কোটি টাকা আদায়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা

ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে মোবাইল টাওয়ার অপসারণের নির্দেশ

মুসা বিন শমসেরের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

রূপপুর বালিশ দুর্নীতি অনুসন্ধানে দুদক

সুপরিচিত কুর্দি সাংবাদিককে পরিবারসহ হত্যা

নতুন ব্রেক্সিট চুক্তিতে সম্মত বৃটেন-ইইউ: জনসন

এরদোগানকে লেখা ট্রাম্পের চিঠি নিয়ে রাশিয়ার সমালোচনা

সম্রাটের জিজ্ঞাসা- শুধু তাকে কেনো?

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জার্সি উপহার ফিফা সভাপতির

শেখ হাসিনাকে ইডেন টেস্ট দেখার আমন্ত্রণ গাঙ্গুলির

সরকারের পদত্যাগ চান ডাকসুর সাবেক নেতারা

টি টেনে বাংলা টাইগার্সের দল ঘোষণা

সিরিয়া ইস্যুতে সমালোচিত ট্রাম্প, প্রতিনিধি পরিষদে নিন্দা