২ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়েছে কৃষ্ণার পরিবার

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক | ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার, ২:১৮ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৪১
দুই কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়েছে ট্রাস্ট পরিবহনের বাসচাপায় পা হারানো কৃষ্ণা রায়ের পরিবার। এ বিষয়ে গতকাল রোববার ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্ট সার্ভিসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক বরাবর ডাক মাধ্যমে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন কৃষ্ণা রায়ের স্বামী রাধে শ্যাম।

নোটিশে দাবিকৃত টাকা সংগ্রহ করে কৃষ্ণার পরিবারকে প্রদানের জন্য এই আইনি নোটিশের কপি পাঠানো হয়েছে সড়ক ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সচিব, পুলিশ সদর দপ্তরে পুলিশের আইজিপি, বিআরটিএর চেয়ারম্যান এবং ঢাকা জেলা প্রশাসকের কাছেও।
রাধে শ্যামের আইনজীবী ইমরান হোসেন সাংবাদিকদের জানান, আইনি নোটিশের মাধ্যমে দুই কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চাওয়া হয়েছে। দুর্ঘটনার কারণে কৃষ্ণার পারিবারিক দুর্ভোগ হয়েছে এজন্য এক কোটি এবং ব্যক্তিগতভাবে তার যে ক্ষতি হয়েছে এজন্য আরও এক কোটি টাকা চাওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, গত ২৭শে আগস্ট ট্রাস্ট ট্রান্সপোর্টের বেপরোয়া গতিতে বাংলামোটরে ফুটপাতে উঠে যায়। বাসের চাপায় কৃষ্ণা রায়ের হাঁটুর নিচ থেকে পা প্রায় বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন সংস্থার (বিআইডব্লিউটিসি) হিসাব বিভাগের সহকারী ব্যবস্থাপক কৃষ্ণা রায় অফিস শেষে বাসের জন্য সেখানে দাঁড়িয়েছিলেন। পরবর্তীতে তাকে রক্ষা করতে গিয়ে পঙ্গু হাসপাতালের চিকিৎসকেরা হাঁটুর নিচের অংশ কেটে ফেলে দেন। পরে সংক্রমণ হওয়ায় তার হাঁটুর ওপরের কিছু অংশও কেটে ফেলা হয়।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ভুটানের জালে তিন গোল বাংলাদেশের

একাডেমি কাপ চ্যাম্পিয়ন যশোরের শামস-উল-হুদা এফএ

‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

কাশ্মীর নিয়ে ভারত সরকারের পদক্ষেপের ব্যাখ্যা চাইলো মার্কিন আদালত

শামীমের অর্থের উৎস অবৈধ

বিয়ের গুজবে চটেছেন আফিফ

‘আল্লাহর ওয়াস্তে ছবি তুইলেন না’

শামীমের কার্যালয়ে ২০০ কোটি টাকার এফডিআর, বিপুল পরিমান নগদ টাকা

যুক্তরাষ্ট্রে পালালেন পাকিস্তানি অধিকারকর্মী গুলালাই

স্কুল মাস্টারের ছেলে শামীমের বিলাসী জীবন, চলতেন ছয় দেহরক্ষী নিয়ে

১৫০ দেশে শুরু হলো বিশ্ব জলবায়ু আন্দোলন

খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া বহিষ্কার

শামীমের কার্যালয়ে টাকা আর টাকা

‘সব অযোগ্যদের উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে আওয়ামী লীগ’

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের প্রেম কাহিনী

এক বছর নিষিদ্ধ ধনঞ্জয়া