‘টেস্ট’ বলেই আত্মবিশ্বাসী মিরাজ

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২৬ আগস্ট ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:২০
৫ই সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট খেলতে নামবে বাংলাদেশ। চট্টগ্রামে এই টেস্টের আগে টাইগারদের ভক্তদের মধ্যে আছে পচা শামুকে পা কাটার ভয়। মাত্র ২ টেস্ট খেলা আফগানদের স্পিন শক্তি নিয়েই আসলে যত চিন্তা। বিশেষ করে অধিনায়ক রশিদ খান এখন বিশ্বের সেরা লেগস্পিনারদের একজন। সম্প্রতি বাংলাদেশ সফরে আফগানিস্তান ‘এ’ দলও ভালো নৈপুণ্য দেখিয়েছে। শেষ পর্যন্ত ওয়ানডে সিরিজ ড্র হলে মান বাঁচে। তাই তাদের তারুণ্য ও নতুন মুখে সাজানো টেস্ট দল নিয়ে ভাবতেই হচ্ছে টাইগারদের। তবে নিজেদের মাঠে টেস্টে নবাগত দলটির বিপক্ষে হুংকার দিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১১৪ টেস্ট খেলা বাংলাদেশ দলের সামনে টেস্টে খুব বেশি সুবিধা করতে পারবে না রশিদ খানের দল। সেই সঙ্গে নিজেদের মাঠেতো আত্মবিশ্বাসটা আরো বেশি এই টাইগার অফস্পিনারের। গতকাল সংবাদমাধ্যমের সামনে তিনি নিজেদের এগিয়ে রাখার কারণগুলোও তুলে ধরেন। তবে ছোট-বড় দল নিয়ে না ভেবে চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত তিনি। মিরাজের কথোপকথনের মূল অংশ তুলে ধরা হলো-
প্রশ্ন: আফগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট কতটা চ্যালেঞ্জের?
মিরাজ: আসলে প্রত্যেকটি ম্যাচই আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জের। আসলে ছোট বা বড় না। কারণ টেস্ট ক্রিকেটে কিন্তু যারা ভালো খেলবে তারাই জিতবে। এরপরেও আমরা ওদের থেকে এগিয়ে আছি। অভিজ্ঞতার দিক থেকে এবং আমরা শেষ যে টেস্টে পারফর্ম করেছি সেদিক থেকে। হোম কন্ডিশনের ব্যাপারও আছে। সবমিলিয়ে আমরা ওদের থেকে অনেকটা এগিয়ে আছি। এরপরও আল্টিমেটলি যতোই এগিয়ে থাকি, যতোই অভিজ্ঞতা থাকুক আমাদের ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে, আমাদের সবাইকে পারফর্ম করতে হবে। আর আমরা যদি সবাই ইন্ডিভিজুয়াল পার্টিকুলার এরিয়াতে পারফর্ম করি তাহলে আমাদের কাজটি আরো সহজ হয়ে যাবে।
প্রশ্ন : ডমিনেট করার মতো সামর্থ্য বাংলাদেশের আছে কি?
মিরাজ: হ্যা, অবশ্যই। আমি যেটি আগেও বলেছি। আমাদের অভিজ্ঞতা অনেক । অবশ্যই আমরা ডমিনেট করার চেষ্টা করবো। সেভাবেই আমরা কাজ করছি এবং অবশ্যই আমরা ওদের থেকে অনেক এগিয়ে থাকবো। আর অবশ্যই এরপরে দিন শেষে আমরা যদি ভালো ক্রিকেট খেলি তাহলে ওরা আসলে আমাদের বিপক্ষে তেমন কিছু করতে পারবে না। এরপরেও কিন্তু খেলাতে হার-জিত থাকবে আর একটা ভালো সময় কিংবা খারাপ সময় থাকে। এটাই মেনে নিতে হয়, এরপরেও আমরা আমাদের পার্টিকুলার এরিয়াতে কাজ করছি যেন ভালো ক্রিকেট খেলি এবং প্রমাণ করতে পারি যে আমরা ওদের থেকে ভালো দল ও ভালো ক্রিকেট খেলি।
প্রশ্ন: স্পিনারদের লড়াই মনে করেন কিনা?
মিরাজ: আমাদের বোলারদের কিন্তু অনেক অভিজ্ঞতা। বিশেষ করে সাকিব ভাই। প্রায় ১৩-১৪ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। ওয়ার্ল্ডক্লাস বোলার, অলরাউন্ডার। তাইজুল ভাই আর একটি উইকেট পেলে ১০০ উইকেট হবে। আমারও ১৩-১৪টি টেস্টের অভিজ্ঞতা হয়েছে। এই তিন চার বছরে আমার যতটা অভিজ্ঞতা হয়েছে, মানে ওদের (আফগানিস্তান) থেকে আমাদের টেস্ট ক্রিকেটের অভিজ্ঞতাটা অনেক বেশি। আর আমি যেটা বলবো ওয়ানডে এবং টি-টোয়েন্টি থেকে টেস্ট অনেক আলাদা। ওরা ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টিতে রান সেভ করে বোলিং করে। তারা বিভিন্ন জায়গায় বল করে থাকে। এটার জন্য হয়তো ব্যাটসম্যান অনেক সময় চার্জ করে। তবে টেস্ট ক্রিকেটে তো তেমন ব্যাপার নেই যে জোর করে মারা বা চার্জ করে খেলা। এখানে যতক্ষণ ভালো বল করবে ততক্ষণ দেখেশুনে খেলবে, একটি খারাপ বল করলে সেটিকেই মারবে। এটাই আসলে টেস্ট ক্রিকেট।
প্রশ্ন: চট্টগ্রামে টেস্ট ভেন্যু নিয়ে ভাবনা?
মিরাজ: আসলে মিরপুর, চিটাগাং যেখানেই খেলা হোক না কেন সবই তো আমাদের মাঠ। আমাদের হোম কন্ডিশন, আমরা জানি যে এই কন্ডিশনে কি হবে না হবে। এর আগে এই কন্ডিশনে ওরা টি-টোয়েন্টি, ওয়ানডে ক্রিকেট খেলেছে। তবে টেস্ট ক্রিকেট খেলেনি। আমরা আমাদের কন্ডিশন সম্পর্কে জানি। আমরা চেষ্টা করবো আমাদের কন্ডিশন কাজে লাগানোর জন্য। দুটি টেস্ট থাকলে হয়তো মিরপুরেও খেলা থাকতো।
প্রশ্ন: স্পোর্টিং উইকেট হলে ভালো হয় কিনা?
মিরাজ: আমার কাছে মনে হয় যে সবাই যে সিদ্ধান্তটি নিবে সেটাই আসলে ভালো হবে, এখানে আমি আর কি বলবো। বোলিং, ব্যাটিং যেহেতু আমাদের সবাই আছেন সিনিয়র খেলোয়াড়রা আছেন, কোচ আছেন, ম্যানেজমেন্ট আছে। সবাই যেটি ভালো মনে করবে সেটাই আমরা একসেপ্ট করবো।
প্রশ্ন: আপনার আঙুলের অবস্থা কী?
মিরাজ: আঙুল আল্লাহ্‌র রহমতে ভালো আছে। তেমন কোনো সমস্যা হয়নি। হয়তো তিন চার দিন বিশ্রাম নিলে ভালো হয়ে যাবে। অনুশীলনে নামতে পারছি না বলে খারাপ লাগছে। ইনজুরির কারণে ব্যাটিং, বোলিং করতে পারছি না । তবে এরপরেও আল্লাহ্‌ যা করেন ভালোর জন্য করেন। হয়তো পরবর্তী দুই তিন দিনের মধ্যে বোলিং, ব্যাটিং করতে পারবো। এর আগে ফিজিক্যাল ফিটনেসও হয়তো ভালো হবে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

মোক্তাদির হোসাইন

২০১৯-০৮-২৬ ১০:৫৯:৫৮

ODI তে তার বেধড়ক মার্ খাওয়া পারফরমেন্স দেখুন: ODIs ম্যাচ: 38 WKT: 37 তবুও রহস্যজনক কারণে তিনি একের পর এক ODI খেলেই যেতে পারছেন।

আপনার মতামত দিন

খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া বহিষ্কার

‘সব অযোগ্যদের উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে আওয়ামী লীগ’

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের প্রেম কাহিনী

এক বছর নিষিদ্ধ ধনঞ্জয়া

খাদ্য সংকটে উ. কোরিয়ার ৪০ শতাংশ জনগণ: জাতিসংঘ

ছাত্র রাজনীতির ইতিবাচক পরিবর্তন দেখছিনা

বিকালে নিউইয়র্ক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

‘বিএনপিই ঢাকাকে ক্যাসিনোর শহর তৈরি করেছে’

বড়াল নদীতে ভেসে উঠলো চার মরদেহ

ঢাকায় সাবেক যুগ্ম সচিবের অস্বাভাবিক মৃত্যু

আফগানিস্তানে মার্কিন হামলায় ৩০ বাদাম চাষী নিহত

টেকনাফে সড়ক দুর্ঘটনায় মা-ছেলে নিহত

প্রতিবেশীর জানাজায় গিয়ে নিজেই লাশ হলেন ব্যবসায়ী

যুবকের দুই হাতের কব্জি কাটার মূল হোতা চেয়ারম্যান সহযোগিসহ গ্রেপ্তার

২ লাখ ইয়াবাসহ আটক ৮ রোহিঙ্গা

হোয়াইট হাউজের অদূরে গোলাগুলিতে নিহত ১, আহত ৫