ভোলায় শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের পর গৃহবধূকে হাত-পা বেঁধে গণধর্ষণ

বাংলারজমিন

ভোলা প্রতিনিধি | ১৮ আগস্ট ২০১৯, রোববার
 জেলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় মাদ্রাসাছাত্রী (১৩) ও এক বিধবা (৩৫) নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার সকালে এ দুটি ঘটনা ঘটে। বর্তমানে তারা ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার বড় মানিকা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডে ওই মাদ্রাসাছাত্রীর মা তাকে রেখে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যায়। এ সুযোগে একই এলাকার আব্দুল রশিদের বখাটে ছেলে সোহাগ তাকে ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়েটির বাবা মাছ শিকার করে বাড়িতে এসে মেয়ের চিৎকার শুনতে পায়। পরে ধর্ষক সোহাগকে হাতেনাতে ধরতে গেলে তাকে মারধর করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মেয়ের বাবা শুক্রবার বিকালে বোরহানউদ্দিন থানায় মামলা করেন। অন্যদিকে একই উপজেলার কাচিয়া ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের ফুলকাচিয়া গ্রামের এক বিধবা নারীকে (৩৫) শুক্রবার ভোরে হাত পা বেঁধে গণধর্ষণ করে ওই এলাকার মাদকসেবী মাকসুদ, ছালাউদ্দিন ও আলমগীর। পরে সকালে স্থানীয়রা তাকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। তবে বিধবাকে গণধর্ষণের পর মামলা না করতে এলাকার প্রভাবশালী একটি মহল বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। ভোলা সদর হাসপাতালের সিনিয়র নার্স সারজিনা জানান, ধর্ষিতাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়েছে। ধর্ষণের আলামতও পাওয়া গেছে। বোরহানউদ্দিন থানা পুলিশের ওসি মো. এনামুল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মাদ্রাসাছাত্রীর ধর্ষণের ঘটনায় তার বাবা তিনজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেছেন। অপর ধর্ষণের ঘটনায় এখনো কোনো অভিযোগ থানায় আসেনি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির কড়া সমালোচনা জাতিসংঘে

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ নিহত ৪

বিধবাকে গণধর্ষণ, এএসআই প্রত্যাহার

মাফিয়া ডন শামীম গ্রেপ্তার

বদলে গেল ক্লাবপাড়ার দৃশ্যপট, তবে

তদন্তের জালে ছাত্রলীগের শতাধিক নেতা

কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে র‌্যাবের অভিযান সভাপতি গ্রেপ্তার

পিয়াজের দাম কমছেই না

ছাত্র রাজনীতির ইতিবাচক পরিবর্তন দেখছি না

দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ১০ জনের

‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

৪ খুঁটির মূল্য দেড় লক্ষাধিক টাকা

নজরদারিতে আওয়ামী লীগের অনেক নেতা

যুবলীগ কইরা মাতব্বরি করবেন ওই দিন শেষ

ভুটানের জালে তিন গোল বাংলাদেশের

সিলেট চেম্বার নির্বাচন নিয়ে মর্যাদার লড়াই