কাশ্মীর নিয়ে মমতার মধ্যস্থতার প্রস্তাব

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার
সংবিধানের ৩৭০ ধারা বিলোপের পরবর্তী পরিস্থিতিতে কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতার প্রস্তাব দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার তিনি বলেছেন, আমাকে কাশ্মীর পাঠানো হোক,  কথা বলে মীমাংসা করে দেব। ৩৭০ ধারা ভাল কি মন্দ তা নিয়ে কিছু বলতে চাই, যে পদ্ধতিতে এটা করা হয়েছে তা মোটেই ঠিক হয় নি। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, সংসদে যেদিন ৩৭০ ধারা বাতিলের প্রস্তাব করা হয়েছিল তার আগের দিন জম্মু ও কাশ্মীরের এক সাবেক মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে ফোন করেছিলেন। বলেছিলেন, আমরা ভয়ের মধ্যে রয়েছি। তাদের বিপদের দিনে আমি তাদের পাশে থাকব কিনা। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমি তাদের পাশে সংহতি জানাতে পারিনি সেই সময়। তবে শারীরিকভাবে তাদের পাশে দাঁড়াতে না পারলেও তাদের সঙ্গে আছি। তবে মমতা কোন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ফোন করেছিলেন তা বলেন নি। তিনি বলেছেন, সরকার বলছে কাশ্মীর ভাল রয়েছে। আমি আবারও বলতে চাই, যে পদ্ধতিতে এটা করা হয়েছে তা ঠিক হয়নি। রাজ্যের তিন সাবেক মুখ্যমন্ত্রীদের তা জানার অধিকার ছিল। মমতা এও বলেছেন, কাশ্মীরে কি হচ্ছে সে সম্পর্কে সেখানকার মানুষ সম্পূর্ণ অন্ধকারে। একথা বলার জন্য হয়তো আমাকে ইডি, সিবিআই দিয়ে ভয় দেখানো হবে। তবে কেউ যদি কাশ্মীরে যেতে না চায়, আমি যেতে রাজি রয়েছি। আমাকে সেখানে পাঠানো হোক। আমি সেখানকার মানুষের সঙ্গে কথা বলব। শান্তিপূর্ণ আলোচনা সম্ভব। কিন্তু সরকার কোনও আলোচনা না করেই বিল এনেছেন। মমতা এদিন প্রশ্ন করেছেন, জম্মু ও কাশ্মীরের তিনজন মুখ্যমন্ত্রীর খবর জানার অধিকার কি আমার নেই। তারা তো জণগণ দ্বারা নির্বাচিত হয়েছিলেন। গত ৮-১০ দিন ধরে দেশের মানুষ জানেন না তারা কোথায় রয়েছেন।  এসব প্রশ্ন করার জন্য  আমাকে গ্রেপ্তার করা হতে পারে। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি, সব দলের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে শান্তিপূর্ণ আলোচনা করা যেতো।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Citizen

২০১৯-০৮-১৬ ১৬:০৪:০৫

I am of the opinion that Kashmiris must not accept any compromise discussion. Only condition is independent Kashmir.

আপনার মতামত দিন

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির কড়া সমালোচনা জাতিসংঘে

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ কর্মকর্তাসহ নিহত ৪

বিধবাকে গণধর্ষণ, এএসআই প্রত্যাহার

মাফিয়া ডন শামীম গ্রেপ্তার

বদলে গেল ক্লাবপাড়ার দৃশ্যপট, তবে

তদন্তের জালে ছাত্রলীগের শতাধিক নেতা

কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে র‌্যাবের অভিযান সভাপতি গ্রেপ্তার

পিয়াজের দাম কমছেই না

ছাত্র রাজনীতির ইতিবাচক পরিবর্তন দেখছি না

দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ১০ জনের

‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

৪ খুঁটির মূল্য দেড় লক্ষাধিক টাকা

নজরদারিতে আওয়ামী লীগের অনেক নেতা

যুবলীগ কইরা মাতব্বরি করবেন ওই দিন শেষ

ভুটানের জালে তিন গোল বাংলাদেশের

সিলেট চেম্বার নির্বাচন নিয়ে মর্যাদার লড়াই