স্বা স্থ্য ক থা

মাংস খাবেন? আগে জেনে নিন

ষোলো আনা

ডা. ফাহমিদা আক্তার | ১৬ আগস্ট ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৪৪
ঈদুল আজহা মানেই ভারি খাবারের সমাহার। এই ঈদে গরু, ছাগল, মহিষ, ভেড়া ইত্যাদির মাংস খাওয়া হয়ে থাকে। ঈদে মাংস খেতে হবে কিছু নিয়ম মেনে। আর যাদের উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, কিডনি ও লিভারের রোগ আছে তাদের হতে হবে আরো সচেতন।  এ সময় নিজের বাড়িতে যেমন চলে ভারি খাবারের সমাহার সেইসঙ্গে থাকে আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতে দাওয়াত। তাই সুস্থ থাকতে চাইলে মেনে চলতে হবে কিছু নিয়ম।

মাংস খেতে হবে অল্প পরিমাণে। প্রচুর পরিমাণে খেলে হতে পারে হজমে সমস্যা। আর পান করতে হবে পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি। এ ছাড়াও পান করতে পারেন চিনি ছাড়া লেবুর শরবত, ফলের রস, ডাবের পানি, বোরহানি, ইসবগুলের ভূষি ইত্যাদি। যথা সম্ভব এড়িয়ে চলতে হবে চর্বি। এই চর্বি শরীরের ওজন ও রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। আবার রক্তনালীতে চর্বি জমে রক্তপ্রবাহকে ব্যাহত করে। ফলে স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। সেইসঙ্গে কোলন ও স্তন ক্যানসারের ঝুঁকিও বাড়ার সম্ভাবনা থাকে। আর মাংসের সঙ্গে খেতে পর্যাপ্ত পরিমাণ সবজি।

যাদের বয়স অল্প। হজমে সমস্যা নেই। তারা পছন্দমতো খেতে পারেন। কিন্তু অধিক না খাওয়াই ভালো। খাওয়ার পর অন্তত আধাঘণ্টা হাঁটুন। আর ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত ১ ঘণ্টা আগে শেষ করতে হবে খাওয়া। খাবারের ফাঁকে পানি না পান করাই ভালো। এতে হজমের অসুবিধা হয়। তাই খাওয়া শেষে পানি পান করুন। আর সম্ভব হলে কিছু সময় পর পানি পান করুন।


এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

১৮ মিনিটে ৫ গোল দিয়ে ম্যান সিটির রেকর্ড

পালাতে চেয়েছিল শামীম

খালেদের সেই টর্চারসেল

ক্যাসিনো ঘিরে অন্য সিন্ডিকেট

ভিআইপিদেরও হার মানিয়েছে ‘শামীম স্টাইল’

বশেমুরবিপ্রবি আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা

কলাবাগান ক্লাবের শফিকুল ১০ দিনের রিমান্ডে

‘রোহিঙ্গারা বাংলাদেশি’ সুচির দুই রূপে বিস্মিত ক্যামেরন

বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতির কড়া সমালোচনা জাতিসংঘে

দুর্গা পুজো নিয়ে রাজনীতির দড়ি টানাটানি

শিক্ষায় এগিয়ে রিটা সম্পদে সাদ

নূরুল কবীরের চোখে যে দুই কারণে দুর্নীতিবিরোধী অভিযান (অডিও)

বশেমুরবিপ্রবি’র ভিসির পদত্যাগ দাবি ভিপি নুরের

সওজের জায়গায় এমপি খোকার অবৈধ মার্কেট

দুর্নীতির দায় নিয়ে সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: ফখরুল

তাদের মুখে রাঘব বোয়ালের নাম