গাছের সঙ্গে পিকনিকের বাসের ধাক্কা, নিহত ৭

অনলাইন

ফেনী প্রতিনিধি | ১৫ আগস্ট ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ১০:২৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪৮
ফেনীতে কক্সবাজারগামী একটি পিকনিকের বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ৭ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অন্তত ২১ জন যাত্রী। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সদর উপজেলার লেমুয়া ইউনিয়নে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতদের মধ্যে তাৎক্ষনিক দু’জনের পরিচয় নিশ্চিত করেছে পুলিশ।

ফেনীর মহিপাল হাইওয়ে থানার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহজাহান খান জানান, ঢাকার মিরপুর থেকে পিকনিকের উদ্দেশে কক্সবাজার যাচ্ছিল ‘প্রাইম প্লাস’ পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস (ঢাকা মেট্রো-ব-১৪-৭৫৭৮)। আজ বৃহস্পতিবার সকালে মহাসড়কের ফেনীর লেমুয়া অংশে পৌঁছলে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে দুমডে-মুচড়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে।

দুর্ঘটনায় ঘটনাস্থলে ৬ জন বাসযাত্রী নিহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে অন্তত ২১ জনকে উদ্ধার করে ফেনীর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।


ফেনীর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের নায়েক মাইদুল হক জানান, ঘটনাস্থলে ৬ জন মারা যায়। আহতদের মধ্যে হাসপাতালে নেয়ার পর শাহাদাত হোসেন নামে আরও একজন নিহত হন। নিহত বাসযাত্রী শাহাদাত ফেনীর ছাগলনাইয়ার বাসিন্দা।

নিহত অপর ৬ জনের মধ্যে ঢাকার বিক্রমপুরের সুজন মিয়া নামে একজনের পরিচয় নিশ্চিত করা গেছে। নিহত ৭ জনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনীর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

ফেনীর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আবু তাহের পাটোয়ারী জানান, আহতের মধ্যে ২০ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঢাকার মিরপুরের স্থানীয় বাসিন্দা ও পিকনিকের উদ্যোক্তা পাপ্পু জানান, ঈদের ছুটি উপলক্ষ্যে মিরপুরের বাসিন্দারা স্থানীয়ভাবে কক্সবাজার ও বান্দরবান যাওয়ার আয়োজন করে। সে অনুযায়ী চাঁদা সংগ্রহ শেষে বুধবার রাত ২টার দিকে মিরপুর থেকে দু’টি বাস কক্সবাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এদের মধ্যে একটি বাস ফেনীতে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। তবে অন্য বাসটি কক্সবাজার পৌঁছে যায়।

আহতদের মধ্যে রুমা আক্তার নামে এক যাত্রী বলেন, মিরপুর থেকে রাত ২টার দিকে বাসটি রওনা দেয়। ভোরে মহাসড়কের কোন একটি রেস্তোরাঁয় বাসটি থামলে সবাই নাস্তা করেন। পরে সব যাত্রী বাসে ওঠে ঘুমিয়ে পড়লে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৮-১৪ ২৩:১২:২২

ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজেউন। বড়ই দুঃখজনক ঘটনা । বাচ্চারা আনন্দ করতে বের হয়ে এত জন এক সঙ্গে প্রাণ হারাল। আহতরা সুস্থ হয়ে উঠুক।

আপনার মতামত দিন

সন্ত্রাস-সাম্প্রদায়িকতা রুখে দেয়ার শপথ বুয়েটে

সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করবে ঐক্যফ্রন্ট

সেই বড় ভাই কারা

ফের আলোচনায় আবদুল হাই বাচ্চু

অভিযান অব্যাহত থাকবে

মাটি কেনায় নয়ছয়ের পাঁয়তারা

ইন্টারগেশন সেলে মুুখোমুখি হচ্ছেন সম্রাট-আরমান

সড়কের দুই পাশে ট্রাক বাস রেখে চাঁদাবাজি করা হয় : শামীম ওসমান

কোনো উদ্যোগেই দাম কমছে না পিয়াজের

তদন্ত প্রতিবেদন ২০শে নভেম্বর

বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী

প্রেমের টানে জৈন্তাপুরে ভারতীয় খাসিয়া নারী হুলুস্থুল

এবার তহবিল চায় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

আইনজীবীর হাতে হাতকড়া বিচারক অবরুদ্ধ এজলাস ভাঙচুর

চট্টগ্রামে গতি পেলো মেট্রোরেল

বরগুনায় রিফাত হত্যার প্রধান আসামির জামিন নামঞ্জুর