ঝিনাইদহে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার

অনলাইন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি | ১৪ আগস্ট ২০১৯, বুধবার, ১২:১৩
ঝিনাইদহ পৌর এলাকার খাজুরা মাঠপাড়ায় সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রী (১৪) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে ঝিনাইদহ সদর থানায় একটি মামলা হয়েছে।

ধর্ষণের শিকার ছাত্রীর চাচা গনমাধ্যম কর্মীদের জানান, ঈদের দিন (সোমবার) সন্ধ্যার দিকে খাজুরা গ্রামের মুন্তাজ আলীর ছেলে বাদশা, মন্টু মন্ডলের ছেলে রুহুল আমীন ও একই গ্রামের জাফরের ছেলে মুন্নু তার ভাতিজিকে মাঠ থেকে তুলে নিয়ে গনধর্ষণ করে। ধর্ষণের পর ক্যাডেট কলেজের সামনের একটি আবাসন এলাকায় ফেলে যায়। ভুমিহীন পাড়ার এক ব্যাক্তি ধর্ষিতাকে বাড়ি পৌছে দেয়। বাড়ি এসে মেয়েটি সব খুলে বলে।

তার বাবা জানান, তিনি ওই মেয়েটিকে পালিত কন্যা হিসেবে লালন পালন করছে। তার কোনো সন্তান নেই।
ঈদের দিন সন্ধ্যার দিকে মেয়েটি পাশের বাড়িতে তার মাকে খুঁজতে বের হয়। এ সময় বাদশা, রুহুল আমীন ও মুন্নু তাকে মুখ বেঁধে তুলে নিয়ে ধর্ষন করে। ধর্ষণের শিকার হওয়া ওই ছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
খবরের সত্যতা স্বীকার করে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান বলেন, এ ব্যাপারে ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন, যার নং ২৮। আসামী গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

দলবেঁধে বিদেশ ভ্রমণ

টাকার মান কমানোর উদ্যোগ যা ভাবছেন বিশ্লেষকরা

ছাত্ররাজনীতি বন্ধ হওয়া উচিত

দুদক চেয়ারম্যানের পদত্যাগ করা উচিত

গণভবনে আবরারের বাবা-মা, দ্রুত বিচারের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

চার বড় ভাইকে নিয়ে সিলেটে নানা জল্পনা

ড. ইউনূসের গ্রেপ্তারি পরোয়ানা স্থগিত

পরিবেশ রক্ষা করেই সুন্দরবন এলাকায় উন্নয়ন হচ্ছে- সালমান এফ রহমান

বাংলাদেশে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার অপরাধকরণ নিয়ে উদ্বেগ

শিশুর ওপর এ কেমন বর্বরতা!

ছাত্রলীগ থেকে অমিত সাহা বহিষ্কার

আবরারের ছবিতে ভিজেছে হাজারো চোখ

‘শিবির সন্দেহে আবরারকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়’

মিজান ও অমিত সাহা জানায়, আবরার শিবির করে

খোকন-শ্যামলসহ ছাত্রদলের অর্ধশতাধিক নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা

বিদেশি পর্যটকে মুখরিত হবে হাওর: প্রেসিডেন্ট