মুসকিল আসানে ‘আল্লাহু লকেট’, চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রতারণা

অনলাইন

দীন ইসলাম | ১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার, ১১:২১ | সর্বশেষ আপডেট: ৪:৫১
‘আল্লাহু লকেট’ বিক্রির নামে প্রতারনায় নেমেছে ১০-১৫ জনের একটি চক্র। চটকদার বিজ্ঞাপন দিয়ে প্রেমে ব্যর্থতা, পারিবারিক জীবনে অসুখীসহ বিভিন্ন সমস্যায় আক্রান্তদের টার্গেট করেছে চক্রটি। এরপর ডাকযোগে ‘আল্লাহু লকেট’ পাঠানোর কথা বলে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। প্রতিটি লকেট চক্রটি বিক্রি করছে ২৯৬০ টাকায়। রিক্সাওয়ালা, ঠেলাগাড়ির ড্রাইভারসহ বিভিন্ন নিম্ম আয়ের মানুষ কয়েকটি টিভি চ্যানেলে ‘আল্লাহু লকেট’- এর বিজ্ঞাপন দেখে আকৃষ্ট হচ্ছেন। খোয়াচ্ছেন নিজের কষ্টার্জিত টাকা। অনুসন্ধানে জানা গেছে, ‘১০০% অরজিন্যাল আল্লাহু লকেট বিজ্ঞাপন প্রচার করছে বেশ কয়েকটি প্রিন্ট ও ইলেকট্টনিক মিডিয়া। ওই সব বিজ্ঞাপনে বেশ কয়েকটি মোবাইল ফোন নাম্বার দিয়ে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলা হচ্ছে। বিজ্ঞাপনের সঙ্গে নকল হইতে সাবধান একথাও জুড়ে দেয়া হচ্ছে। যাতে ক্রেতারা আরও বেশি আকৃষ্ট হন। গ্রাহক সেজে এ প্রতিবেদক ফোন (০১৯৯৯৯৩৬৯৮৪) করার পর অপর প্রান্ত থেকে সাইফুর রহমান নামে এক ব্যক্তি ফোন ধরেন। ফোন রিসিভ করা ব্যক্তি প্রথমেই পরিচয় জানতে চান। নিজে প্রেমে ব্যর্থ হয়ে ফোন করেছেন জানালে বলা হয়, আপনি কি ওই মেয়েকে চান। আমরা ‘আল্লাহু লকেট’ ওইভাবেই বানিয়ে দিয়ে থাকি। এখন আপনি বিস্তারিতভাবে আপনার সমস্যার কথা বলেন। আমরা সমাধানসহ আল্লাহ লকেট বানিয়ে থাকি। নিজের প্রেমে ব্যর্থতার গল্প বলার পর কিভাবে লকেটটি নেব জানতে চাইলে সাইফুর বলেন, আপনি টাকা পাঠিয়ে দিলেই চলবে। আমরা ডাকযোগে আপনাকে ‘আল্লাহ লকেট’ সরবরাহ করবো। আমি সরাসরি কোথা থেকে লকেটটি নিতে পারবো জানতে চাইলে ফোন রিসিভ করা ওই ব্যক্তি বলেন, চট্টগ্রামের আগ্রাবাদের ইয়াকুব আলী মার্কেট থেকে সরাসরি ‘আল্লাহু লকেট’ নিতে পারবেন। মার্কেটটির দ্বিতীয় তলায় আমাদের অফিস। ওই অফিসে সরাসরি আসলে লকেট নিতে পারবেন। কোন সমস্যা পোহাতে হবে না। আমি আমার বন্ধুকে পাঠাবো বলতেই তিনি জানান আমাদের অফিসে আসার আগে অবশ্যই ফোন দিয়ে আসতে হবে। না হলে আমাদের পাবেন না। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, বাংলা সিনেম বেশি দেখায় এমন কয়েকটি টিভি চ্যানেলকে টার্গেট করে তাদের কাজ উদ্ধার করছে ‘আল্লাহু লকেট’ বিক্রির সিন্ডিকেট। বাংলা সিনেমা দেখানোর সময়েই তারা চটকদার বিজ্ঞাপনটি বেশি প্রচার করায়। বিজ্ঞাপনে স্যুটেড-ব্যুটেড হওয়া বেশ কয়েক জন ব্যক্তি লকেটের গুণাগুণ সর্ম্পকে সাধারণ মানুষকে জানান। এরপরই নিম্ম আয়ের মানুষ আকৃষ্ট হয়ে মোবাইল ফোনে নির্ধারিত চারটি বাংলা লিংক নম্বরের একটিতে যোগাযোগ করে। যোগাযোগ করলেই সিন্ডিকেটের একজন লকেটের উপকারিতা সর্ম্পকে বলেন। পাশাপাশি কিভাবে নিতে হবে ওই সর্ম্পকেও জানিয়ে দেন। সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে ‘আল্লাহু লকেট’ সর্ম্পকে জানতে চাইলে শফিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি মানবজমিনকে বলেন, ১৫-২০ জন ব্যক্তি আল্লাহু লকেট সারা দেশে বিক্রি করেন। চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ থেকে এটি সারা দেশে বিপনন করা হয়। তিনি বলেন, আমাদের লকেটে কাজ হয় না এ অভিযোগ সর্ম্পর্ণ মিথ্যা। কাজ না হলে মানুষ লকেটটি নকল করতো না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০১৯-০৮-১২ ২০:৪৭:৩৩

How TV channel broadcast this cheating ads ? They are involved. Government should impose heavy monetary punishment on those TV channels.

আপনার মতামত দিন

পর্নো জগতের ফাঁদ

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হার

তৃতী ম্যাচে এসে চেলসির প্রথম জয়

ইতালি, ইউরোপীয় রাজনীতির ড্রামা কুইন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন না হওয়ার নেপথ্যে

‘নারী কেলেঙ্কারি’ জামালপুরের ডিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে

ডেঙ্গুতে আরো চার জনের মৃত্যু

যুবলীগ নেতা হত্যার আসামি দুই রোহিঙ্গা ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

গ্রুপ দ্বন্দ্বে ১১ বছরে ২০ খুন

মিয়ানমারের কাছে সরকার নতি স্বীকার করেছে: ফখরুল

কুঁড়েঘরের মোজাফফরকে শেষ বিদায়

সেতুর রেলিং ভেঙে বাস খাদে, নিহত ৯

সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি

বিদেশমুখী তারুণ্য

পুকুর গিলে খেয়েছেন সেটেলমেন্ট আর পরিবেশ কর্মকর্তা

নেতৃত্বে পরিবর্তনের দাবি সিপিআইএমে