ফের সোনিয়া গান্ধীই কংগ্রেস সভাপতি

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ৪:১৮
গত দু মাস ধরে নানা টালবাহানার পরে ফের সোনিয়া গান্ধীকেই অন্তবর্তী সভাপতি হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে। শনিবার কংগ্রেসের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণকারী সংস্থা ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে সর্বসম্মতভাবে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এই সভাপতি মনোনয়ন প্রক্রিয়ায় সোনিয়া এবং রাহুল কেউই যুক্ত ছিলেন না। বেশ কয়েক বছর সভাপতি থাকার পর সোনিয়া গান্ধীর কাছ  থেকে শতাব্দী প্রাচীন দলের দায়িত্ব কাঁধে নিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। তিনি  লোকসভা নির্বাচনে কংগ্রেসের শোচনীয় পরাজয়ের দায় নিজের কাঁধে নিয়ে পদত্যাগ করেছিলেন গত মে মাসে। এরপর নানাভাবে তাকে বোঝানোর চেষ্টা হয়েছে দায়িত্বে থেকে যাবার জন্য। কিন্তু রাহুল কোনভাবেই রাজি হননি। তিনি প্রিয়াঙ্কাকে এই পদের জন্য বাছাই করতেও নিষেধ করেছিলেন। শেষপর্যন্ত ওয়াকির্ং কমিটি রাহুল গান্ধীর ইস্তফা গ্রহণ করেছে। সেই সঙ্গে সোনিয়া গান্ধীকে সভাপতি মনোনয়নের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শনিবার গভীর রাতে রাজ্যসভায় কংগ্রেসের দলনেতা গুলাম নবি আজাদ ঘোষণা করেছেন, কংগ্রেসের নতুন সভানেত্রী হচ্ছেন সোনিয়া গান্ধী। ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠকে রাহুলকে সর্বসম্মতিভাবে পদত্যাগ করা থেকে বিরত করার চেষ্টা হয়েছিল, দাবি করেছেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রণদীপ সুরজেওয়ালা। কিন্তু তিনি অনড় থাকেন। এরপরই অন্তর্বতী সভাপতি হিসেবে সোনিয়া গান্ধীকে বেছে নিয়েছে ওয়ার্কিং কমিটি। তা স্বীকার করে নিয়েছেন সোনিয়া গান্ধী। সাংবাদিক বৈঠকে রণদীপ সুরজেওয়ালা বলেছেন, ‘রাহুল গান্ধীর অভূতপূর্ব নেতৃত্বের জন্য ওনার প্রশংসা করেছেন কংগ্রেসের ওয়ার্কিং কমিটি। সভাপতি হিসেবে অক্লান্ত পরিশ্রম করেছেন রাহুল গান্ধী। প্রতি মুহূর্তে দেশের কৃষক, ছোট ছোট ব্যবসায়ী, সংখ্যালঘু, মহিলা, আদিবাসী ও সমাজের গরিব মানুষের আওয়াজ হয়ে উঠেছেন। দেশে হিংসার পরিবেশের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছেন রাহুল গান্ধী। কংগ্রেসকে একটা নতুন দিশা দিয়েছেন রাহুল গান্ধী। বঞ্চিত ও শোষিতদের জন্য আশার আলো হয়ে উঠেছেন। শনিবার সকালে বৈঠকে আলোচনার পরও সভাপতি বাছাই করতে পারেনি কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি। রাত ৮টায় ফের বৈঠকে বসেন তারা। নতুন সভাপতি বাছাই করতে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটিকে ৫টি ছোট কমিটিতে ভাঙা হয়েছিল।  প্রত্যেক কমিটিকে দলের বিভিন্ন অংশের সঙ্গে কথা বলে রাত ৮টার মধ্যে রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছিল। সভাপতি পদ নিয়ে আলোচনায় বৈঠক ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন সোনিয়া গান্ধী ও রাহুল গান্ধী। সভাপতি হিসেবে সোনিয়া ঘনিষ্ঠ মুকুল ওয়াসনিকের নাম উঠে আসছিল। আরও একটা মহল থেকে মল্লিকার্জুন খাড়গের নামও শোনা যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত সোনিয়া গান্ধীকে বেছে নেওয়া হয়েছে। অথচ রাহুল চেয়েছিলেন, গান্ধী পরিবারের বাইরে কেউ কংগ্রেসে সভাপতির দায়িত্ব নিক। আপাতত সেটা হয়নি। তবে দলের সাংগঠনিক নির্বাচনের পরই স্থায়ী সভাপতি নির্বাচন করা হবে বলে জানানো হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পর্নো জগতের ফাঁদ

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের হার

তৃতী ম্যাচে এসে চেলসির প্রথম জয়

ইতালি, ইউরোপীয় রাজনীতির ড্রামা কুইন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন না হওয়ার নেপথ্যে

‘নারী কেলেঙ্কারি’ জামালপুরের ডিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে

ডেঙ্গুতে আরো চার জনের মৃত্যু

যুবলীগ নেতা হত্যার আসামি দুই রোহিঙ্গা ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

গ্রুপ দ্বন্দ্বে ১১ বছরে ২০ খুন

মিয়ানমারের কাছে সরকার নতি স্বীকার করেছে: ফখরুল

কুঁড়েঘরের মোজাফফরকে শেষ বিদায়

সেতুর রেলিং ভেঙে বাস খাদে, নিহত ৯

সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি

বিদেশমুখী তারুণ্য

পুকুর গিলে খেয়েছেন সেটেলমেন্ট আর পরিবেশ কর্মকর্তা

নেতৃত্বে পরিবর্তনের দাবি সিপিআইএমে