চলন্ত বাসের বিরতিতে স্বামীকে আটকে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

এক্সক্লুসিভ ১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২১

ঈদুল আজহার ছুটিতে বাড়ি যাওয়ার পথে চলন্ত বাসের যাত্রাবিরতিতে হোটেলে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করেছে ৬ যুবক। শুক্রবার রাতে নেত্রকোনা সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর বিসিক শিল্প নগরীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলো- সাইদুল ইসলাম, রেজাউল করিম পাভেল, জামান বাশার ও ধর্ষণে সহযোগিতাকারী সারিন্দা ফাস্ট ফুডের ম্যানেজার মাহফুজুর রহমান।

অভিযোগে জানা গেছে, ঢাকায় বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরিরত জনৈক ব্যক্তি স্ত্রীকে নিয়ে ঈদের ছুটিতে কলমাকান্দায় বাড়িতে যাচ্ছিলেন। শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে বাস থেকে নেমে সদর উপজেলার চল্লিশার রাজেন্দ্রপুর বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় ফাস্ট ফুডের দোকান সারিন্দাতে গৃহবধূ ওয়াশরুমে যান। এ সময় হোটেলে বসে থাকা কয়েক যুবক গৃহবধূকে নিয়ে আপত্তিকর কথা বলে। এতে গৃহবধূর স্বামীর সঙ্গে যুবকদের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে যুবকরা স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে।
পরে রাতেই ধর্ষিতা ও তার স্বামী বিষয়টি নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশকে জানায়। পুলিশ শনিবার ভোরে অভিযান চালিয়ে ওই এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় শনিবার ভিকটিম বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে নেত্রকোনা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পুলিশ ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ধর্ষিতাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। নেত্রকোনার পুলিশ সুপার মো. আকবর আলী মুন্সী জানান, গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলার বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত দিন

এক্সক্লুসিভ অন্যান্য খবর

বৈরুত ট্র্যাজেডি

রাশেদের লাশ ছুঁয়ে দেখতে মায়ের আকুতি

১২ আগস্ট ২০২০

পরিবহন খাতে শীর্ষ নাম শ্যামলী

একটি টেম্পো দিয়ে শুরু

১০ আগস্ট ২০২০

মহাসড়কের পাশে বানভাসিরা

‘কহন যেন ছাপড়ার উপর গাড়ি উইঠ্যা পড়ে’

২৯ জুলাই ২০২০

বিজয়নগরে বেহাল সড়ক

২৯ জুলাই ২০২০



এক্সক্লুসিভ সর্বাধিক পঠিত