চলন্ত বাসের বিরতিতে স্বামীকে আটকে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

এক্সক্লুসিভ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি | ১১ আগস্ট ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:২১
ঈদুল আজহার ছুটিতে বাড়ি যাওয়ার পথে চলন্ত বাসের যাত্রাবিরতিতে হোটেলে স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করেছে ৬ যুবক। শুক্রবার রাতে নেত্রকোনা সদর উপজেলার চল্লিশা ইউনিয়নের রাজেন্দ্রপুর বিসিক শিল্প নগরীতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। তারা হলো- সাইদুল ইসলাম, রেজাউল করিম পাভেল, জামান বাশার ও ধর্ষণে সহযোগিতাকারী সারিন্দা ফাস্ট ফুডের ম্যানেজার মাহফুজুর রহমান।

অভিযোগে জানা গেছে, ঢাকায় বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরিরত জনৈক ব্যক্তি স্ত্রীকে নিয়ে ঈদের ছুটিতে কলমাকান্দায় বাড়িতে যাচ্ছিলেন। শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে বাস থেকে নেমে সদর উপজেলার চল্লিশার রাজেন্দ্রপুর বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় ফাস্ট ফুডের দোকান সারিন্দাতে গৃহবধূ ওয়াশরুমে যান। এ সময় হোটেলে বসে থাকা কয়েক যুবক গৃহবধূকে নিয়ে আপত্তিকর কথা বলে। এতে গৃহবধূর স্বামীর সঙ্গে যুবকদের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে যুবকরা স্বামীকে আটকে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে। পরে রাতেই ধর্ষিতা ও তার স্বামী বিষয়টি নেত্রকোনা মডেল থানা পুলিশকে জানায়। পুলিশ শনিবার ভোরে অভিযান চালিয়ে ওই এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় শনিবার ভিকটিম বাদী হয়ে ৬ জনের বিরুদ্ধে নেত্রকোনা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। পুলিশ ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ধর্ষিতাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠিয়েছে। নেত্রকোনার পুলিশ সুপার মো. আকবর আলী মুন্সী জানান, গৃহবধূ ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলার বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ইতালি, ইউরোপীয় রাজনীতির ড্রামা কুইন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন না হওয়ার নেপথ্যে

‘নারী কেলেঙ্কারি’ জামালপুরের ডিসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে

ডেঙ্গুতে আরো চার জনের মৃত্যু

যুবলীগ নেতা হত্যার আসামি দুই রোহিঙ্গা ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত

গ্রুপ দ্বন্দ্বে ১১ বছরে ২০ খুন

মিয়ানমারের কাছে সরকার নতি স্বীকার করেছে: ফখরুল

কুঁড়েঘরের মোজাফফরকে শেষ বিদায়

সেতুর রেলিং ভেঙে বাস খাদে, নিহত ৯

সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি

বিদেশমুখী তারুণ্য

পুকুর গিলে খেয়েছেন সেটেলমেন্ট আর পরিবেশ কর্মকর্তা

নেতৃত্বে পরিবর্তনের দাবি সিপিআইএমে

দুটি ব্যালাস্টিক মিসাইল পরীক্ষা রাশিয়ার

মেডিকেল ভর্তি নীতিমালায় বিপাকে শিক্ষার্থীরা

গাড়ি ছিনতাইয়ের জন্যই চালককে হত্যা