মেয়রের উদ্দেশ্যে সন্তানহারা মা

অনুধাবন করার অনুভূতি কি আল্লাহপাক আপনাকে দিয়েছেন?

ফেসবুক ডায়েরি

অনলাইন ডেস্ক | ৬ আগস্ট ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২২
ডেঙ্গুজরে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ৭ বছর বয়সী শিশু ইরতিজা শাহাদ প্রত্যয়ের মা নিজের ফেসবুক ওয়ালে এক মর্মস্পর্শী স্ট্যাটাস দিয়েছেন। স্ট্যাটাসে মেয়রের দায়িত্ব পালন করা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। নিহত ইরতিজার মা চাঁদ সুলতানা চৌধুরানী জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের একজন উপ কমিশনার। তিনি নিজেও ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।   

চাঁদ সুলতানা লিখেছেন-
মাননীয় মেয়র,
আমি প্রজাতন্ত্রের একজন কর্মচারী (উপ কর কমিশনার, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড), যার মাধ্যমে গত অর্থবছরে রাষ্ট্র ৬৬৫ কোটি টাকা রাজস্ব আহরণ করতে পেরেছে। আমি রাষ্ট্রের দেয়া গুরু দায়িত্ব পালন করেছি অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে।

কিন্তু, মাননীয় মেয়র, রাষ্ট্র কি আমার বাচ্চার নিরাপত্তা দিতে পেরেছে ?
 
ডেঙ্গুজ্বরে আমি আমার প্রাণের অধিক প্রিয় একমাত্র ছেলেকে হারালাম!!!! এখন, আমিও  ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ছয় দিন ধরে হাসপাতালের বেডে কাতরাচ্ছি !! আমার  মেয়ের ২ বছর বয়সে ১ বার ডেঙ্গু হয়েছিল ! আপনি কি নিশ্চয়তা দিতে পারেন আমার মেয়ের আর ডেঙ্গু হবে না? সদ্য ছোট ভাই হারানো আমার ছোট্ট মেয়ে তার মাকেও যখন হাসপাতালের বেডে দেখছে তখন তার মনের অবস্থা অনুধাবন করার অনুভূতি কি আল্লাহপাক আপনাকে দিয়েছেন? নাকি, আমার এই লেখাটিও আপনার কাছে একটি গুজব !!!!

উল্লেখ্য, চাঁদ সুলতানার একমাত্র ছেলে ইরতিজা শাহাদ প্রত্যয় গত ৫ই জুলাই বিকেল ৪টায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। সে ধানমন্ডির মাস্টার মাইন্ড স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে পড়তো।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Reza

২০১৯-০৯-১৯ ১৭:৫৩:১২

হ্যা ! উনি তখনই বুঝতেন যদি উনার কেও ডেঙ্গু জ্বরে মারা যেতেন !

santa Chakma

২০১৯-০৯-১৬ ১৯:১৩:৪৭

আপনার সাথে আমি ও একমত।

জাফর আহমেদ

২০১৯-০৮-০৬ ০১:১৫:৩৫

বোন আল্লাহ তাআলা আপনাকে উওম দয্য রাখার তৌফিক দান করুন। এবং আপনার রোগ থেকে মুক্তি দান করুন। আপনার এই আকুতি এদের মতো নির্লজ্জ মিথ্যাচার কারির কানে পৌঁছাবে না। কারণ তারা মানুষ না। তারা নির্লজ্জ মিথ্যুক।

আপনার মতামত দিন

বদলে গেল ক্লাবপাড়ার দৃশ্যপট, তবে

তদন্তের জালে ছাত্রলীগের শতাধিক নেতা

কলাবাগান ক্রীড়াচক্রে র‌্যাবের অভিযান সভাপতি গ্রেপ্তার

পিয়াজের দাম কমছেই না

ছাত্র রাজনীতির ইতিবাচক পরিবর্তন দেখছি না

দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল ১০ জনের

‘খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরো অবনতি’

৪ খুঁটির মূল্য দেড় লক্ষাধিক টাকা

নজরদারিতে আওয়ামী লীগের অনেক নেতা

যুবলীগ কইরা মাতব্বরি করবেন ওই দিন শেষ

ভুটানের জালে তিন গোল বাংলাদেশের

সিলেট চেম্বার নির্বাচন নিয়ে মর্যাদার লড়াই

২৪ ঘণ্টায় নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি ৫০৮ জন

কমিশন কেলেঙ্কারিতে একা হয়ে পড়েছেন জাবি ভিসি

খালেদ মাহমুদকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার

মিন্নির আলোচিত সেই জবানবন্দি