‘ছেলেধরা’ আতঙ্কে বিদ্যালয়ে উপস্থিতি কম

অনলাইন

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি | ২৪ জুলাই ২০১৯, বুধবার, ১:৩৪
প্রতীকী ছবি
ঢাকার ধামরাইয়ে ‘ছেলেধরা’ গুজব ও আতঙ্কে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কমে গেছে। যারা আসছে, তাদের সঙ্গে  অভিভাবকরা রয়েছেন। সম্প্রতি ধামরাই সুয়াপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষার্থী অপহরণের ঘটনায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এছাড়া ‘ছেলেধরা’ গুজব ছড়িয়ে কৃঞ্চনগর গ্রামের ওমান প্রবাসী যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় পুরো ধামরাই জুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে। শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা জানিয়েছেন, আদরের সন্তানদের স্কুলে পাঠিয়ে স্বস্তিতে থাকতে পারছেন না তারা।

জানা গেছে, ধামরাইয়ের সুয়াপুর গ্রামের আবদুর রাজ্জাক ওরফে টুন্ডা রাজ্জাক গত শনিবার সুয়াপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী ও সুয়াপুর গ্রামের মোবারক হোসেনের মেয়ে রাবেয়া এবং সুরুজ আলীর মেয়ে সানজিদাকে মজা কিনে দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে কৌশলে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে পাচার করার চেষ্টা করে। পরে স্থানীয় জনতা তাকে আটকিয়ে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোর্পদ করে।

এদিকে, ধামরাইয়ের কৃঞ্চনগর গ্রামের ফজল হকের ছেলে ওমান প্রবাসী আবুল কালাম (২৭) কে  গত রোববার রাত ১১টার দিকে বাড়িতে ডেকে নিয়ে ‘ছেলেধরা’ বলে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। একই রাতে আঠিমাইটান গ্রামের শরিফুল ইসলামকেও হত্যা করা হয়। এসব পৃথক ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘কথা বললেই ১ হাজার টাকা জরিমানা'

চিদাম্বরমকে রাতভর জেরা, আজ তোলা হবে আদালতে

ঢামেকে আরও এক ডেঙ্গু রোগীর মৃত্যু

কাশ্মীরে মানুষের ক্রোধের বিস্ফোরণ ঘটতে পারে

ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

অনিশ্চয়তায় প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া

হাইকোর্টের তিন বিচারপতিকে বিচারকার্য থেকে অব্যাহতি

কলকাতায় দুই বাংলাদেশি পর্যটকের মৃত্যুর জন্য ঘটনায় নাটকীয় মোড়

ডিবি’র সহকারী কমিশনারের ড্রয়ার থেকে ইয়াবা চুরি, কনস্টেবল কারাগারে

মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

মসজিদের ভেতরে ইমামের গলাকাটা লাশ

‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩

১৪০ কি.মি গতিতে গাড়ি চালালো ৮ বছর বয়সী বালক!

ভারতের নতুন কেবিনেট সচিব রাজীব গাউবা

প্রমাদ গুনছে ভারতের অন্য রাজ্যগুলোও

‘এটা আমার অভ্যাস হয়ে গেছে’