শুধুমাত্র ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত পেনশনার সঞ্চয়পত্রের কর ৫ শতাংশ

এক্সক্লুসিভ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার | সর্বশেষ আপডেট: ২:৫৯
অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঞ্চয়পত্রের মুনফা থেকে উৎসে কর কাটার ক্ষেত্রে কিছুটা ছাড় দিয়েছে সরকার। ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত পেনশনার সঞ্চয়পত্রের মুনাফা থেকে আগের মতোই ৫ শতাংশ হারে উৎসে কর কাটা হবে। নতুন বাজেটে সব ধরনের সঞ্চয়পত্রের মুনাফা থেকে ১০ শতাংশ হারে উৎসে কর কেটে রাখার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংক সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের এ সংক্রান্ত যে সার্কুলার পাঠিয়েছে, তাতে ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত পেনশনার সঞ্চয়পত্র কিনলে সেই মুনাফা থেকে ৫ শতাংশ হারে উৎসে কর কাটার নির্দেশ দিয়েছে। আর ৫ লাখ টাকার বেশি হলে ১০ শতাংশ হারেই কর কাটতে বলা হয়েছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের অনুরোধে ব্যাংকগুলোকে এ নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
২রা জুলাই এনবিআর জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে একটি চিঠি দেয়। সেই চিঠিতে বলা হয়, অর্থ আইন ২০১৯ অনুযায়ী, বিনিয়োগকারীদেরকে সঞ্চয়পত্রের সুদ/মুনাফা প্রদানের ক্ষেত্রে উৎসে আয়কর কর্তনের হার পরিবর্তন করে ৫ শতাংশের স্থলে ১০ শতাংশ নির্ধারণ করা হয়েছে। এর ফলে সকল সঞ্চয়পত্রের উপর ১০ শতাংশ হারে উৎসে আয়কর কর্তন করতে হবে। শুধুমাত্র পেনশনার সঞ্চয়পত্রের ক্ষেত্রে সর্বমোট ৫ লক্ষ টাকার উর্দ্ধে বিনিয়োগের সুদ পরিশোধকালে উপরিউক্ত হারে অর্থাৎ ১০ শতাংশ হারে উৎসে কর কর্তন প্রযোজ্য হবে। চিঠিতে আরো বলা হয়, ২০১৯ সালের ১লা জুলাই থেকে এ বিধান কার্যকর হবে। অর্থাৎ যখনই খরিদ করা হোক না কেনো ১লা জুলাই বা তার পর প্রদত্ত সুদ/মুনাফা পরিশোধকালে উপরিউক্ত হারে উৎসে কর কর্তন করতে হবে।
৪ঠা জুলাই সঞ্চয় অধিদপ্তর এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বাংলাদেশ ব্যাংককে একটি চিঠি দেয়। সেই চিঠির পরিপেক্ষিতেই বৃহস্পতিবার সার্কুলারটি জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।
উল্লেখ্য, চলতি ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে সঞ্চয়পত্রের সুদের উপর উৎসে আয়করের হার ৫ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ১০ শতাংশ করা হয়। যেসব গ্রাহক ব্যাংকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র কিনেছেন এবং সেখান থেকে সুদ বা মুনাফা গ্রহণ করেন, তাদের মুনাফা দেয়ার ক্ষেত্রে যাতে নতুন হারে উৎসে কর কেটে রাখা হয়, সে লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক এই নির্দেশনা জারি করেছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ন্যায় বিচার এই দেশ থেকে নিরুদ্দেশ হয়ে গেছে: রিজভী

মিঠামইনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতির লোকজনের হামলা, নিহত ১

খালেদার মুক্তির জন্য রাজপথে আন্দোলন করতে হবে-দুদু

খেলোয়াড় ও দর্শকদের প্রিয় কোচ হতে চান ডমিঙ্গো (ভিডিও)

ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়ে ঢাকা ছাড়লেন জয়শঙ্কর

কাশ্মীর ইস্যুতে আবার মধ্যস্থতার প্রস্তাব ট্রাম্পের

কাশ্মীর ইস্যুতে জাতিসংঘের আদালতে যাবে পাকিস্তান

কারা হেফাজতে আইনজীবীর মৃত্যুর ব্যাখ্যা চেয়েছেন হাইকোর্ট

হঠাৎ গার্মেন্ট বন্ধ, আন্দোলনে শ্রমিকরা

ছাদ থেকে লাফিয়ে কারারক্ষীর স্ত্রীর মৃত্যু

এক রাতের জন্য ৪০ হাজার পাউন্ড প্রস্তাব

‘২১শে আগস্ট হত্যাকাণ্ডের মাস্টারমাইন্ড তারেক রহমান’

দেশে ফিরতে অনীহা রোহিঙ্গাদের

রোহিঙ্গা সঙ্কট নিয়ে ৬১ এনজিওর ৪ সুপারিশ

২ মাসেও সন্ধান পাওয়া যায়নি হবিগঞ্জের সুমনের