তিন সড়কেই এখনো চলছে রিকশা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার
 যানজট নিরসনে ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের (ডিটিসিএ) সিদ্ধান্ত অনুযায়ী রাজধানীর প্রধান তিন সড়কে রিকশা ও ভ্যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা কার্যকর হয়েছে গতকাল থেকে। কিন্তু কয়েকটি এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, সড়কে রিকশা-ভ্যান চলাচল করেছে। এগুলো বন্ধে অধিকাংশ এলাকায় পুলিশ কিংবা সিটি করপোরেশনের কোনো তৎপরতা দেখা যাযনি। তবে সীমিত আকারে কিছু এলাকায় রিকশা চলাচলে বাধা দিয়েছে ট্রাফিক পুলিশ। নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা প্রধান তিন সড়কের একটি কুড়িল থেকে বাড্ডা, রামপুরা, খিলগাঁও হয়ে সায়েদাবাদ পর্যন্ত রাস্তা। সকাল ১০টায় প্রগতি সরণির কুড়িল বিশ্বরোড, নদ্দা, নতুন বাজার, বাড্ডা, রামপুরা এলাকা ঘুরে দেখা যায়, সড়কে দাপিয়েই বেড়াচ্ছে রিকশা ও ভ্যান। পথচারীরা বলছেন, শুধু নিষেধাজ্ঞা দিলেই হবে না, তা বাস্তবায়ন করতে হবে সিটি করপোরেশন ও পুলিশকে। কিন্তু তাদের কোনো টিমই মাঠে নেই।
পথচারী আবদুল হক বলেন, আমাদের দেশে আইন কে মানে? এখানে আইনের প্রতি কেউ শ্রদ্ধাশীল নন। তাই এখানে কোনো নিষেধাজ্ঞা কাজ হবে না। আরেক পথচারী তানিয়া আক্তার বলেন, প্রধান সড়কে এ বাহন বন্ধ হওয়া দরকার। সিটি করপোরেশন নিষেধাজ্ঞা দিয়েই তাদের দায়িত্ব শেষ করেছে। এটা বাস্তবায়নে পুলিশ কিংবা সিটি করপোরেশনের কোনো টিমকে রাস্তায় দেখিনি। বাকি দুই সড়ক হলো- গাবতলী থেকে আজিমপুর এবং সায়েন্সল্যাব থেকে শাহবাগ পর্যন্ত। সকালে ওই দু’টি সড়কে রিকশাসহ অনুমোদনহীন বাহন চলাচল করতে দেখো গেছে। বিশেষ করে আজিমপুর থেকে শাহবাগ পর্যন্ত। আবার কিছু কিছু সড়কে রিকশা না থাকায় বিপাকে পড়েছেন যাত্রীরা। প্রতিটি লোকাল বাসেও দেখা গেছে অতিরিক্ত ভিড়। রিকশা না পেয়ে গণপরিবহনের জন্য রাস্তায় অপেক্ষা করতে হয়েছে যাত্রীদের। বাসগুলোও যাত্রীতে ঠাসা। এমন অবস্থায় যাত্রীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, যাত্রী পরিবহনের নির্দিষ্ট ব্যবস্থা না করেই সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধ করে দেয়া ঠিক হয়নি। যানজট নিরসনের লক্ষ্যে গত ৩রা জুলাই ঢাকার পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের (ডিটিসিএ) প্রথম সভায় প্রধান সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের এই সিদ্ধান্ত নেয়। সভায় নেয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এসব সড়কের মূল অংশে সব ধরনের রিকশা, ভ্যান এবং অনুমোদনহীন যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়। তবে এসব সড়কের সঙ্গে সংযোগকারী সড়কগুলোতেই শুধু চলাচল করতে পারবে সিটি করপোরেশনের অনুমোদন পাওয়া রিকশা। ঢাকা উত্তর (ডিএনসিসি) ও দক্ষিণ (ডিএসসিসি) সিটি করপোরেশন, ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি), বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) এবং আরও কয়েকটি সংশ্লিষ্ট সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়, গাবতলী থেকে আজিমপুর অর্থাৎ মিরপুর রোড ও সায়েন্সল্যাব থেকে শাহবাগ পর্যন্ত এবং প্রগতি সরণির কুড়িল থেকে বাড্ডা, রামপুরা, খিলগাঁও হয়ে সায়েদাবাদ পর্যন্ত সড়কে যেন কোনোভাবেই রিকশা চলাচল করতে না পারে, তার জন্য থাকবে ভ্রাম্যমাণ আদালত।







এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা হচ্ছে

ব্যবস্থা চান বিশিষ্টজনরা

কেলেঙ্কারি-জালিয়াতিতে ডুবছে ২২ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান

ত্রাণ-আশ্রয়ের জন্য ছুটছে মানুষ

ডেঙ্গু রোগীদের ৮০ ভাগই শিশু

ঢাকায় ডেঙ্গু পরিস্থিতি উদ্বেগজনক: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

‘জনগণকে নিয়ে গণঅভ্যুত্থান ঘটাতে হবে’

৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বিএসটিআই পরিচালকের অপসারণ দাবি

ছেলেধরা সন্দেহে তিন জনকে পিটিয়ে হত্যা

রংপুর-৩ সদর শূন্য আসন নিয়ে আলোচনার ঝড়

পশ্চিমবঙ্গেও চালু হলো এনআরসি!

পর্নোগ্রাফি ও ব্ল্যাকমেইল নেশা সিলেটের এহিয়ার

গণপিটুনিতে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে

রাঘববোয়ালদের নিয়ে কাজ করতে সমস্যা হয়

মাদ্রাসাছাত্রীকে ইজিবাইক থেকে নামিয়ে ধর্ষণের পর হত্যা

ভারতের কৌশল ধ্বংস করছে সার্ককে