কমেছে ভালো গল্পের সিনেমা

বিনোদন

কামরুজ্জামান মিলু | ৮ জুলাই ২০১৯, সোমবার
একটা সময় নতুন সিনেমা দেখার জন্য সিনেমাপ্রেমী দর্শকদের ব্যাপক আগ্রহ লক্ষ্য করা যেত। ছবি মুক্তির দিন শুক্রবারেই সিনেমা হলে ভিড় করতেন অনেক দর্শক। প্রতি শুক্রবার কোন ছবি মুক্তি পাচ্ছে তার খোঁজখবর আগে থেকেই নিয়মিত রাখতেন তারা। পছন্দের তারকাদের এক নজর দেখার জন্য এফডিসির গেটে ভিড় করা, সিনেমা হলে গিয়ে প্রথম শোতে বসে ছবি দেখার চিত্র ছিল চোখে পড়ার মতো। এমনকি সিনেমা দেখার পর ছবির কাহিনী, সংলাপ নিয়ে আড্ডায় বসে গল্পের আসর জমতো। সেই দিনগুলো ক্রমশ হারিয়ে গেছে। এফডিসির ফ্লোরেও এখন আর শুটিং ব্যস্ততা তেমন নেই। ছবি মুক্তির প্রথম দু’দিন সিনেমা দেখার জন্য ভিড় থাকলেও অন্য সময় সিনেমা হলের চিত্র থাকে একদমই ভিন্ন।
দর্শক মনের মতো ছবি না পেলে দ্বিতীয় দিনের পর আর দেখতে চায় না। সিনেমা হলের সংখ্যাও কমে গেছে। দর্শকরা এখন মুঠোফোনে ইউটিউব ভিডিওতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। সিনেমা হলের দর্শক কতটা কমেছে? এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে শুক্রবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বলাকা সিনেমা হলে গিয়ে দেখা গেল সেখানে সাইফ চন্দন পরিচালিত ‘আব্বাস’ ছবিটি ঐদিন মুক্তি পেয়েছে। এ ছবিতে নিরব, সোহানা সাবা ও সূচনা আজাদ অভিনয় করেছেন। বলাকায় সন্ধ্যার শোতে বেশকিছু দর্শকের দেখা মিললো। একসঙ্গে ছবিটি দেখতে এসেছেন বেশ ক’জন যুবক। তাদের মধ্যে মাসুদ নামের একজন বলেন, আমি বাংলাদেশি সিনেমার ভক্ত। প্রতি শুক্রবারে বন্ধু-বান্ধবসহ সিনেমা দেখতে ছুটে আসি। তবে ছবি ভালো লাগলে দুই-তিনবারও দেখতে আসি। কিন্তু ভালো কাহিনীর সিনেমা এখন কম পাচ্ছি। আমি আরো মানসম্মত ও সমসাময়িক গল্পের সিনেমা বড় পর্দায় দেখতে চাই। ‘আব্বাস’ ছবি দেখে বের হওয়া মাসুদ রহমান নামের এক দর্শক জানান, ছবিটি মোটামুটি ভালো লেগেছে। নিরব ভাইকে ভিন্ন লুকে দেখলাম। এটা বেশি ভালো লেগেছে। বলাকা হল কর্তৃপক্ষ সংশ্লিষ্ট একজন জানান, সিনেমা হলে দর্শক এখন আগের মতো হয় না। নতুন ছবি কয়েকদিন চললে আমাদেরই তো লাভ বেশি। এই ছবিটি দর্শকরা কয়েকদিন ধরে দেখছে। দেখা যাক এক সপ্তাহ শেষ হওয়ার পর লাভ-লোকসানের হিসাব বলা যাবে। রাজধানীর মধুমিতা সিনেমা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, দর্শকদের সিনেমা হলে আসা খুব একটা কমেনি। ভালো সিনেমা হলে দর্শকরা সব সময়ই সেই ছবি দেখার জন্য প্রেক্ষাগৃহে ভিড় করে। তবে সেই ধারাবাহিকতাটা আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে নেই। শুধু ঈদে না, প্রতি শুক্রবার ভালো গল্পের সিনেমা দরকার। ভালো গল্পের সঙ্গে উন্নত প্রযুক্তির ছোঁয়া থাকলে দর্শকরা বেশি আকৃষ্ট হয়। সেই দিকে নজর দিতে হবে নির্মাতা ও প্রযোজকদের। এদিকে সমপ্রতি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ থেকে পাঁচটি ছবি দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির জন্য আমদানি করা হয়েছে। সেই ছবিগুলো হলো ‘ভোকাট্টা’, ‘শেষ থেকে শুরু’, ‘কিডন্যাপ’, ‘ভূতনাথ ডটকম’ ও ‘বিবাহ অভিযান’। এরমধ্যে ‘ভোকাট্টা’ নামের ছবিটি দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেলেও ভালো ব্যবসা করতে পারেনি। ছবিটি আমদানি করেছে বাংলাদেশের শাপলা মিডিয়া। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক পরিচালক বলেন, আমাদের দর্শকরা এখনো বাংলাদেশি সিনেমা দেখতেই বেশি পছন্দ করে। কলকাতার ছবি এখানে কোনোটাই খুব একটা ব্যবসা করেনি। মুক্তির পর বেশিরভাগই ফ্লপ হয়েছে। তাই দেশি সিনেমায় ভালো গল্প ও মেকিং পেলে শুধু ঈদের সময় না, যেকোনো সময়ই দর্শকরা তা সিনেমা হলে গিয়ে দেখতে চাইবে। সেই সঙ্গে ইন্ডাস্ট্রির চাকা ঘোরাতে ছবির প্রচারণাকেও আমাদের গুরুত্ব দিতে হবে।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

পাকিস্তানে নারী জঙ্গির আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ৮

প্রিয়া সাহার বিরুদ্ধে মামলা খারিজ

প্রিয়া সাহার বক্তব্য: মার্কিন দূতাবাসেরই দূরভিসন্ধি

দেশের সুনাম সংকটে ফেলাই উদ্দেশ্য: অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন

অর্থনৈতিক উন্নয়নে রাষ্ট্রদূতদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর তাগিদ

মিন্নির জামিন আবেদন না মঞ্জুর

ঢাবির ভবনে ভবনে তালা, ক্লাস বর্জন

ব্রেস্ট ক্যান্সারে নতুন ওষুধ

মালয়েশিয়ার সাবেক রাজার বিচ্ছেদ নিয়ে ক্লাইম্যাক্স

হিউম্যানস অব আসাম- পর্ব ১

পুলিশ যেভাবে বলতে বলেছে সেভাবেই বলেছি, বাবাকে মিন্নি

কায়রোতে ৭ দিনের জন্য ফ্লাইট স্থগিত বৃটিশ এয়ারওয়েজের

বাড্ডায় নিহত নারী ছেলেধরা ছিলেন না, ৪০০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা

নিজ আগ্নেয়াস্ত্রের গুলিতে আহত ঢাবি ছাত্রলীগ নেতা

সাধারণ বাণিজ্যিক ফ্লাইটে ওয়াশিংটন গেলেন ইমরান খান

২ সদস্যের বাড়ির বিদ্যুৎ বিল ১২৮ কোটি রুপি