নয়া পল্টনে ছাত্রদলের বিক্ষুব্ধদের ভাঙচুর, ককটেল বিস্ফোরণ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ২৬ জুন ২০১৯, বুধবার
বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারসহ বয়সসীমা তুলে দিয়ে নিয়মিত কমিটির দাবিতে গতকালও আন্দোলন করছে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীরা। বেলা সোয়া ১২টার দিকে সহস্রাধিক নেতাকর্মীর একটি মিছিল নিয়ে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে আসেন তারা। এসময় কাউন্সিলের দাবিতে কার্যালয়ের সামনে আগে থেকে অবস্থানরত ছাত্রদল নেতাকর্মীদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতারা কাউন্সিলের দাবিতে অবস্থানরতদের ধাওয়া দিলে তারা কার্যালয়ের ভেতরে প্রবেশ করেন। এসময় দুই পক্ষের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার মধ্যে এক গ্রুপ কার্যালয়ের গেটে নিরাপত্তা প্রহরীর বসার চেয়ার টেবিল ভেঙে ফেলে। কাউন্সিলের দাবিতে অবস্থানরত কয়েকজন নেতা ধাওয়া খেয়ে কার্যালয়ের ভেতর প্রবেশের সময় সিড়ি থেকে গ্লাস ও কাপ পিরিচ ছুড়ে মারেন। এতে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাদের কয়েকজন আহত হন। আন্দোলনরতরা পাল্টা আক্রমণ করতে গেলে কার্যালয়ের ভেতর থেকে কয়েকজন প্রবেশ পথের সাটার টেনে দেন।
অন্যদিকে, আন্দোলনরতরা কার্যালয়ের বাইরে কলাপসিবল গেটের সামনে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন শ্লোগান দিতে থাকেন। এসময় কার্যালয়ের ভেতরে ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও মহানগর বিএনপির কয়েকশ নেতাকর্মী এবং বাইরে কার্যালয়ের আশপাশের গলি ও কার্যালয়ের অপর প্রান্তে মহানগর বিএনপির কার্যালয়ের সামনে স্বেচ্ছাসেবক দল, যুবদল ও বিএনপির কিছু নেতাকর্মী অবস্থান করছিলেন। এসময় মহানগর বিএনপির কার্যালয়ের সামনে অবস্থানরতদের ধাওয়া দেয়ার চেষ্টা করে বিক্ষুব্ধরা। কিন্তু কয়েকজন নেতা তাদের নিবৃত করেন। তারা প্রায় দুপুর দেড়টা পর্যন্ত কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। একই সঙ্গে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারসহ বিভিন্ন দাবিতে তারা স্লোগান দেন। পরে আন্দোলনরতরা ফিরে যাওয়ার সময় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। উল্লেখ্য, এর আগে গত সোমবারও কর্মসূচি শেষে নয়াপল্টন এলাকায় ৫টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।
আন্দোলন একদিন স্থগিত: দাবি আদায়ে চলমান আন্দোলন এক দিনের জন্য স্থগিত করেছে বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীরা। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর ১টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এ ঘোষণা দেন ছাত্রদল থেকে সদ্য বহিষ্কৃত ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি ইকতিয়ার রহমান কবির। তিনি বলেন, আমরা দাবি আদায়ে বিক্ষোভ করায় সিনিয়র নেতাকর্মীদের পক্ষ থেকে আমাদেরকে শান্তিপূর্ণ থাকার প্রস্তাব দিয়েছেন। আমরা তাদের প্রতি সম্মান জানিয়ে বুধবার আন্দোলন স্থগিত রাখবো। যদি এর মধ্যে সমস্যার সমাধান না হয় তাহলে কার্যালয়ে কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটলে তার জন্য সিন্ডিকেট দায়ী থাকবে। এটা তাদেরকে জানিয়ে দিতে চাই। ইকতিয়ার কবির বলেন, আমাদের ১২ নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বলা হচ্ছে প্রিয় নেতা তারেক রহমানের নির্দেশে এ বহিষ্কার। কিন্তু আমরা বিশ্বাস করি নেতাকে ভুল বুঝিয়েছে সিন্ডিকেট। যে কারণে নেতার কোনো স্বাক্ষর ছাড়া বহিষ্কারের আদেশ দেয়া হয়েছে। তাই আমরা দাবি করছি ঘোষিত কাউন্সিল বাতিল করে পুনঃতফসিল দিতে হবে। সেই সঙ্গে ছাত্রদলের বয়সসীমা বাতিল করতে হবে। বয়সসীমা তুলে দিয়ে পুনঃতফসিল না হলে কাউন্সিল হতে দেয়া হবে না। প্রসঙ্গত, আগামী ১৫ই জুলাই ছাত্রদলের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ওইদিন সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণের মধ্য দিয়ে চলবে কাউন্সিল। ইতিমধ্যে প্রার্থী হওয়ার যোগ্যতা, আচরণবিধি ও খসড়া ভোটার তালিকা প্রকাশ করেছে বিএনপি
কাউন্সিলকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রদলের একাংশের মিছিল: বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীদের অবস্থান কর্মসূচির পর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের আসন্ন কাউন্সিলকে স্বাগত জানিয়ে খণ্ড খণ্ড কয়েকটি মিছিল করেছে সংগঠনটির একাংশের নেতাকর্মীরা। বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে তারা মিছিলগুলো শুরু করে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে ফের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ করেন। এসময় তারা কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে কাউন্সিলকে স্বাগত জানিয়ে বিভিন্ন স্লোগান দেন। এ সময় তারা বিএনপি চেয়ারপারসন  খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানান।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে