মুন্সীগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত ১০

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ থেকে | ২৩ জুন ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৪৪
মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিমে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে কাউন্সিলরসহ উভয়পক্ষের ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের মধ্যে পৌরসভার এক নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুল জলিল মাদবরসহ ৭ জনকে মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে মিরকাদিম  পৌরসভার পূর্বপাড়া গ্রামের একটি জানাজা  শেষে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে নৈশপ্রহরী জিল্লুর রহমানসহ (৪৫) তিনজনকে আটক করেছে। পুলিশ জানায়, রাত সাড়ে ৯টার দিকে মিরকাদিমের পূর্বপাড়া এলাকার শাহ্‌জালালের  মেয়ের জানাজা হয়। জানাজা শেষে মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন ও পরাজিত মেয়র প্রার্থী মনছুর আহমেদ কালাম গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে।  এ সময় পুলিশ লাঠিচার্জ করে দুই গ্রুপকে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। ঘটনাস্থল থেকে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মনছুর আহমেদ কালাম জানান, তারা জানাজা শেষে ফেরার পথে  মেয়র শাহীন গ্রুপের লোকজন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার সমর্থকদের উপর হামলা চালায়।
এ সময় কাউন্সিলর আবদুল জলিল মাদবরসহ তার পক্ষের ৭-৮ জনকে গুরুতর জখম করা হয়। মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন বলেন, মনছুর আহমেদ কালামের  নেতৃত্বে ১০০-১৫০ জন জানাজা দিতে যাওয়ার সময় তার পক্ষের জিল্লুর রহমান ও জয়নালকে মারধর করে। পরে জানাজা শেষে যাওয়ার পথে তার লোকজনের ওপর কালাম গ্রুপ অতর্কিতে হামলা চালায়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন জনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ  মোতায়েন করা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে