মারা গেলেন স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ সাজেনূর

অনলাইন

বরগুনা প্রতিনিধি | ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার, ৩:০৯ | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২১
ফাইল ফটো
বরগুনার পাথরঘাটায় সাবেক স্বামীর দেয়া আগুনে দগ্ধ গৃহবধূ সাজেনূর বেগম (৩০) মারা গেছেন। আজ সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ওইদিন আগুনে পুড়ে ঘটনাস্থলেই তার মেয়ে সখিনা আক্তার কারিমা (১০) মারা যায়।

পারিবারিক কলহের জেরে গত ১৩ই জুন গভীর রাতে মা ও সৎ মেয়ের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় সাবেক স্বামী মো. বেলাল হোসেন। এ ঘটনায় মেয়ে কারিমা ঘটনাস্থলে নিহত হয় এবং মা সাজেনূর বেগম (৩০) পুড়ে ৮০ ভাগ দগ্ধ হয়েছিলেন।

সাজেনূর পাথরঘাটা উপজেলার রুহিতা গ্রামের আবদুল মালেকের মেয়ে। ঘটনার পরদিন সকালে সাবেক স্বামী বেলাল হোসেনও (৩৫) আমগাছের ডালের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।

দগ্ধ সাজেনূরের চাচাতো ভাই মো. ইব্রাহিম জানান, বেল্লাল হোসেনের সঙ্গে প্রায় দেড় বছর আগে সাজেনূরের দ্বিতীয় বিয়ে হয়। তার বাড়ি বরগুনার তালতলী উপজেলার ছকিনা এলাকায়। বিয়ের পর থেকেই তাদের দাম্পত্য জীবনে কলহ সৃষ্টি হয়।
এ নিয়ে স্থানীয় পর্যায় একাধিকবার সালিশ বৈঠকও হয়। এছাড়া বেলাল প্রায় সময়ই কারিমাকে পুড়িয়ে মারার হুমকি দিতো।

নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, ঘটনার পর সাজেনূরকে পাথরঘাটা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে নেয়া হয়।

সাজেনূরের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ১৪ই জুন তাকে আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। সেখানে সাতদিন চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মারা যান।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কুর্দিদের মাথা চূর্ণ করে দেয়ার হুঁশিয়ারি এরদোগানের

হত্যা করা উচিত ছিল বিজিবি-র?

কাউন্সিলর রাজীবকে যুবলীগ থেকে বহিষ্কার

রাজনীতিক, ফুটবলার, হলিউড তারকাদের সেক্স পার্টি

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই মাদক ব্যবসায়ী নিহত

ইইউতে স্বাক্ষরবিহীন চিঠি পাঠালেন জনসন

‘এটা আমাদের সংগীতের জন্য দুঃসংবাদ’

মোহাম্মদপুরের সেই সুলতান আটক

সৌদিতে বাস দুর্ঘটনায় নিহতদের ১১ জন বাংলাদেশি

বিদেশের দুই ব্যাংকে সম্রাটের ৮০ কোটি টাকা

হুন্ডি, স্বর্ণ আর মোবাইল ডিলাররা ডলার পৌঁছে দিতো ক্যাসিনোতে

বীমা খাতেও দুরবস্থা মেয়াদ শেষেও টাকা ফেরত পান না গ্রাহকরা

র‌্যাগিংয়ের নামে বুয়েটে যেভাবে নির্যাতন হতো

বিএনপি’র হাতে সময় খুব কম

সাক্ষ্য দিয়ে বলছি জনগণ নির্বাচনে ভোট দিতে পারেনি

সিলেটে যে লড়াইয়ে কামরান-মিসবাহ