ভোলায় চাঁদাবাজি মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি জেলে

দেশ বিদেশ

ভোলা প্রতিনিধি | ২০ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার
 ভোলা জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি ইব্রাহিম চৌধুরী পাপনকে আটক করেছে ভোলা থানা পুলিশ। গতকাল রাত আনুমানিক ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে ভোলা সরকারি কলেজের সামনের পাপনের বাড়ির দরজা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ভোলা ছাত্রলীগের নেতারা। ছাত্রলীগ নেতারা জানান, গতকাল রাত আনুমানিক ১২টা ১৫ মিনিটের দিকে পুলিশের ২টি পিকআপ ভ্যান ও ৬ থেকে ৭টি মোটরবাইক ভোলা কলেজের সামনে তার বাড়ির দরজা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতা মুশফিক জানান, কয়েকদিন যাবৎ ভোলায় ছাত্রলীগের দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দল চলে আসছে। এই নিয়ে ছাত্রলীগের একটি গ্রুপ ছাত্রলীগের কাউন্সিলের মাধ্যমে নির্বাচিত জেলা কমিটি ভেঙে দিতে কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভ সমাবেশ করে আসছেন। গতকালও সদর রোডে মিছিল সমাবেশ করেছে নতুন পদ প্রত্যাশীরা। দলীয় অভ্যন্তরীণ কোন্দল ছাড়া আর কিছুই দেখছেন না তার পরিবার। এদিকে তার মুক্তির জন্য কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতাসহ ভোলার ছাত্রলীগ নেতারাও দাবি জানিয়েছে।
তার মুক্তি চেয়েছেন জেলা যুবলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র মনিরুজ্জামান মনির। তবে তার গ্রেপ্তার নিয়ে রাতে ভোলা থানা পুলিশের কোনো বক্তব্য না পাওয়া গেলেও আজ সদর মডেল থানার ওসি সগির মিয়া জানান, তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজিসহ ৪টি মামলা রয়েছে।
তবে তাকে জনৈক ঠিকাদার ছোটনের করা চাঁদাবাজি মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে তার পরিবার দাবি করেছেন, গতকাল রাত পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা ছিল না। তাকে পুলিশ ধরে নিয়ে চাঁদাবাজি মামলা দিয়ে জেলে পাঠিয়েছে।










এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে