শোয়েব মালিকের ক্ষোভ ও আর্জি

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৯ জুন ২০১৯, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১০:৩৭
‘সিসা বার কাণ্ড’ নিয়ে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমের ওপর ক্ষোভ ঝারলেন শোয়েব মালিক। আর সমর্থকদের প্রতি জানালেন আর্জি।
বিশ্বকাপে ভারতের বিপক্ষে ৮৯ রানে হারের পর মন ভালো নেই পাকিস্তানি ক্রিকেট সমর্থকদের। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে বারবার এমন লজ্জাজনক পরাজয়ে প্রিয় দলের প্রতি অতিষ্ঠ হয়ে গেছে দলটির সমর্থকরা। ভারতের কাছে হারের পর পাকিস্তানের কোনো খেলোয়াড়কে ছেড়ে কথা বলেননি দেশটির সমর্থকরা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম জুড়ে সমালোচনা করে যাচ্ছেন শোয়েব মালিক-সরফরাজ আহমেদদের। তার উপরে টুইটারে এক সমর্থক ভিডিও প্রকাশ করে বলেন যে, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগের রাতে সীসা বারে সময় কাটিয়েছেন মালিক, ওয়াহাব রিয়াজ ও ইমাম উল হক। তাদের সঙ্গে ছিলেন শোয়েব মালিকের স্ত্রী ভারতীয় টেনসি তারকা সানিয়া মির্জাও।
এই ভিডিও প্রকাশ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই তা মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। তাতেই আগুন জ্বলে ওঠে পুরো পাকিস্তান জুড়ে। আর সেই আগুনে ঘি ঢালে পাকিস্তান সংবাদ মাধ্যমগুলো। তবে সেই ভিডিও যে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের আগের রাতের এ বিষয়ে কোনো প্রমাণ পায়নি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তাদের মতে সেই ভিডিওটি ভারত ম্যাচের দুই দিন আগের ছিল। এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই হয়ে গেলেও পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যমগুলোকে ছেড়ে কথা বলেননি শোয়েব মালিক। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে সংবাদমাধ্যমগুলোকে আদালতের আওতায় আনার আবেদন জানান এই ক্রিকেটার।  শোয়েব প্রশ্ন করে লিখেন, ‘কবে পাকিস্তান সংবাদ মাধ্যমগুলোকে তাদের কর্মকাণ্ডের জন্য আইনের আওতায় আনা হবে? ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেশের সেবা করার পর আমাকে আমার ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে সত্যতা যাচাই করতে হবে। ব্যাপারটা দুঃখজনক। ওই ভিডিওটি ১৫ জুনের নয়, ১৩ই জুনের।’ শোয়েব আরও লিখেন, ‘সব খেলোয়াড়দের পক্ষ থেকে আমি পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ও সমর্থকদের অনুরোধ করছি যে, দয়া করে আমাদের পরিবারের প্রতি সম্মান বজায় রাখুন। এসব তুচ্ছ ব্যাপারে দয়া করে তাদেরকে টানবেন না। ব্যাপারটা ভালো দেখায় না।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রংপুরেই এরশাদের সমাধি

লক্ষাধিক বিও অ্যাকাউন্ট বন্ধ

যে কারণে পুঁজিবাজারে পতন থামছে না

মিন্নি গ্রেপ্তার

হাসপাতালে হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের ভিড়

ছুরি নিয়ে কীভাবে গেল তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে

সব আদালতে নিরাপত্তা বাড়ানো হবে

ঘাতকের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি, মামলা ডিবিতে

উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে উপজেলা পর্যায়ে কারিগরি প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলা হচ্ছে

বাসর হলো না নবদম্পতির

১১ কোম্পানির দুধে সিসা ও ক্যাডমিয়াম

চীনা ডেমু ট্রেন আর কেনা হবে না

বিচারকদের নিরাপত্তা চেয়ে রিট

আসাদকে পাল্টা জবাব আরিফের

৩ মাস পর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে অ্যাকশন শুরু

বাঁচানো গেল না সার্জেন্ট কিবরিয়াকে