৩০ রান করার পর চাপটা ছিল না: লিটন দাস

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:৫৯
বিশ্বকাপে রেকর্ড রান তাড়া করতে নেমে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দারুণ জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। এ জয় দুই ‘নায়ক’ সাকিব আল হাসান ও লিটন কুমার দাস। ব্যাট হাতে ৯৯ বলে ১২৪ রানে অপরাজিত থাকেন সাকিব। আর ৬৯ বলে ৯৪ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন লিটন। বিশ্বকাপে অভিষেক ম্যাচ। চাপটা থাকবে সেটাই স্বাভাবিক। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই চাপে ছিলেন জানালেন লিটন। ম্যাচ শেষে বলেন, ‘৩০ রান করার পর চাপটা ছিল না।
প্রথমে ব্যাট করতে নেমে চাপে ছিলাম। আমি নার্ভাস ছিলাম। আমার মনে হচ্ছিল সবকিছুই আমার বিপক্ষে। কিন্তু যখন আমি ৩০ রান করলাম, তারপর চাপটা ছিল না। আমি ভালোভাবেই উইকেটে মানিয়ে নিয়েছিলাম। তখন মনে হচ্ছিল আমি এখন খেলতে পারবো।’

ম্যাচে চাপ সামলানোর কৃতিত্ব সাকিবকে দিলেন লিটন। ম্যাচ শেষে লিটন বলেন, ‘চাপ সামলাতে সাকিব ভাই আমাকে সাহায্য করেছে। সাকিব ভাই আমাকে বললো আমি যদি উইকেটে থাকি তাহলেই রান পাবো। আমরা সব সময় রান করতে চাই। আবার পার্টনারকেও রান করার সুযোগ দেয়, কারণ এটা দলীয় খেলা। আমি যখন রান করছিলাম সে (সাকিব) খুশি হচ্ছিলো।আমি যখন ফিফটি করলাম, সে দৌড়ে এসে আমাকে জড়িয়ে ধরলো। সে জানে আমি নতুন, তাই আমাকে চ্যালেঞ্জ নেয়ার পথ দেখিয়ে দিলেন। আমাকে অনেক সাহায্য করেছে।’

বাংলাদেশের পরবর্তী ম্যাচ অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে। আগামী ২০শে জুন অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে টাইগাররা। সে ম্যাচ নিয়ে লিটন বলেন, ‘তারা এশিয়ার দল গুলোকে শর্ট বল করার চেষ্ট করে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ১০ টা শর্ট বলের মধ্যে ৫-৬ খেলতে পেরেছি। সুতরাং তারা শর্ট বল দিয়ে আমাদের চাপে ফেলতে চাইবে। তাদের দলে দ্রুতগতির বোলার আছে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আমরা যেভাবে শর্ট বল মোকাবিলা করেছি, সেভাবে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে শর্ট বল মোকাবিলা করতে হবে। আরো শট বলের ওপর আরো ফোকাস করতে হবে।’



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বানভাসি মানুষের দুর্ভোগ বাড়ছে

নৈরাজ্য

১৯ জনকে গণপিটুনি নিহত ৩

মার্কিন দূতাবাসের দুরভিসন্ধি

মিন্নির জামিন মেলেনি

পুঁজিবাজারে একদিনেই ৫ হাজার কোটি টাকার মূলধন হাওয়া

মশায় অতিষ্ঠ মানুষ ঘরে ঘরে ডেঙ্গু আতঙ্ক

অর্থনৈতিক কূটনীতির ওপর গুরুত্ব দিতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলনে অচল ঢাবি

যে কারণে সিলেটে মহিলা কাউন্সিলর লাকীর ওপর হামলা

৬ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ও পানিবিহীন শাহজালাল বিমানবন্দর

সাত দিনের মধ্যে প্রথম কিস্তি পরিশোধের নির্দেশ

এ যেন খোঁড়াখুঁড়ির নগরী

বৃষ্টি হলেই জলজট

শিমুল বিশ্বাসের পাসপোর্ট প্রদানের নির্দেশ হাইকোর্টের

এক সিগন্যালেই ৬৭ মিনিট