আলাপন

‘এখন থেমে থাকার সময় নয়’

বিনোদন

ফয়সাল রাব্বিকীন | ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৪২
জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর নিজের দীর্ঘ ও সফল ক্যারিয়ারে অসংখ্য জনপ্রিয় গান উপহার দিয়েছেন। অডিও ইন্ডাস্ট্রির এই খারাপ সময়েও গত বছর জুড়ে ১০০ টি গান প্রকাশ করেছেন এ গায়ক। আর চলতি বছর তিনি ১৩০ টি গান প্রকাশ করবেন বলে ঘোষণা দিয়েছেন। এরইমধ্যে প্রথম ছয় মাসে অনেক গান প্রকাশ করেছেন তিনি। গেলো ঈদেও আসিফের বেশ কিছু গান প্রকাশ হয়েছে বিভিন্ন কোম্পানি থেকে। ঈদে আসিফের ‘তোমার হাসি’, ‘প্রশ্ন’, ‘আমি তুমিময়’, ‘ভালোবাসি তোকে’, ‘মনটা উড়ে যায়’, ‘আনাচে কানাচে’ গানগুলো প্রকাশ হয়েছে। এ গানগুলোর সাড়াও মিলেছে বেশ ভালো। সব মিলিয়ে কেমন আছেন? আসিফ আকবর বলেন, বিনদাস আছি।
ঈদের আগা টানা ব্যস্ততায় কাটিয়েছি সময়। ঈদের পর খানিক বিরতি নিয়ে আবার ব্যস্ত হয়ে পড়তে হয়েছে। এখন  রেকর্ডিং ও শুটিং নিয়ে ব্যস্ততা চলছে টানা। ঈদের গানের সাড়া কেমন পাচ্ছেন? আসিফ আকবর বলেন, আমি সব সময় বলি আমি শ্রোতাদের শিল্পী। তাদের জন্যই আমি আসিফ হয়েছি। তাই তাদের জন্য।ি গান করে যাচ্ছি। এবারের ঈদেও বেশ কিছু গান প্রকাশ হয়েছে।

শ্রোতাদের সাড়া প্রতিটি গান থেকেই পাচ্ছি। এখন নিজের গানের ভিডিওতে নিজেই পারফর্ম করেন। কেমন লাগে? আসিফ হেসে বলেন, সত্যি বলতে এটা কোম্পানি ও নির্মাতাতের ডিমান্ড। আমি শুধু আমার কাজ করে যাচ্ছি। নির্মাতা ও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান চাচ্ছে যেন আমিই আমার গানে পারফর্ম করি। আর এখনতো অনেক গানের ভিডিও দর্শক পছন্দ করছেন। তাই আমারও শুটিং করেই যেতে হচ্ছে। আমাকে বিভিন্নভাবে উপস্থাপন করছে নির্মাতারা। আমিও উপভোগ করছি। এখন গানের অবস্থা কেমন দেখছেন? আসিফ বলেন, আমার দিক থেকে গানের অবস্থা এখন ভালো। ইন্ডাস্ট্রি এগিয়ে যাচ্ছে। তরুণরা কাজ করছে। সিনিয়র অনেকেও কাজ শুরু করেছেন। সবার মিলে আসলে কাজ করা উচিত। ভালো কাজের বিকল্প নেই। আমি কাজের মানুষ। নিজেও কাজ করে যাচ্ছি। এখন আসলে থেমে থাকার সময় নয়। প্রত্যেকেরই উচিত যার যার জায়গা থেকে নতুন গান করে যাওয়া। এখন থামলেই পিছিয়ে পড়তে হবে। কারণ এটা বিশ্বায়নের যুগ। বিশ্ব হাতের মুঠোয়। যে যা খুশি তাই দেখতে পারছে, শুনতে পারছে। তাই বিশ্বের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কাজ করতে হবে। তবেই আমরা এগিয়ে যাবো।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

ফিলিস্তিনে ইসরাইলী দখলদারিত্বের নিন্দা ঢাকার

পাসে মেয়েরা জিপিএ-৫ এ ছেলেরা এগিয়ে

উদ্বিগ্ন রংপুরের নেতাকর্মীরা যা ভাবছেন

ওয়াশিংটনে দুই রোহিঙ্গা প্রতিনিধি

অংশ নেয়া ২ পরীক্ষায় এ গ্রেড পেলো নুসরাত সহপাঠীদের কান্না

অকার্যকর ওষুধ কেনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নির্দেশ

৫ দিনের রিমান্ডে মিন্নি

আদালতের নিরাপত্তায় নেয়া ব্যবস্থা জানাতে হাইকোর্টের নির্দেশ

কাউন্সিলে পরিবর্তন পরিবর্ধন অনেক কিছুই হতে পারে

হাজীর বিরিয়ানি বাখরখানির স্বাদ নিলেন মিলার

কোম্পানীগঞ্জে শামীমের ‘কাঠগড়ায়’ কালা মিয়া

উত্তরাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি

ঢাকায় ভবন ধসে নিহত ১

মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ও ভেজাল খাদ্যের বিরুদ্ধে অভিযান জোরদারের নির্দেশ

বন্যায় যেকোনো সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত আছি

বেনাপোল এক্সপ্রেস-এর যাত্রা শুরু