ভাড়া নিয়ে তর্ক বাসযাত্রীকে ‘চাকায় পিষে হত্যা’

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে | ১০ জুন ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:০০
বাস ভাড়া নিয়ে বাক-বিতণ্ডার জের ধরে এক যাত্রীকে বাসচাপা দিয়েছে চালক। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ঈদে বাড়ি থেকে কর্মস্থলে ফিরে আসা যাত্রী সালাউদ্দিন আহমেদ (৩৫)। নিহত সালাউদ্দিন ঢাকার আলুবাজারের মৃত শাহাবউদ্দিনের ছেলে। তিনি গাজীপুর সদর উপজেলার বাঘের বাজার এলাকার আতাউর রহমান আতা মেম্বারের বাড়িতে স্ত্রীসহ ভাড়া থেকে স্থানীয় স্কটেক্স অ্যাপারিয়াল কারখানার গাড়িচালক হিসেবে কাজ করতেন। গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় জেলার সদর উপজেলার ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের স্ত্রী পারুল আক্তারের অভিযোগ, সে ও তার স্বামী সালাউদ্দিন ঈদের ছুটিতে ময়মনসিংহে তার বাবার বাড়িতে বেড়াতে যান গত পরশু। গতকাল তারা ময়মনসিংহ থেকে আলম এশিয়া পরিবহনের বাসযোগে কর্মস্থল গাজীপুরে ফিরছিলেন। পথে তার স্বামীর সঙ্গে ভাড়া নিয়ে পরিবহনের সহকারীর বাক-বিতণ্ডা হয়।
একপর্যায়ে বাসের ভেতরেই সালউদ্দিনকে মারধর করে পরিবহনের সহকারী এবং লাথি মেরে তাকে ফেলে দেবে বলে হুমকি দেয়। ভয় পেয়ে সালাউদ্দিন তার ভাই জামালকে টেলিফোনে বাঘের বাজার বাসস্ট্যান্ডে এসে দাঁড়াতে বলেন। পরে জামাল আরো ৫-৬ জন লোক নিয়ে বাঘের বাজারে দাঁড়িয়ে থাকেন। সালাউদ্দিন ও তার স্ত্রীকে বহনকারী আলম এশিয়ার দ্রুতগামী বাসটি স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে থাকা স্বজনরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই ধাক্কা দিয়ে সালাউদ্দিনকে বাস থেকে ফেলে দেয়। কিন্তু তার স্ত্রীকে নিয়ে বাস চলে যেতে থাকে। স্ত্রীকে না নামিয়ে বাস চলে যেতে থাকলে সালাউদ্দিন দৌড়ে বাসটির সামনে গিয়ে গতিরোধের চেষ্টা করেন। এ সময় চালক বাসটি সালাউদ্দিনের ওপর উঠিয়ে দেয় এবং দ্রুত বাসটি নিয়ে সটকে পড়েন।
পারুল আক্তার জানান- তার স্বামী যখন গাড়ি থেকে নেমে যান, সে সময় চালকের সহকারীরা তাকে নামতে বাধা দেন। পরে তাকে নিয়েই গাড়িটি চলতে শুরু করে, এ সময় সে কান্নাকাটি শুরু করলে ঘটনাস্থল থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরে নিয়ে বাসের গতি কমিয়ে তাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়।

মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় জয়দেবপুর থানা পুলিশের সহায়তায় বাসটি আটক করা হয়। তবে, চালক ও তার সহকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় তাদের আটক করা যায়নি। এই ঘটনায় হত্যা মামলা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

সেলিম

২০১৯-০৬-০৯ ২১:৪৭:১৪

চালক, হেলপার পালিয়ে জাক কি হয়েছে, বাসটি রেজি নাম্বার অনুযায়ী কোন মালিকে গাড়িটি তার নামের মামলা করলেই, চালক চলে অাসবে

shishir

২০১৯-০৬-০৯ ২১:১২:০৪

এই সন্ত্রাসিদের কখনোই বিচার হয়না।তাই তারা বারবার একই কাজ করে।পরি বহন সেকটরের নেতারাই মুলত দায়ী।

Khandakar

২০১৯-০৬-১০ ০৯:৩১:২৫

এই খুনী ড্রাইভারকে অনুরূপভাবে একটি বাসের সামনে দাঁড় করিয়ে ওর উপর দিয়ে বাস চালিয়ে দিয়ে মারা দরকার।

ark rahat

২০১৯-০৬-১০ ০২:১১:৩২

What a story , Now Our midnight elected obaedul qader sk hasina forced prime minister will check first if ti panle of al cl helmet league any supporter then only will areest or judgement otherwise not , so play will see bd mass people as because sk hasina for india not bd mass people . allah help bd mass people to get release from this forced al govt ruler,

আপনার মতামত দিন

লোহার খাঁচায় গঙ্গায় ডুবিয়ে দেয়া হলো জাদুকরকে, অতঃপর... (ভিডিও)

রাজধানীতের শিশু কন্যাকে হত্যা করে মায়ের আত্মহত্যার চেষ্টা

বৃষ্টি বাধা হবে না বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচে

প্রেমের টানে ঘর ছেড়ে পুলিশ হেফাজতে প্রেমিকা

জনতার রায়ের কাছে মাথানত করেও রেহাই নেই

ভারতকে স্বস্তি দিতে...

ফ্রান্সজুড়ে রেড এলার্ট জারি

ওসি মোয়াজ্জেমকে ফেনী পুলিশের কাছে হস্তান্তর

শ্রীলঙ্কায় বাছবিচারহীনভাবে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে মুসলিমদের

মাদারীপুরে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ১৫

শিশু সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করল মা

মাদক ব্যবসার অভিযোগ করায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

ব্রহ্মপুত্র নদে নৌকাডুবিতে নারীর মৃত্যু, নিখোঁজ ১

‘এ নিয়ে আলাদা একটা পরিকল্পনা রয়েছে’

এক ইনিংসে রোহিতের চার রেকর্ড

ডিজিটাল আইনে ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেপ্তার