‘বিনা চিকিৎসায় খালেদাকে মেরে ফেলার মানসিকতা সরকারের নেই’

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার | ২৪ মে ২০১৯, শুক্রবার, ২:৩২
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলার মানসিকতা আওয়ামী লীগ সরকারের নেই বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আজ শুক্রবার ধানমন্ডির আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে সম্পাদক মণ্ডলীর সভা শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।
সরকার কি খালেদা জিয়াকে জেলখানাই মেরে ফেলতে চায়- বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, খালেদা জিয়াকে বিনা চিকিৎসায় মেরে ফেলতে হবে এ রকম নিষ্ঠুর কাজ আওয়ামী লীগ সরকার করতে পারে না।

তিনি বলেন, বিএনপি নেত্রীর চিকিৎসা চলছে। তিনি এখন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে চিকিৎসাধীন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকার অমানবিক ও নিষ্ঠুর না যে বিনা চিকিৎসায় তিনি (খালেদা) মারা যাবেন।
দলীয় কার্যক্রম প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রায় আড়াই মাস পরে আমি সংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করলাম। বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে আমরা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। ঈদের পর কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদকদের নেতৃত্বে ৮টি টিম মাঠে নামবে।
তারা তৃণমূল পর্যায়ে সংগঠনকে সম্মেলনের মাধ্যমে শক্তিশালী করে গড়ে তুলবে।

আওয়ামী লীগের কাউন্সিল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সম্মেলনের মাধ্যমে দলে নেতৃত্ব ঠিক হবে। অনুপ্রবেশকারীদের ঢোকার সুযোগ থাকবে না। যারা পরীক্ষিত সৈনিক, দীর্ঘদিন ধরে দলে কাজ করছে তারাই নেতৃত্বে আসবেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘নাটকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হোক’

বিশেষ বরাদ্দের চাল-গমের জন্য তদবিরবাজদের ভিড়

বিজয়নগরে স্বতন্ত্র প্রার্থী নাছিমা বিজয়ী

ভাগ্নে অপহরণের ‘তদন্তে’ সোহেল তাজ

দুই মামলায় আটকে আছে খালেদার মুক্তি

ইফায় অচলাবস্থা, ডিজির পদত্যাগ দাবি কর্মকর্তাদের

কমিউনিটি ক্লিনিকে আরো ১২০০০ কর্মী নিয়োগ হচ্ছে

ক্রাইম পেট্রোল দেখে খুন, অতঃপর...

৫ স্কুলছাত্রীসহ ৭ নারী ধর্ষিত

ধর্ষণ মামলার প্রতিবেদন বিলম্বে দেয়ায় চিকিৎসককে তলব

অর্থমন্ত্রী বাসায় ফিরেছেন

বিচারাধীন মামলা ৩৫ লাখ ৮২ হাজার

মধ্যপ্রাচ্যে আরো ১০০০ সেনা মোতায়েন করছে যুক্তরাষ্ট্র

এক মাসের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সরাসরি যান চলাচল বন্ধ

রাষ্ট্র ও বিচার ব্যবস্থার ওপর জনগণের আস্থা হারিয়ে গেছে