ট্রফি জয়ে দুঃখ ভুলেছেন ফরহাদ

খেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার | ২০ মে ২০১৯, সোমবার
বিপিএল টি-টোয়েন্টি ও ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগে দারুণ পারফরম্যান্সের কারণে বহুদিন পর বাংলাদেশ দলে জায়গা হয়েছিল ফরহাদ রেজার। ২০১১ এর পর  সুযোগ এসেছিল ফের জাতীয় দলের জর্সি পরে মাঠে নামার। কিন্তু তা হয়নি। তবে এ নিয়ে খুব একটা মন খারাপ নেই অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারের। কারণ তিনি এখন দলের নতুন এক ইতিহাসের সাক্ষী। ট্রফি পেয়েই তিনি ভুলে গেছেন আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে মাঠে নামতে না পারার দুঃখ। দেশে ফিরে সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘অনেক দিন পর গিয়েছি। সবার সঙ্গে মানিয়ে নেয়ার ব্যাপার ছিল।
সব কিছুই ঠিকভাবে হয়েছে। খুব ভালো লেগেছে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস আমরা যেভাবে খেলতে চেয়েছি ওভাবেই খেলতে পেরেছি।’ তবে দেশে ফিরে বসে নেই ৩২ বছর বয়সেও হাল না ছাড়া পেস অলরাউন্ডার ফরহাদ রেজা। গতকালই তিনি যোগ দিয়েছেন এলিট টিমের অনুশীলনে। কঠিন পরিস্থিতিতে দলের অন্য অনুপ্রেরণা ও সাহসের অপর নাম অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজেও তার ব্যতিক্রম হয়নি। দেশ ছাড়ার আগে টাইগারদের ধারণা ছিল না এতটা কনকনে ঠাণ্ডার মুখোমুখি হতে হবে তাদের। তাপমাত্রা ছিল ৫ ডিগ্রির নিচে। সেই সঙ্গে শীতল হাওয়াতে জমে যাওয়ার অবস্থা। বলার অপেক্ষা রাখে না এমন কন্ডিশনে অভ্যস্ত নয় দল। অধিনায়ক মাশরাফি নিজের মন্ত্রে সতীর্থদের মধ্যে ছড়িয়েছেন বিশ্বাস আর উত্তাপ। টুর্নামেন্ট শেষে দেশে ফিরে এসে তাদের উজ্জীবিত থাকার মন্ত্রের কথা জানিয়েছেন অভিজ্ঞ ফরহাদ রেজা। যদিও প্রস্তুতি ম্যাচ ছাড়া মাঠে নামা হয়নি তার। তারপরও অধিনায়কের টনিকের প্রভাব কতটা সেটি জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যমকে। তিনি বলেন, ‘আসলে প্রথম থেকে তিন বিভাগেই আমরা খুব ভালো ক্রিকেট খেলেছি প্রস্তুতি ম্যাচ ছাড়া। প্রচণ্ড ঠান্ডা ছিল, মানিয়ে নেয়া কঠিন ছিল। পরে মাশরাফি ভাই ড্রেসিংরুমে অনেক কথা বলেছেন, যেটা সবাইকে ড্রেসিংরুমে বুস্টআপ করেছে। ফাইনাল ম্যাচে তো সবাই খুব ভালো করেছে।’ মাঠে নামতে না পারলেও ড্রেসিং রুমেই বসে দলের ইতিহাসে প্রথত টুর্নামেন্টে ফাইনাল জিততে দেখেছেন ফরহাদ রেজা। হয়েছেন ইতিহাসের স্বক্ষিও। তবে তবে এমন একটি ম্যাচ ভেসে যেতে বসেছিল বৃষ্টিতে। ফাইনাল ম্যাচে বষ্টিতে প্রায় সোয়া ৫ ঘণ্টার বিরতির বন্ধ ছিল। অবশেষে ২৪ ওভারের, বাংলাদেশ ২১০ রানের লক্ষ্য পায় ট্রফি জিতে নেয়ার।  যে কারণে ভয় ছিল, শেষ পর্যন্ত জয় হাতে ধরা দেয়ার। তবে মাঠে থেকে এক ফোটাও ভয় পাননি ফরহাদ। তাদের বিশ্বাস ছিল দল জিতেই মাঠ ছাড়বে। তিনি বলেন, ‘কখনোই একমুহূর্ত মনে হয়নি ম্যাচটা হারব আমরা। কারণ সবার মধ্যে জেতার জেদটা ছিল। ভালো সুযোগ দরজা থেকে যাতে ফিরে না যায়, তাই যেভাবেই হোক চেষ্টা করেছি ম্যাচটা জিততে।’

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

লক্ষ্মীপুরে কিশোরীকে আটকিয়ে গণধর্ষণ, আটক ২

আকাশের চিকিৎসা কি বন্ধ হয়ে যাবে?

নীলম উপত্যকায় কূটনীতিকদের নিয়ে গেছে পাকিস্তান

ভোলার সেই বিপ্লবের ভগ্নিপতিকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

দেখে শুনে রাস্তা পার হওয়ার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

বাংলাদেশ-ভারত টেস্ট দেখার আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন হাসিনা, আশাবাদী সৌরভ

এবার শামীমাকে ধর্ষণের অভিযোগ

সাবেক স্বামীর ছোঁড়া এসিডে ঝলসে গেলো ফাতেমা ও তার মেয়ে

ছেলের হাতে শিক্ষক বাবা খুন

ভোলার এসপির ফেসবুক আইডি হ্যাকড, থানায় জিডি

মাগুরায় ছাত্রী হোস্টেলে ঢুকে ছাত্রলীগের নিপীড়ন

যে কারণে থাইল্যান্ডে রাজ পদবী কেড়ে নেয়া হলো সিনীনাতের

ঠাকুরগাঁও সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে বাংলাদেশি নিহত

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রকে সংঘাতের কিনারে পৌঁছে দিয়েছিল

জানতেন না মাশরাফি

‘ক্ষমতায় ফিরছে’ কানাডায় ট্রুডো সরকার