কচুয়ায় রাস্তা পাকাকরণের দু’দিনেই উঠে গেল পিচ

বাংলারজমিন

চাঁদপুর প্রতিনিধি | ১৮ মে ২০১৯, শনিবার
চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলায় একটি কাঁচা রাস্তা পাকাকরণের কাজ শুরু হয় ২০১৫ সালে। সে কাঁচা রাস্তা খুঁড়ে খুঁড়ে ২০১৯ সালের মে মাসে পাকা কাজ শুরু হয়। মঙ্গলবার রাস্তাটি পাকাকরণের ঢালাই দেয়া হলেও বৃহস্পতিবার সকালে গ্রামবাসী এসে দেখেন পিচ ঢালাই রাস্তা কার্পেটের মতো উঠে যাচ্ছে। এখন কাঁচা রাস্তা পাকাকরণের দুই দিনে ফাঁকা হয়ে গেল। তবে বিষয়টি নিয়ে দ্বিমত পোষণ করেছেন কাজের ঠিকাদার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা সুমন প্রধানীয়া। তিনি বলেন, এলাকার লোকজন হাত দিয়ে পিচ ঢালাই উঠে ফেলছে। স্থানীয় বাসিন্দারা বলেন, কচুয়া-কাশিমপুর সড়কের মনপুরা গ্রামের ভিতরে ৪ কিলোমিটার রাস্তা পাকাকরণের টেন্ডার হয় ২০১৫ সালে। শুরু  থেকেই নানা অনিয়ম ও নিম্নমানের উপকরণ দিয়ে কাজ করে ঠিক রাস্তা করে ফেলে রাখা হয় প্রায় দুই বছর।
পথচারীরা চরম দুর্ভোগের শিকার হয়। স্থানীয় বাসিন্দা মোহাম্মদ সাকিব বলেন, মন্থর গতির এই কাজ ব্যবহৃত হয় ইট বালু পাথর- এগুলো সবই নিম্নমানের। ওই বাসিন্দা আরো বলেন, পিচ ঢালাই দেয়ার আগে রাস্তা পাকা করণে বিটুমিন না দিয়ে পিচ ঢালাই দিয়ে যায়। সড়কটির বিষয়ে বিস্তারিত জানতে একাধিকবার উপজেলা প্রকৌশলী সৈয়দ জাকির হোসেন ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিলীমা আফরোজ এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়। কিন্তু তাদেরকে পাওয়া যায়নি। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মনপুরা গ্রামের ভিতরে ৪ কিলোমিটার সড়কের প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০১৫-১৬ অর্থবছরে বরাদ্দ দেয়া হয়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘নাটকে রাষ্ট্রীয়ভাবে অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হোক’

বিশেষ বরাদ্দের চাল-গমের জন্য তদবিরবাজদের ভিড়

বিজয়নগরে স্বতন্ত্র প্রার্থী নাছিমা বিজয়ী

ভাগ্নে অপহরণের ‘তদন্তে’ সোহেল তাজ

দুই মামলায় আটকে আছে খালেদার মুক্তি

ইফায় অচলাবস্থা, ডিজির পদত্যাগ দাবি কর্মকর্তাদের

কমিউনিটি ক্লিনিকে আরো ১২০০০ কর্মী নিয়োগ হচ্ছে

ক্রাইম পেট্রোল দেখে খুন, অতঃপর...

৫ স্কুলছাত্রীসহ ৭ নারী ধর্ষিত

ধর্ষণ মামলার প্রতিবেদন বিলম্বে দেয়ায় চিকিৎসককে তলব

অর্থমন্ত্রী বাসায় ফিরেছেন

বিচারাধীন মামলা ৩৫ লাখ ৮২ হাজার

মধ্যপ্রাচ্যে আরো ১০০০ সেনা মোতায়েন করছে যুক্তরাষ্ট্র

এক মাসের মধ্যে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ সরিয়ে নেয়ার নির্দেশ

ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে সরাসরি যান চলাচল বন্ধ

রাষ্ট্র ও বিচার ব্যবস্থার ওপর জনগণের আস্থা হারিয়ে গেছে