নোয়াখালীতে তারাবির নামাজ থেকে ডেকে নিয়ে কলেজছাত্রকে খুন

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, নোয়াখালী থেকে | ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৪৪
নোয়াখালীতে ইয়াবা ব্যবসায় বাধা দেয়ায় তারাবির নামাজ থেকে ডেকে নিয়ে ছুরিকাঘাত করে কলেজছাত্র শেখ মো. জোবায়ের হোসেন (১৮) কে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বেগমগঞ্জ থানাধীন চৌমুহনী পৌরসভা দীঘির দক্ষিণপাড়ে কোর্ট মসজিদের সামনে মঙ্গলবার রাত ৯টায়। প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের পারিবারিক সূত্র জানায়, চৌমুহনী পৌরসভার আপন নিবাস হাউজিংয়ের খন্দকার ভিলায় ভাড়া বাসায় বসবাসরত সেনবাগ উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি শেখ মাহমুদ মোশারফ হোসেন বেলালের পুত্র ও নোয়াখালী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বাণিজ্য বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র শেখ মো. জোবায়ের হোসেন মঙ্গলবার তারাবির নামাজ পড়ছিলেন। এ সময় ইয়াবা কারবারিরা মসজিদ থেকে কথা আছে বলে ডেকে পৌরসভা দীঘির ঘাটে নিয়ে যায়। রাত ৯ টার দিকে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। তাকে আলীপুরবাসী উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তাররা মৃত ঘোষণা করে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত সহপাঠী আফসার, আবিদ হোসেন, পিটু, আসিব, মেহরাব, জনি, রাকিব, ফাহিম, সবুজ, মিরাজ সহ ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানায়, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কয়েকদিন আগে আটককৃত আবিদের বন্ধু রাকিবকে মারধর করা হয়।
এ ঘটনার জন্য কলেজ ছাত্র শেখ মো. জোবায়েরকে দায়ী করে রাতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে দীঘির পাড়ে আসে আবিদ, আশ্রাফ, জনি, ফাহিমসহ হুন্ডা যোগে প্রায় ৫০ জনের একটি সন্ত্রাসীদল। জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে জোবায়ের, আবিদ ও তাদের বন্ধুদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে জোবায়েরের কয়েকজন বন্ধু সিরাজসহ তাকে বাড়ির দিকে নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় আবিদ  জোবায়েরকে পিছন থেকে ধরে টেনে পুনরায় দিঘীর পূর্ব পাড়ে নিয়ে আসলে জোবায়ের এর চিৎকার শুনতে পায় তার বন্ধুরা। পরে তারা এগিয়ে এসে রক্তাক্ত অবস্থায় জোবায়েরকে পড়ে থাকতে  দেখে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। বুধবার সকালে বেগমগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ফিরোজ আলম মোল্লা মানবজমিনকে জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির পর জোবায়েরকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রেনু হত্যায় প্রধান আসামি হৃদয় গ্রেপ্তার

মা হত্যার বিচার চেয়ে রাজপথে তুবা

সেদিন যা ঘটেছিল বাড্ডার স্কুলে

বরিস জনসন বৃটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী

সড়কে পৌনে ৫ লাখ ফিটনেসবিহীন গাড়ি

জাপার বিবাদ প্রকাশ্যে

পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতেই মানুষ হত্যা করা হচ্ছে

ডেঙ্গু শনাক্তে ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভিড়

আক্তারকে মারধর নূর লাঞ্ছিত

ট্রাম্পের বক্তব্য নিয়ে উত্তপ্ত ভারতের রাজনীতি

সুযোগসন্ধানীরা যেন ফায়দা লুটতে না পারে -প্রেসিডেন্ট হামিদ

প্রধানমন্ত্রীর চোখে অস্ত্রোপচার

আশুগঞ্জে আলোচনায় ৬%, টার্গেট ৩৮ কোটি টাকা

নিখোঁজ ৩.৭০ কোটি হিন্দু বাংলাদেশি ভারতেই

কারাগারে এনামুল বাছির

সিলেটে তোলপাড় খালা-বোনঝির ‘ইয়াবা মিশন’