ভূমধ্যসাগর ট্র্যাজেডি

মৌলভীবাজারের আরেক যুবক রুকুল নিখোঁজ

এক্সক্লুসিভ

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে | ১৬ মে ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৫৮
লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে ভূমধ্যসাগরের তিউনিশিয়া উপকূলে নৌকাডুবির ঘটনায় মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ১২নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের আজিজুর রহমান রুকুল নিখোঁজ রয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে আজিজুর রহমান রুকুল এর বড় ভাই মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষক মো. মুহিবুর রহমান মোবাইল ফোনে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, আমরা ৫ ভাই ও তিন বোনের মধ্যে রুকুল সবার ছোট। তবে তার মৃত্যুর বিষয়টি তিনি এখনো নিশ্চিত হতে পারেনি। এর আগে রুকুলের ভাতিজা মো. আলমগীর মিয়া সকালে মোবাইল ফোনে বলেন, আমার চাচা লিবিয়া থেকে ইতালি যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়েছেন। বাড়িতে শোকের মাতম চলছে। নিখোঁজ রুকুল মৌলভীবাজার সদর উপজেলার গিয়াসনগর ইউনিয়নের কালিয়ারগাঁও গ্রামের মৃত সাদিকুর রহমানের ছেলে। নিখোঁজের বড় ভাই মুহিবুর রহমান বলেন, আমার ভাই আমার সঙ্গে বায়না ধরে লিবিয়া যাবে।
আমি তার কথা অনুযায়ী টাকা দিলে সে ২০১৭ সালে মে মাসের ২০ রমজানের দিকে ঢাকা ট্রাভেলস এজেন্সির মাধ্যমে লিবিয়া গমন করে। আমার ইচ্ছা ছিল না যে তাকে বিদেশে পাঠাই। সর্বশেষ ৮ই মে রাত ৮.১০ মিনিটে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ হয় তার সঙ্গে। এ সময় সে আমাকে জানিয়েছে আমি এখন রওয়ানা হয়েছি ইতালির পথে। এরপর থেকে আমার ভাইয়ের সঙ্গে আর কোনো যোগাযোগ নেই। তবে এ বিষয়ে স্থানীয় রেডক্রিসেন্ট কার্যালয় থেকে রুকুলের কোনো তথ্য নিশ্চিত করতে পারেননি।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

এমপিও’র দাবিতে শিক্ষকদের অবস্থান কর্মসূচী

ঢাকা কলেজ ছেড়েছেন আবরারের ছোট ভাই ফায়াজ, ছাড়পত্র নিয়ে কুষ্টিয়ায়

মেয়ে ভারতে পাচার, দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন বাবা

সিরাজগঞ্জে ধর্ষকের যাবজ্জীবন

তুহিন হত্যায় পরিবারের সদস্যরা সম্পৃক্ত!

বিকালে আন্দোলনকারীদের সংবাদ সম্মেলন

প্রথমবার যৌথভাবে বুকার পুরস্কার দেয়া হয়েছে

ভারতে পালানোর সময় সাদাত গ্রেপ্তার

সৌদি আরবে লাল গালিচা অভ্যর্থনা পুতিনকে, শত শত কোটি ডলারের চুক্তি সই

সম্রাটের ১০ দিনের রিমান্ড, আরমানের ৫ দিন

লক্ষ্মীপুরে গণপিটুনিতে চোর নিহত

১০ টাকার জন্য নিজ সন্তানকে খুন করলেন মা

যৌতুকের জন্য নির্যাতন, স্বামী গ্রেপ্তার

‘আমার সামনে তখন একজন লিজেন্ডকে দেখি’

অস্ট্রেলিয়ায় প্রতিবাদের নামে নগ্নতা

টাকা কুড়াতে নদীতে ঝাঁপিয়ে পড়লেন শতাধিক মানুষ!