ইসলামী ঐক্যজোটের বিক্ষোভ শুক্রবার

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৫ মে ২০১৯, বুধবার
দাড়ি, টুপি ও টাখনুর ওপর কাপড় পরা জঙ্গিবাদের লক্ষণ বলে কটূক্তি করায় ‘সমপ্রীতি বাংলাদেশ’ এর প্রধান পীযূষ বন্দোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তার ‘সমপ্রীতি বাংলাদেশ’ সংগঠনকে নিষিদ্ধের দাবিতে শুক্রবার রাজধানীর বায়তুল মোকাররম উত্তর গেটে বিক্ষোভ মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে ইসলামী ঐক্যজোট। এছাড়াও সারা দেশের প্রতিটি মসজিদ থেকে বাদ জুমা বিক্ষোভ মিছিল করার আহবান জানানো হয় মুসল্লিদের প্রতি। গতকাল মঙ্গলবার লালবাগস্থ কার্যালয় মিলনায়তনে ইসলামী ঐক্যজোট আয়োজিত ইফতার মাহফিলে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। ইফতার মাহফিলে ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল লতিফ নিজামী বলেন, যারা বলে দাড়ি টুপি ও টাখনুর ওপর কাপড় পরা জঙ্গিবাদের আলামত মূলত তারাই প্রকৃত জঙ্গি। এই কুচক্রি মহল চায় না এদেশে ইসলামের সৌন্দর্য ফুটে উঠুক। ‘সমপ্রীতি বাংলাদেশ’ নামক সংগঠন ইহুদিদের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে মরিয়া হয়ে মাঠে নেমেছে। এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সকল মুুসলমানকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, সম্প্রতি তথাকথিত ‘সমপ্রীতি বাংলাদেশ’ এর প্রধান পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় দাড়ি টুপি ও টাখনুর ওপর কাপড় পরা জঙ্গি লক্ষণ বলে মুসলমানদের ধর্মীয় বিশ্বাসের ওপর হামলা করেছে। আমি এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।  আমি মনে করি পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অমুসলিমদেরও প্রতিবাদ করার আহবান জানাচ্ছি। সরকারকে অবিলম্বে পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার ও ‘সমপ্রীতি বাংলাদেশ’ নামক উগ্রবাদী সংগঠন নিষিদ্ধ  ঘোষণার জোর দাবি জানাচ্ছি। তা না হলে এদেশের ইসলামপ্রিয় জনতা আগামীতে যে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হবেন। ইফতার মাহফিলে আরো বক্তব্য রাখেন খেলাফত আন্দোলনের আমীর মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, ইসলামী ঐক্যজোটের ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী, মাওলানা আব্দুর রশিদ মজুমদার, মাওলানা যোবায়ের আহমদ, মাওলানা জসিমউদ্দিন, যুগ্ম মহাসচিব মুফতী তৈয়্যব হোসাইন, মাওলানা ফজলুর রহমান, মাওলানা আবুল কাশেম, মাওলানা শেখ লোকমান হোসাইন, সহকারী মহাসচিব মাওলানা আলতাফ হোসাইন, মাওলানা সাইফুল্লাহ হাবিবী প্রমুখ।   



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ