খালেদা জিয়ার জামিনে মুক্তি দাবি করেছেন রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধারা

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার | ১৪ মে ২০১৯, মঙ্গলবার
মানবিক কারণে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিনে মুক্তির দাবি জানিয়েছেন রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধারা। গতকাল গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে রণাঙ্গনের ১২৯জন মুক্তিযোদ্ধা এ দাবি জানিয়েছেন। তারা বলেন, আমরা গভীর উদ্বেগের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, বাংলাদেশের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী মহান স্বাধীনতার ঘোষক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীরউত্তমের সহধর্মিণী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে একটি মামলায় সাজা দিয়ে একটি অন্ধকার, পরিত্যক্ত কারা প্রকোষ্ঠে প্রায় পনেরো মাস যাবৎ বন্দি করে রাখা হয়েছে। মামলাটি জামিনযোগ্য হওয়া সত্ত্বেও তাকে জামিন না দিয়ে, তার প্রতি অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে। গুরুতর অসুস্থ থাকার পরও তার ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করে, রাষ্ট্র নিষ্ঠুর আচরণ করছে। আমরা মানবিক কারণে দলমত নির্বিশেষ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। বিবৃতিদাতাদের মধ্যে রয়েছেন- ড. কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীরবিক্রম, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর বীরউত্তম, মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমেদ বীরবিক্রম, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, মে. জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম বীরপ্রতীক, কর্নেল (অব.) মনীষ দেওয়ান, লে. কর্নেল (অব.) জয়নুল আবেদীন, মেজর (অব.) মুনিবুর রহমান, মেজর (অব.) মিজানুর রহমান, ইশতিয়াক আজীজ উলফাত, সাদেক আহমেদ খান, হাজী আবুল হোসেন, মিজানুর রহমান খান বীরপ্রতীক, আজিজুল হক লেবু কাজী, মোজাফফর হোসেন, মোকশেদ আলী মঙ্গোলিয়া, হাজী মনসুর আলী সরকার, প্রকৌশলী নজরুল ইসলাম, প্রকৌশলী আবদুল হালিম, আবদুর রাজ্জাক, চৌধুরী আবু তালেব, মো. কামাল উদ্দীন, নজরুল ইসলাম খোকা, সাজেদুর রহমান বাবলু, এইচআর সিদ্দিকী সাজু, শহীদ বাবলু, মনিরুল ইসলাম ইউসুফ, মো. মালেক খান, কাজী নাছির আহমেদ, মোস্তফা শাহাবুদ্দীন রেজা, কুতুব উদ্দীন, জোয়াদুর রসুল বাবু, অ্যাডভোকেট আবু বকর সিদ্দিকী, অ্যাডভোকেট গোলাম মোস্তফা প্রমুখ। উল্লেখ্য, গত  ১লা এপ্রিল অসুস্থ অবস্থায় খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে কেবিন ব্লকে বন্দি অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাঙ্গামাটিতে সন্ত্রাসীদের গুলিতে সেনাসদস্য নিহত

ঈদে সড়কেই প্রাণ গেল ২২৪ জনের

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন আদৌ শুরু হচ্ছে কি?

কুমিল্লায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৮

এখনো উচ্চ ঝুঁকি ২৪ ঘণ্টায় ১৭০৬ রোগী ভর্তি

পার্বত্য চট্টগ্রাম ভারতের অবিচ্ছেদ্য অংশ

ডেঙ্গুর প্রজননস্থলে কতটা যেতে পারছেন মশক নিধন কর্মীরা?

বৈঠকের পর চামড়া বিক্রিতে সম্মত আড়তদাররা

জনগণকে সতর্ক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরামর্শ

ছিনতাইকারীর হাতে খুন হন কলেজছাত্র রাব্বী

শিক্ষিকাকে গণধর্ষণের পর হত্যা

শহিদুল আলমের মামলা স্থগিতই থাকবে

ডেঙ্গুর ভয়ে স্কুলে যাওয়া বন্ধ তবুও...

রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট নিয়ে ঢামেকে সংঘর্ষ, আহত ২৫

টার্গেট রাজনৈতিক সম্পর্ক দৃঢ়করণ

ইউজিসি প্রফেসর হলেন ডা. এবিএম আব্দুল্লাহ