মুসলিমদের কাছে ভোট চাওয়ায় সিধুর বিরুদ্ধে মামলা

দেশ বিদেশ

মানবজমিন ডেস্ক | ১৮ এপ্রিল ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:২৪
মুসলিমদের কাছে ভোট চাওয়ায় মামলা হয়েছে ভারতের জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক সদস্য ও পাঞ্জাবের মন্ত্রী নভজোত সিং সিধুর বিরুদ্ধে। বলা হয়েছে, তিনি এর মধ্য দিয়ে সাম্প্রদায়িকতা উস্কে দিয়েছেন। তিনি মুসলিমদের কাছে ভোট চেয়েছিলেন এই বলে যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে থামাতে মুসলিমদেরকে এক হতে হবে এবং ভোট দিতে হবে। তার এমন বক্তব্যের পর ওই মামলা হয়েছে বিহারের কাতিহার জেলায়। এ খবর দিয়েছে অনলাইন টাইমস অব ইন্ডিয়া।
ভারতের নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনায় ওই মামলা হয়েছে বলে টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানিয়েছেন রাজ্যের প্রধান নির্বাচন বিষয়ক একজন কর্মকর্তা। এতে বলা হয়েছে, কাতিহারে বারসোই পুলিশ স্টেশনে করা হয়েছে মামলাটি। এই থানার স্টেশন হাউজ অফিসার চন্দ্র প্রকাশ বলেছেন, ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশনা অমান্য করার জন্য সিধুর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৮৮ ধারায়, সেকশন ১২৩(৩) ধারায় ও ১৯৫১ সালের জনপ্রতিনিধিত্ব বিষয়ক আইনের ১২৫ ধারায়।
বিহারের কাতিহার লোকসভা আসনে কংগ্রেসের প্রার্থী তারিক আনোয়ার। তার পক্ষে বলরামপুরে বারসোইতে একটি নির্বাচনী র‌্যালিতে সিধু বক্তব্য রাখছিলেন। এ সময় তিনি তারিক আনোয়ারকে ভোট দেয়ার জন্য মুসলিমদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, মুসলিম ভাইয়েরা আমি এখানে এসেছি আপনাদেরকে সতর্ক করতে। এখানকার জনসংখ্যার শতকরা ৬৪ ভাগই আপনারা। আপনারা সব মুসলিম ভাই আমার ‘পাগড়ি’। অর্থাৎ মাথার তাজ। আপনারা সবাই পাঞ্জাবে এসেছেন কাজের জন্য। এখানে আপনারা ভালোবাসা পেয়েছেন। পাঞ্জাবে আমার পক্ষ থেকে আপনাদের প্রতি মমতা। আপনারা যদি পাঞ্জাবে কোনো রকম সমস্যায় পড়েন, আপনাদের পাশে পাবেন এই সিধুকে। প্রিয় মুসলিম ভাইয়েরা, তারা আপনাদেরকে বিভক্ত করছে। তারা আপনাদের ভোটকে ভাগ করে জিততে চায়। আপনারা শতকরা ৬৪ ভাগ মুসলিম। এখানে আপনারা সংখ্যালঘু নন। আপনারা সংখ্যাগরিষ্ঠ। যদি আপনারা সবাই একত্রিত হন এবং ভোট না দেন (তাদের) তাহলেই সব মিটমাট হয়ে যাবে। ক্রিকেটীয় ভাষায় তিনি বলেন, এখন সময় হলো ছক্কা মারার। আর সেই ছক্কায় মোদিকে সীমানার ওপারে পাঠিয়ে দেয়ার। যদি আপনারা সংহতি প্রকাশ করেন তাহলে কেউই আপনাদের প্রার্থী তারিক আনোয়ারকে পরাজিত করতে পারবে না।
নিজের দলের জন্য সিধু বিহারে সীমান্ত অঞ্চলে প্রচারণা চালাচ্ছেন। তবে মুসলিমদের কাছে এভাবে তার ভোট চাওয়ায় ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে বিজেপিতে। তারা তার এ আচরণকে নিন্দনীয় কর্মকাণ্ড বলে অভিহিত করেছেন। একই সঙ্গে নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করেছেন, তাকে সুয়োমোটো নোটিশ করতে। রাজ্যের বিজেপি ভাইস প্রেসিডেন্ট দেবেশ কুমার ও মুখপাত্র নিখিল আনন্দের নেতৃত্বে দলের নেতারা এ নিয়ে নালিশ জানিয়েছেন নির্বাচনী কর্মকর্তার দপ্তরে। তারা দাবি করেছেন সিধুর বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলা করতে এবং নির্বাচনে তাকে নিষিদ্ধ করতে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

বাংলাদেশী কিশোরীর অন্ধকার জীবন

‘লুকিয়ে সিনেমা হলে ঢুকেছিলাম’

রাজি নয় রোহিঙ্গারা শুরু হলো না প্রত্যাবাসন

তিন বিচারপতির বিরুদ্ধে তদন্ত

ইতিহাস গড়তে চান পাপন-ডালিয়া

যারা প্ররোচনা দিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী (অডিও)

প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর ডানা মেললো ‘গাঙচিল’

শামীমের লাশ মিললো কুমিল্লায়, নানা নাটকীয়তা

২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ১৫৯৭ জন হাসপাতালে ভর্তি

এডিসের লার্ভা নিয়ে হার্ডলাইনে সিসিক

বাসাবাড়িতে অভিযানে সুফল মিলবে কি?

দক্ষিণে যেভাবে চলছে অভিযান

ঠাকুরগাঁওয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের ইন্দোনেশিয়া সেনা সদর পরিদর্শন

২১শে আগস্ট নিয়ে রাজনীতি করছে আওয়ামী লীগ: রিজভী

ওঝার কাণ্ড