নাক ফুল না পরায়

ষোলো আনা

প্রনব কর্মকার | ১২ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:৫৫
বিয়ে ঘিরে আমাদের সমাজে প্রচলিত আছে নানান কুসংস্কার। বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে এসব কুসংস্কারের প্রকোপ অত্যধিক। যেমন শনিবার, মঙ্গলবার, অমাবস্যা ও পৌষ-কার্তিক মাসে করা যাবে না বিয়ে। আর অমঙ্গল ডেকে আনে জন্মদিনের দিনের বিয়েও। আবার বন্ধ্যা নারীকে যাত্রায় না দেখা ও দাওয়াত দেয়াকে ভাবা হয় অশুভ। নতুন স্ত্রীকে বসতে দিতে হবে নরম স্থানে। এতে তার মেজাজ নরম থাকবে।

বরের পুরুষ কোনো আত্মীয়, বিশেষ করে দুলাভাই নতুন বউকে কোলে তুলে বাসর ঘর পর্যন্ত পৌঁছে দেবেন।
বরের ভাবি ও অন্য যুবতি মেয়েরা বরকে সমস্ত শরীরে হলুদ মাখিয়ে গোসল করাবেন। নতুন বউ প্রথম শ্বশুর বাড়িতে আসার সময় মাটিতে পা রেখে প্রবেশ করবে। এ ছাড়াও উভয়ের কাপড়ের মধ্যে গিট লাগানো হয়।
সেই সঙ্গে গ্রামাঞ্চলে ব্যাপকভাবে পরিচিত স্ত্রী চুড়ি বা নাকফুল না পরলে স্বামীর হায়াত কমে যায়।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

‘বাংলাদেশ দৈবক্রমে সৃষ্টি হয়নি’

পবিত্র লাইলাতুল বরাত আজ

দল গোছাতে ব্যস্ত বিএনপি

অন্যদেশ থেকে লোক এনে প্রচার চালাচ্ছে তৃণমূল

ফেরদৌস-নূরের পর...

মোকাব্বির খানকে শোকজ

ভাই নেই, তাই থেমে গেছে নেহার পড়াশোনা

স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তির আগেই সফল হবো

৮ বছরেও বিচার হয়নি

প্রধানমন্ত্রী ব্রুনাই সফরে যাচ্ছেন আজ

অনুমতি পেলেই সিঙ্গাপুরে নেয়া হবে সুবীর নন্দীকে

‘অকুপেন্সি সার্টিফিকেট’ ছাড়া বহুতল ভবন ব্যবহার করা যাবে না

পোশাক শিল্পের অবদান বাড়লেও পরিবেশের জন্য উদ্বেগজনক

‘চীনের বিআরআই উদ্যোগের সম্ভাবনা কাজে লাগাতে চায় ঢাকা’

নুসরাত হত্যা ধামাচাপা দিতে অর্থ লেনদেন হয়েছে: সিআইডি

শতভাগ দুর্নীতিমুক্ত বলতে পারবো না: এমডি