স্থায়ী ক্যাম্পাসে পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরু বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের

শিক্ষাঙ্গন

ববি থেকে সংবাদদাতা | ২ জুন ২০১৬, বৃহস্পতিবার
স্থায়ী ক্যাম্পাসে পূর্ণাঙ্গ একাডেমিক ও প্রশাসনিক কার্যক্রম শুরু করেছে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়। বুধবার (১লা জুন) থেকে এ কার্যক্রম শুরু হয়। ২০১১ সালের ২২শে  ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।  ২০১২ সালের ২৪শে জানুয়ারি বরিশাল নগরীর জিলা স্কুলের কলেজ ভবনে কার্যক্রম শুরু করে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়। সে সময় গণিত, ইংরেজি, ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ, মার্কেটিং, অর্থনীতি ও সমাজবিজ্ঞান বিভাগের একাডেমিক কার্জক্রম চলতে থাকে জিলা স্কুলের অস্থায়ী ক্যাম্পাসে। সময় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অনুষদ ও বিভাগের সংখ্যা বাড়তে থাকে। বর্তমানে ৬টি অনুষদের অধীনে ১৮ টি বিভাগ রয়েছে। শিক্ষার্থী রয়েছে প্রায় ৫০৫৪ জন। ২০১৪ সালের ২২শে ফেব্রুয়ারি প্রথম ক্লাশ শুরু হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস কর্ণকাঠীতে ১৮ টি বিভাগের মধ্যে বেশ কিছু বিভাগ স্থানান্তরিত হয়। উভয় ক্যাম্পাসেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম চলতে থাকে। এরই মধ্যে জিলা স্কুল ক্যাম্পাসের কলেজ ভবনে  দুটি সরকারি মাধ্যমিক স্কুলের একাডেমিক কার্যক্রম চালু হয়। এর প্রেক্ষিতে এ বছরের ৩০শে জুনের  মধ্যে বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিটি ক্যাম্পাসের ব্যবহৃত ভবনগুলো জিলা স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে বুঝিয়ে দিতে বলে শিক্ষা মন্ত্রণালয় । এতে উভয় প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের পাঠদান কার্যক্রমে কিছুটা ব্যাঘাত ঘটে। বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. এসএম ইমামুল হক নির্ধারিত সময়ের একমাস আগেই সিটি ক্যাম্পাস কর্ণকাঠীর প্রধান ক্যাম্পাসে স্থানান্তরের ঘোষণা দেন। সেই ঘোষণা অনুযায়ী সিটি ক্যাম্পাসে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪টি বিভাগ ৩১শে মে কর্ণকাঠীর প্রধান ক্যাম্পাসে স্থানান্তর করা হয়েছে।
এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন