ডিএনএ’র রিপোর্ট

বিহারে দুই বাংলাদেশী যুবক গ্রেপ্তার, ‘আইএস সংশ্লিষ্ট ডকুমেন্ট উদ্ধার’

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক | ২৬ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার
ভুয়া ভারতীয় পরিচয়ে ভ্রমণকালে দুই বাংলাদেশীকে গ্রেপ্তার করেছে বিহার পুলিশ। এ সময় তাদের কাছ থেকে বেশ কিছু ডকুমেন্ট জব্দ করা হয়েছে। এগুলো আইএস সহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী গ্রুপের সঙ্গে সম্পর্কিত বলে দাবি করছে পুলিশ। এ খবর দিয়েছে ভারতের অনলাইন ডিএনএ।

গ্রেপ্তার করা ওই দুই যুবক হলো ঝিনাইদহের চাপাতলার খায়রুল মন্ডল ও আবু সুলতান। বিহার পুলিশ অভিযোগ করেছে তারা ইসলামিক স্টেট বাংলাদেশ (আইএসবিডি)-এর সদস্য।  সরকারি একটি সূত্র নিশ্চিত করে বলেছেন, পাটনা রেলওয়ে স্টেশনে দু’জন বাংলাদেশী যুবক ঘোরাফিরা করছে এমন সুনির্দিষ্ট খবর পায় সন্ত্রাস বিরোধী স্কোয়াড (এটিএস)। পরে মাদানি মুসাফিরখানা এলাকার কাছ থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে সিনিয়র কর্মকর্তাদের একটি দল।

একটি সূত্র বলেছেন, জিজ্ঞাসাবাদকালে ওই দুই যুবক স্বীকার করেছে তারা আইএসবিডি ও জমিয়তুল মুজাহিদিনের সক্রিয় সদস্য। রিপোর্টে বলা হয়েছে, এসব সংগঠনের সদস্যদের বিভিন্ন রকম সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে জন্য বাংলাদেশ পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।
ওই দুই যুবক বলেছে, তারা সদস্য সংগ্রহের জন্য সফর করছিল পশ্চিমবঙ্গ, কেরালা, দিল্লি ও বিহার। তারা জিহাদের জন্য আইএসে যোগ দিতে সিরিয়া যেতে চেয়েছিল।
পুলিশ বলেছে, এই দুই যুবকের কারো কাছে পাসপোর্ট নেই। ভিসা নেই। নেই অন্য কোনো বৈধ ভ্রমণের কাগজপত্র। তারা অবৈধ উপায়ে সীমান্ত অতিক্রম করেছে। তবে তাদের কাছে ছিল ভারতীয় ভুয়া ভোটার পরিচয়পত্র, একটি ভুয়া প্যান কার্ড। এ ছাড়া ছিল তিনটি মোবাইল ফোন ও একটি মেমোরি কার্ড।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, তাদের কাছে ছিল নয়া দিল্লি থেকে হাওড়া যাওয়ার ট্রেনের টিকেট, গয়া থেকে পাটনা যাওয়ার টিকেট এবং কলকাতা থেকে গয়া যাওয়ার বাসের টিকেট।
পালওয়ামা হামলার পর আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য ছিল তাদের কাছে। এ ছাড়া ছিল পোস্টার ও প্রচারপত্র। এগুলো আইএস ও অন্যান্য সন্ত্রাসী সংগঠনের সঙ্গে সম্পর্কিত।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন