কুষ্টিয়ায় স্কুলছাত্রী অপহরণ মামলায় ১৪ বছরের কারাদন্ড

অনলাইন

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি | ২৫ মার্চ ২০১৯, সোমবার, ১:৫০ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৭
কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে স্কুলছাত্রী অপহরণ মামলায় রাকিবুল সরদার ওরফে রাকিব নামে এক আসামিকে ১৪ বছরের কারাদন্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। সেই সঙ্গে  ৫০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দেয়া হয়। আজ বেলা সাড়ে ১১টায় কুষ্টিয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মুন্সি মো. মশিয়ার রহমান এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামী পলাতক ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, দৌলতপুর উপজেলার দৌলতখালী সরদার পাড়ার বাসিন্দা খালেক সরদারের ছেলে আসামী রাকিব প্রায় একই গ্রামের মজনুর রহমানের স্কুল পড়ুয়া বোন পিংকিকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রেম নিবেদন করতো। রাজি না হলে ২০১৬ সালের ২৪শে জানুয়ারী বাড়ি থেকে স্কুলে যাওয়ার পথে রাস্তা থেকে রাকিব ও তার সহযোগিরা পিংকিকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় পিংকির ভাই মজনুর রহমান বাদি হয়ে দৌলতপুর থানায় অপহরণ মামলা দায়ের করেন।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি এড. অনুপ কুমার নন্দী জানান, পুলিশের দেয়া তদন্ত প্রতিবেদনে আদালত দীর্ঘ স্বাক্ষ্য শুনানী শেষে আসামির বিরুদ্ধে অপহরণের ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় আসামির ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন