আওয়ামী লীগ প্রার্থীর অভিযোগে করিমগঞ্জের ওসি প্রত্যাহার

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে | ২১ মার্চ ২০১৯, বৃহস্পতিবার
করিমগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে করিমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মুজিবুর রহমানকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এ ব্যাপারে বুধবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয় থেকে আইজিপি বরাবর একটি চিঠি দেয়া হয়েছে।
নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সহকারী সচিব (জ.ব্য.-২) নূর নাহার ইসলাম স্বাক্ষরিত এই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মুজিবুর রহমানকে অন্যত্র বদলির জন্য নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত প্রদান করেছেন। নির্বাচন কমিশনের এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ওসি মো. মুজিবুর রহমানকে অন্যত্র বদলি করে অন্য একজন উপযুক্ত কর্মকর্তাকে পদায়নের ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক নির্বাচন কমিশন সচিবালয়কে অবহিত করার জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়।
করিমগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মোহাম্মদ তাজুল ইসলাম বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গত ২৬শে ফেব্রুয়ারি দুপুরে করিমগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন অফিসে আওয়ামী লীগ মনোনীত উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদের মনোনয়নপত্র জমা দিতে যাওয়ার সময় নির্বাচন অফিসের কাছে প্রার্থীর লোকজনের উপর হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় আওয়ামী লীগ প্রার্থীর গাড়ি ভাঙচুর ছাড়াও সমর্থক এক নেতা আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। এ বিষয়ে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নাসিরুল ইসলাম খান আওলাদ নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজিকে বিষয়টি তদন্ত করে তিন দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য নির্দেশ দেয় নির্বাচন কমিশন। তদন্ত প্রতিবেদনের প্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন করিমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মুজিবুর রহমানকে অন্যত্র বদলির জন্য সিদ্ধান্ত প্রদান করেছেন।
এ বিষয়ে করিমগঞ্জ থানার ওসি মো. মুজিবুর রহমান বলেন, আমি অন্যায় কোন কাজ করিনি। এছাড়া আমি আমার কর্তব্য পালনে বিন্দুমাত্র শৈথিল্যও দেখাইনি।
এরপরও যেহেতু বদলির চাকরি, তাই এ ব্যাপারে যেকোন পরিস্থিতির জন্য আমাদের তৈরি থাকতে হয়।




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন