নবীগঞ্জে অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগ

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার, নবীগঞ্জ থেকে | ১৯ মার্চ ২০১৯, মঙ্গলবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:১৯
নবীগঞ্জে অপহরণ ও মুক্তিপণ দাবির অভিযোগ নিয়ে তোলপাড় চলছে। এনিয়ে সিলেট পুলিশের ডিআইজির কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। গত ৫ই মার্চ আলোচিত ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অপহৃত যুক্তরাজ্য প্রবাসী গৃহবধূর স্বামী আল মাইমুন এবং গাড়ি চালককে উদ্ধার সম্ভব হয়নি। অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, জগন্নাথপুর উপজেলার শ্রীধরা পাশা গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী মাওলানা সালাউদ্দিন মনসুরের কন্যা শরীফা নুসরাত স্বামীকে নিয়ে মৌলভীবাজার জেলার রায়পুর যাওয়ার পথে গাড়িতে গ্যাস ভরার জন্য নবীগঞ্জ-সিলেট মহাসড়কের আউশকান্দি ফিলিং স্টেশনে গাড়ি থামান। রাত প্রায় পৌনে ১০টায় গ্যাস ভরার পর ওই সড়কের এফডি সুপার মার্কেটের সামনে আসা মাত্রই পেছন থেকে একটি হাইএস গাড়ি প্রাইভেট কারের গতিরোধ করে। গৃহবধূকে বহন করা প্রাইভেটকার ভাঙচুর করে। তাদের আর্তচিৎকারে লোকজন এগিয়ে এলে অস্ত্র দেখিয়ে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করে।
এ সময় গাড়ি থেকে কৌশলে বের হয়ে নিরাপদে চলে যান গৃহবধূ নুসরাত। এ সময় প্রাইভেট (গাড়ি নং ঢাকা মেট্রো-গ ১২-২২৩৪) এর দরজা খুলে কারের চালক ও গৃহবধূর স্বামী মাওলানা আব্দুল্লাহ মায়মুনকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ গৃহবধূকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়। ১১ই মার্চ অপহরণকারীরা মোবাইলের মাধ্যমে অপহৃতদের পেতে হলে ১০ লাখ টাকা দেয়ার দাবি করে। মামলা নিয়ে আইনি জটিলতার প্রেক্ষিতে ১৪ই মার্চ অপহৃত আব্দুল্লা মায়মুনের বড় ভাই সিলেট রেঞ্জ ডিআইজির কাছে অভিযোগ করেন। ঘটনার ১৫ দিন অতিবাহিত হলেও অপহৃত আব্দুল্লাহ মায়মুন এবং প্রাইভেট কারের চালককে উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি। এ নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশের আইজিসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে। এ নিয়ে থানার ওসি মোহাম্মদ ইকবাল হোসেন বলেন, চাঞ্চল্যকর ও রহস্যজনক ওই ঘটনা নিয়ে তদন্ত চলছে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন