‘ভোটার না আসলে আমরা কি করবো?’

অনলাইন

শ্রীমঙ্গল প্রতিনিধি: | ১৮ মার্চ ২০১৯, সোমবার, ১১:৪৭ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:০৬
সকাল দশটা। শ্রীমঙ্গল সরকারি কলেজের পুরুষ ভোট কেন্দ্র ছিল একেবারেই ফাঁকা। এই ভোট কেন্দ্রের মোট ভোটার সংখ্যা ১৯৮৮। এ কেন্দ্রে ভোট শুরুর ২ ঘন্টায় কাস্ট হয়েছে ২০১টি।

কেন্দ্রের নিরাপত্তায় নিয়োজিত আনসার সুমন বলেন, ভোটার বাড়িতে, মানুষ ভোটে আসতে চায় না, আমরা কী করব? এখানে কোনো ভোটার নেই, পুরো ভোট সেন্টার খালি। মাঝে মধ্যে ১-২ জন  ভোটার আসছেন। এ কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার মো. আলাউদ্দিন জানালেন লাইন ধরার মত ভোটার আসেনি। সকাল থেকে এ পর্যন্ত ২০১টি ভোট পড়েছে। কেন্দ্রের সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার বিকাশ চন্দ্র সাহা বলেন, ভোটার না আসলে আমরা কি করব, হয়তো দুপুরের পর  ভোটারের উপস্থিতি কিছুটা বাড়তে পারে।


এ ভোট কেন্দ্রের পাশেই দি বার্ডস রেসিডেন সিয়্যাল স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্র। ওই কেন্দ্রের   প্রিজাইডিং অফিসার নোমান আহমেদ সিদ্দিকি জানান, এ মহিলা ভোট কেন্দ্রের মোট ভোটার ২১৫৭ জন। সোয়া দুই ঘন্টায় ভোট পড়েছে ৯৫ টি। কেন্দ্রের ডিউটিরত আনসার আলমগীর বললেন ভোটার কেনে আয় না, কইতাম পারি না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Topu Chowdhury

২০১৯-০৩-১৮ ০৮:০০:৩৪

জনগণ এখন আর দিনের আলোতে ভোট দিতে পছন্দ করে না। রাতে ভোট হলে সবাই আসতো। মৃত আত্মীয় সজনে সাথেও দেখা হয়ে যেতে।

Kamal hussain

২০১৯-০৩-১৮ ০৩:৩৯:২৮

CEC should be awarded for the such Electronic where no people die.

মো,নুরুজ্জামান

২০১৯-০৩-১৮ ০২:৩৯:৪২

সি ই সি আর বর্তমান সরকারের প্রতি মানুষের আস্হা নাই,তাই এমন নির্বাচন

nurul alam

২০১৯-০৩-১৮ ১৫:৩৭:০১

ভোটার না আসলে আপনারা ডান্স করুন । আর রাত্রে বাড়ীতে গিয়ে শুনবেন ৬০%/৭০% ভোট পড়েছে । বড় দুর্দান্ত আমাদের নির্বাচন কমিশন এবং তার খেলোয়াড়গণ ।

Sarwar

২০১৯-০৩-১৮ ১৫:২৯:২৬

No where is voter, Is this a signal of danger? Waiting to enjoy our great CEC on evening Tv

MASUD UR RAHMAN

২০১৯-০৩-১৮ ১৪:৩৭:৫৭

ভোট দেয়ার কোন প্রয়োজন নাই। সি ই সি সাহেব আছেন তো তিনি দিয়া দিবানে।

ইনায়েত

২০১৯-০৩-১৮ ০০:৫৬:৫০

তোমারা প্রতারক, দুর্নীতিবাজ। মানুষ তোমাদেরকে প্রত্যাখ্যান করেছে।

ফিদহার

২০১৯-০৩-১৮ ০০:৫২:৩৭

জনগনের টাকা অপচয করে ফালতু নিরবাচনের মানি হয না, গনতন্ত্রের নামে পরিবারতন্ত্র মেনে নেওযা যায না

Kazi

২০১৯-০৩-১৭ ২৩:৩৮:০৭

Yes, you can't do anything. But one day there will be no need of presiding, polling officers and election centre, if fear election is not guaranteed.

আপনার মতামত দিন