র‌্যাগিং মুক্ত রাখতে জাবিতে অন্যন্য আয়োজন

শিক্ষাঙ্গন

জাবি প্রতিনিধি | ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, রোববার
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নবীন শিক্ষার্থীদের আজ প্রথথম ক্লাস। র‌্যাগিং’র বিপক্ষে শক্ত অবস্থান নিয়েছে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও প্রশাসন। তারই অংশ হিসেবে গতরাতে শিক্ষার্থীদেরকে ভিন্নভাবে বরণ করে নিয়েছে বঙ্গবন্ধৃু শেখ মুজিবুর রহমান হলের শিক্ষার্থীরা। হলের ৪৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা নবীনতম ৪৮ ব্যাচের শিক্ষার্থীদের প্রথম রাতেই ফুল ও মিষ্টিমুখ করিয়ে বরণ করে নেয়।

শনিবার রাতে হলটির প্রভোস্ট ফরিদ আহমেদ ও ওয়ার্ডেন মেহেদি ইকবালের এর উপস্থিতিতে হলের ৪৭তম ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ৪৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয়। তারপর ৪৮তম ব্যাচের শিক্ষার্থীদেরকে মিষ্টি মুখ করান তারা।

৪৭ ব্যাচের শিক্ষার্থীরা জানান, তারা নবীনতম ব্যাচের সঙ্গে পরিচয় পর্বে একটা পরিবর্তন আনতে চান। তারা শিগগিরিই নবীনদের সঙ্গে ডিনার পার্টি ও পিকনিকের আয়োজন করবে। সেই সঙ্গে তারা আরও বড় আয়োজন করে নবীনবরণ করতে আগ্রহী।
 
পরিসংখ্যান ৪৭ ব্যাচের শাহিন আলী ও মাহিন উদ্দীন কোরেশী বলেন, আমরা নবীন হিসেবে ক্যাম্পাসে এসে যতটুকু সমস্যায় পড়েছিলাম আমরা চাই না আমাদের জুনিয়ররা অতটুকু সমস্যায়ও পড়ুক।

দর্শন বিভাগ ৪৭ ব্যাচের রুদ্র মোসাদ্দেক বলেন, র‌্যাগিংয়ের যে ধারণা সেটা ভেঙ্গে আমরা একটা নতুন ধারা তৈরী করতে চাই। কোন ধরনের নিপীড়নকে আমরা প্রশ্রয় দিবো না।

নবীনতম ৪৮ ব্যাচের ইমরুল খায়েশ ও আবদুল লতিফ লিয়ন বলেন, এসেই দেখি বড় ভাইরা মিষ্টি আর ফুল নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এরই মধ্যে কয়েকজনের সঙ্গে পরিচিত হয়েছি। খুবই ভাল লাগছে।

হল প্রভোস্ট ফরিদ আহমেদ বলেন, আমাদের হল র‌্যাগিং মুক্ত থাকবে। ৪৭তম ব্যাচ আমাকে কথা দিয়েছে তারা ৪৮তম ব্যাচকে কোন ধরনের র‌্যাগ দিবে না। তারপরও আমরা পর্যবেক্ষণে রাখবো। যাতে কোন অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে।

এদিকে র‌্যাগ প্রতিরোধে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনও আন্তরিক। বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের কোনো শিক্ষার্থীকে র‌্যাগ দিলে র‌্যাগদাতাকে প্রমাণ সাপেক্ষে তাৎক্ষণিক ১ বছরের জন্য বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন।

শুক্রবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ প্রমাণিত হলে তাৎক্ষণিক এক বছরের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় হতে বহিষ্কার করা হবে।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

কসাইখানা থেকে কলেজে মহিষ...

দেশের ৫ কোটি মানুষ থাইরয়েড সমস্যায় ভুগছেন

সরকার গঠনের দাবি জানালেন মোদি

দক্ষিণ এশিয়ায় একমাত্র বাংলাদেশেই নির্বাচিত সরকার নেই

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ডাকসু ভিপির ইফতারে বাধা ছাত্রলীগের, হোটেলে তালা

জনগণ ঐক্যবদ্ধ হলে সব কিছু করা সম্ভব: ড. কামাল

মির্জাগঞ্জে প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেপ্তার

মধ্যপ্রাচ্যে যাচ্ছে আরও ১৫০০ মার্কিন সেনা

মানবাধিকার সুরক্ষায় সরকার দায় এড়াচ্ছে

শান্তিরক্ষীর প্রতি জাতিসংঘের সম্মাননা

রামেক হোস্টেলের ছাদ থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

বান্দরবানে অপহৃত আওয়ামী লীগ নেতার লাশ উদ্ধার

ভারতেও জেএমবি নিষিদ্ধ

গুজরাটে আগুনে মৃত কোচিং সেন্টারের ১৯ জন ছাত্রই নাবালক

জিতলেন তৃণমূলের এক প্রার্থী, হারলেন অন্যজন

মাধবপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩, ঢাকা সিলেট মহাসড়ক অবরোধ