মেয়রের নেতৃত্বে পুরান ঢাকার কেমিক্যাল মজুত সরানো শুরু

শেষের পাতা

স্টাফ রিপোর্টার | ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, রোববার | সর্বশেষ আপডেট: ২:২০
চুড়িহাট্টায় অগ্নিকাণ্ডের তিনদিন পর ওয়াহেদ ম্যানশনের গুদাম থেকে কেমিক্যাল সরানো হয়েছে। গতকাল দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকনের নেতৃত্বে রাসায়নিক সরানোর কাজ 
শুরু হয়। এর আগে ওয়াহেদ ম্যানশনের নিচ তলায় মজুত থাকা রাসায়নিক গোডাউন পরিদর্শন করেন মেয়র। পরে সাঈদ খোকন বলেন, ওয়াহেদ ম্যানশনের রাসায়নিক সরানোর মাধ্যমে পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল সরানোর কার্যক্রম শুরু হলো।

পুরান ঢাকা থেকে সব কেমিক্যাল গোডাউন না সরানো পর্যন্ত উচ্ছেদ অভিযান চলবে বলেও জানান মেয়র। সাঈদ খোকন বলেন, পুরান ঢাকার সব ধরনের কেমিক্যাল উচ্ছেদ অব্যাহত থাকবে। এজন্য তিনি এলাকাবাসী, পঞ্চায়েত কমিটি, ব্যবসায়ী ও বাড়ির মালিকদের সহযোগিতা চান। তিনি বলেন, যদি এরপরও কোনো বাড়ির মালিক কেমিক্যাল রাখেন তবে শুরুতে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ছাড়া কারো বাড়িতে এ ধরনের কোনো গোডাউন থাকার তথ্য থাকলে সিটি করপোরেশনের হটলাইনে ফোন করে জানানোর জন্যও অনুরোধ করেন ঢাকা দক্ষিণ সিটির মেয়র।

ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত ওয়াহেদ ম্যানশনের আন্ডারগ্রাউন্ড ফ্লোরে ছিল রাসায়নিক পদার্থের বিপুল মজুত। ড্রাম ও প্যাকেট করা এই রাসায়নিক মজুতে আগুন লাগেনি। উদ্ধার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই গুদামে আগুন লাগলে হয়তো পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হতো।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

ডঃ মোহাম্মদ হাসমাত আ

২০১৯-০২-২৪ ০৩:১৬:০৩

মেয়র সাহেব, আপনি খালি হাতেই (gloves না পরেই) এবং চোখের ওপর safety goggles না পরেই রসায়নিক পদাত্থ'ভরা ড্রাম ধরে বা সরিয়ে খুব ভাল একটা example রাখলেন কি? আপনি যদি safe procedure না অনুসরন করেন তাহলে আর সল্প শিক্ষিত রসায়নিক ব্যাবসার সাথে যুক্ত ব্যাক্তিদের আর দোষ দিয়ে কি লাভ? নিয়ম কানুন কি তাদের জন্যই যারা regulation ভালভাবে পড়তে বা বুঝতে পারেনা?

আপনার মতামত দিন

হিমালয়ান ভায়াগ্রা নিয়ে দুই গ্রামের সংঘর্ষ

কেরানীগঞ্জে আদালত স্থাপন সম্পূর্ণ অসাংবিধানিক : মওদুদ

ভোট গণনায় কারচুপি ঠেকাতে ইসি’র দ্বারস্থ মোদি বিরোধী জোট

প্রেমিকার বাসা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের লাশ উদ্ধার

ভারতে বিরোধীদের মধ্যে অস্থিরতা!

কুষ্টিয়ায় ধর্ষণ মামলায় প্রধান শিক্ষকের যাবজ্জীবন

সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার দাবিতে নাটোরে বিএনপির স্মারকলিপি

সারাদেশের পাস্তুরিত দুধ পরীক্ষার নির্দেশ হাইকোর্টের

গাজীপুর সিটির ১৪ জনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ

রুমিন ফারহানার মনোনয়নপত্র বৈধ

হুয়াওয়ের ওপরকার বিধিনিষেধ শিথিল করছে যুক্তরাষ্ট্র

১০ গ্রামের মানুষের ভরসা একটি বাঁশের সাঁকো

দেশে ফিরেছেন ভূমধ্যসাগরে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ১৫ বাংলাদেশি

গুজবে কান দেবেন না

শাহজালালে সোয়া তিন কোটি টাকার স্বর্ণ জব্দ, যাত্রী আটক

ইউরেনিয়াম উৎপাদন ৪ গুণ বাড়িয়েছে ইরান, বাড়ছে উত্তেজনা