এবার খুদে ফুটবলারদের সময় দিতে চান শরীফ

খেলা

শাহ নেওয়াজ বাবলু | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শনিবার
ফুটবল অঙ্গনে তিনি ‘টাইগার শরীফ’ নামে পরিচিত। খেলেছেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের জার্সি গায়ে। ঘরোয়া ফুটবলে খেলেছেন আবাহনী, মোহামেডান, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র, শেখ জামাল ধানমণ্ডির মতো শীর্ষ ক্লাবে। ৩৮ বছরের এনামুল হক শরীফ জীবনের ১৯ বসন্তই কাটিয়েছেন ফুটবলে। খেলতে চেয়েছিলেন আরো দুই বছর। কিন্তু হঠাৎই বুট জোড়া তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার। আগামী ২৭শে ফেব্রুয়ারি ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচে মাঠে নামবেন এনামুল হক শরীফ। চলতি বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলবেন ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচটি।
আর অবসরে যাওয়ার পর ভবিষ্যতের ফুটবলার গড়তে নিজের একাডেমি নিয়ে ব্যস্ত থাকতে চান শরীফ।  
ক্যারিয়ারে পৃথক ২১টি শিরোপার স্বাদ নিয়েছেন শরীফ। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে খেলেছেন সাত বছর। এর মধ্যে টানা খেলেছেন পাঁচ বছর। ২০১২ সালে জাতীয় দলে ফেরেন শরীফ। ওই বছরই শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবের হয়ে খেলার সময় ডান পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে যায় তার। এরপর দুই বছর ফুটবলের বাইরে ছিলেন শরীফ। ২০১৬ সালে ফের ডাক পান জাতীয় দলে। ওই বছরের শেষের দিকে বিদায় জানান জাতীয় দলকে। তবে চালিয়ে যান ঘরোয়া ফুটবলের খেলা।
ক্যারিয়ারে দীর্ঘ ১০ বছর ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের জার্সি গায়ে খেলেছেন শরীফ। এ ছাড়া শেখ জামালের হয়ে মাঠ কাঁপিয়েছেন পাঁচ বছর। শেখ রাসেল স্পোর্টিং ক্লাবে এক বছর আর ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে খেলেন ৩ বছর।
২০০০ সালে বড় ফুটবলার হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে শরীফ পা রাখেন ঢাকায়। ওই বছর পাইনিওয়র খেলেন। বয়স তখন ১৮। মাদারটেক ক্লাবের হয়ে তার ফুটবল যাত্রা শুরু। প্রথম বছরেই বাজিমাত করেন। ১৬ গোল করে জেতেন সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। পরের বছর সিনিয়র ফুটবলে তার ক্যারিয়ার শুরু ভিক্টোরিয়ার হয়ে।
বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) চুক্তিবদ্ধ রয়েছেন ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবে। গত বছরের অক্টোবরে ফেডারেশন কাপের প্রস্তুতি হিসেবে খেলেছেন আরামবাগের বিপক্ষে। সেই ম্যাচেই হাঁটুতে চোট পান তিনি, ছিটকে যান ফেডারেশন কাপ থেকে। স্বাধীনতা কাপে ফেরার চিন্তা থাকলেও পুরো ফিট না থাকায় খেলা হয়নি সেই আসরেও। লীগের আগে এমআরআই করে দেখেন ডান পায়ের লীগামেন্ট ছিঁড়ে গেছে। অস্ত্রোপচার করলে ঠিক হতে সময় লাগবে এক বছর। তাই হুট করেই অবসরের এই সিদ্ধান্ত।
এনামুল হক শরীফ মানবজমিনকে বলেন, এখন আমার বয়স ৩৮ বছর। সার্জারি করে ফিট হয়ে মাঠে আসার পর আমার বয়স হবে ৪০। তাই আমি মনে করছি ফুটবলকে বিদায় বলার এটাই সময়। ফুটবল আমাকে অনেক দিয়েছে। আমিও ফুটবলকে দিতে চেষ্টা করেছি। কিন্তু বিদায় বেলায় একটাই আক্ষেপ, জাতীয় দলের অধিনায়ক হতে না পারা।
ভবিষ্যৎ ফুটবলারদের জন্য কোনো বার্তা আছে কিনা এমন প্রশ্নে শরীফ বলেন, এক সময় আমাদের দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ছিল ফুটবল। এখন এটা অনেকটাই পিছিয়ে গেছে। তাই অনেকেই এখন ফুটবলার হতে চায় না। এর মাঝেও যারা ফুটবলে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে চায় তাদের উদ্দেশ্যে আমার একটাই কথা। যাই করো মন প্রাণ দিয়ে করো। ফুটবলে সবচেয়ে বড় দিক হচ্ছে ফিটনেস। তাই প্রত্যেক ফুটবলারের উচিত ফিটনেসের প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখা।
অবসরের পর কি করবেন জানতে চাইলে শরীফ বলেন, আপাতত কোনো ভাবনা নাই। এখন পরিবারকে সময় দিতে চাই। তবে যতদিন বেঁচে থাকবো ফুটবলটাকে ধরে রাখবো। কুমিল্লায় খুদে ফুটবলারদের নিয়ে আমার একটা একাডেমি রয়েছে। সেখানে ব্যস্ত থাকতে চাই।  




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

রাজধানীতে ট্রাকের ধাক্কায় নিহত ১

‘জৈশ-ই-মোহাম্মদ’ নিয়ে চীনের আগ্রহ কোথায়?

সিরিয়ায় আইএস নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়ার দাবি

ভীতুদের দায়িত্ব ছাড়তে বললেন গয়েশ্বর

প্রধানমন্ত্রীকে ডাকসুর আজীবন সদস্য করতে নুর-আখতারের আপত্তি

নরসিংদীতে স্কুলছাত্র নিহতের প্রতিবাদে মহাসড়ক অবরোধ

রাজাপুরে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত ১০

খালেদার মুক্তির দাবিতে ছাত্রদলের মিছিল

আওয়ামী লীগ একুশের চেতনা বিরোধী: মির্জা ফখরুল

প্রেসিডেন্ট হতে চান ইভানকা, হোয়াইট হাউসের প্রত্যাখ্যান

শরণখোলায় ঘুমন্ত স্বামীকে হত্যাচেষ্টা

ঢাকা সহ ১৩ রুটে ফ্লাইট স্থগিত করেছে ইন্ডিয়ান জেট এয়ারওয়েজ

চট্টগ্রামে দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ক্রাইস্টচার্চ: সন্তানের লাশ দাফন শেষে হার্র্টঅ্যাটাকে মায়ের মৃত্যু

বিজেপি দুই দফাতেও অর্ধেক আসনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারেনি

২৮ বছর পর ডাকসু নির্বাহী কমিটির সভা, দায়িত্ব নিলেন নুর-রাব্বানী