পশ্চিমবঙ্গে মাতৃভাষা দিবস সাড়ম্বরে পালিত

ভারত

কলকাতা প্রতিনিধি | ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার
পশ্চিমবঙ্গের নানা প্রান্তে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস সাড়ম্বরে পালিত হয়েছে। ভাষা শহীদ বরকতের গ্রাম মুর্শিদাবাদের সালারে তিনদিনব্যাপী বরকত মেলা শুরু হয়েছে। সেখানে বরকতের আবক্ষমূর্তিতে মালা দিয়ে অনুষ্টানের সূচনা হয়েছে। দুই বাংলার সীমান্তে এবারও পেট্রাপোল-বেনাপোলে এবং বসিরহাট ও হিলি সীমান্তে ভাষা শহীদ দিবস ও মাতৃভাষা দিবসে দুই বাংলা সম্মিলিতভাবে অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। অংশ নিয়েছিল দুই বাংলার মানুষ।

কলকাতায় একাধিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ভাষা শহীদদের স্মরণ করা হয়েছে। একুশের প্রথম প্রহর থেকেই আকাডেমি অব ফাইন আর্টসের সামনে ভাষা ও চেতনা সমিতির উদ্যোগে পালিত হয়েছে ভাষা দিবস। বুধবার রাত বারোটায় মশাল মিছিল করা হয়েছে। এরপর দুই বাংলার সমন্বয়ে সারারাত ও দিন ধরে হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। পশ্চিমবঙ্গ সরকার দিনটি পালন করেছে ভাষা উদ্যানে ভাষা স্মারকে শ্রদ্ধা অর্পণের মাধ্যমে। এছাড়া সন্ধ্যায় দেশপ্রিয় পার্কে ভাষা স্মারকে শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম সহ বিশিষ্ট ব্যাক্তিরা।

কলকাতার বাংলাদেশ উপ-হাইকমিশনেও নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনটি পালিত হয়েছে। দিনটি উপলক্ষ্যে একটি শোভাযাত্রা এদিন বাংলাদেশ গ্রস্থাগার থেকে শুরু হয়ে উপ-হাইকমিশনের সামনে এসে শেষ হয়েছে। এই শোভাযাত্রায় উপ-হাইকমিশনের কর্মকর্তা ও তাদের পরিবার ছাড়াও বহু বিশিষ্ট মানুষ অংশ নিয়েছিলেন। শোভাযাত্রা শেষে উপ-হাইকমিশন চত্ত্বরে অবস্থিত শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়েছে।

বিকেলে একুশে ফ্রেব্রুয়ারির প্রাসঙ্গিকতা তুলে ধরা হয়েছে কলামন্দিরে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে। এদিকে এদিন সকালে কার্জন পাকে ভাষা স্মারক সমিতির উদ্যোগে ভাষা শহীদ স্মারকে শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পার্ঘ দিয়েছেন কলকাতার বিশিষ্টজনেরা। যাদবপুর, কলকাতা ও রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা ভাষা বিভাগেও দিনটি পালিত হয়েছে।

যাদবপুরে দশজন জাপানি শিক্ষার্থী ভাষা দিবসের অনুষ্টানে অংশ নিয়েছিলেন। এদিকে শান্তিনিকেতনের বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়েও দিনটি পালন করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীরা আলপনা আঁকেন সড়কে। যোগ দেন আলোচনা সভা, প্রভাতফেরি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে। বিকেলে শান্তিনিকেতনের লিপিকা মিলনায়তনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। শান্তিনিকেতনের বাংলাদেশ ভবনেও দিনটি যথাযোগ্য মর্যাদার সঙ্গে পালিত হয়েছে।  




এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন