নাটকীয় জয় ম্যানচেস্টার সিটির

খেলা

স্পোর্টস ডেস্ক | ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার | সর্বশেষ আপডেট: ১১:৩৬
ইউয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ২০১০-১১ মৌসুমের পর একবারও শেষ ষোলোর বাধা অতিক্রম করতে পারেনি শালকা জিরো ফোর। তবে বুধবার আসরের শেষ ষোলো রাউন্ডের প্রথম লেগে শক্তিধর ম্যানচেস্টার সিটির পিলে চমকে দিয়েছিল  জার্মান দলটি। তবে পিছিয়ে পড়েও শেষে ৩-২ গোলের জয় নিয়ে হাফ ছাড়ে সিটিজেনরা।  ঘরের মাঠ ভেলটিনস অ্যারিনায় এগিয়ে থেকেও শেষ ৫ মিনিটের ঝড়ে ম্যানসিটির কাছে হার দেখে শালকা। ম্যাচের ১৮তম মিনিটে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড সার্জিও আগুয়েরোর গোলে এগিয়ে যায় সফরকারী ম্যানসিটি। কিন্তু বিরতির আগে ম্যাচের মোড় ঘুরে যায় স্বাগতিক শালকার দিকে। ভিএআরে ৩৮তম মিনিটে পেনাল্টি পায় শালকা। গোল করে দলকে সমতায় ফেরান আলজেরিয়ান ফুটবলার নাবিল বেনতালেব। প্রথমার্ধের শেষ বাঁশির ঠিক আগমুহূর্তে আবারো ভিএআরে ধরা পরে অতিথিরা।
এবার পেনাল্টি থেকে বেনতালিবের গোলে এগিয়ে যায় স্বাগতিকরা। উত্তেজনা ছড়ানো ম্যাচে রেফারিকে ফাউলের বাঁশি বাজাতে হয় মোট ২০ বার। ম্যাচে ৬৮তম মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড (লালকার্ড) দেখে মাঠ ছাড়েন ম্যানসিটির আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকোলাস ওটামেন্ডি। তাতে দশজনের দলে পরিনত হয় সিটিজেনরা। ম্যাচের ৮৫ মিনিটে জার্মান ফুটবলার লেরয় সানের গোলে সমতায় ফেরে ম্যানসিটি। ম্যাচের শেষ বাঁশি বাজার আগে ইংলিশ ফুটবলার রাহিম স্টার্লিংয়ের গোলে নাটকীয় জয় তুলে নেয় অতিথিরা। ম্যাচ শেষে ম্যানচেস্টার  সিটির স্প্যানিয়ার্ড কোচ পেপ গার্দিওলা বলেন, এটা দারুণ ফল। আমরা তাদের দুটা পেনাল্টি উপহার দিয়েছি, লাল কার্ড দিয়েছি। এটা ভালো ছিল না।



এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

মোদিকে হাসিনার ফোন

অসন্তোষ ‘কমেছে’ ২০ দলে

যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে ইউএনও’র মামলা

মমতার দুর্গেও বিজেপির হানা

ফল মেনে নিয়ে পদত্যাগের ইঙ্গিত রাহুলের

রাষ্ট্র মেরামতে সুজনের ১৮ প্রস্তাব

আতঙ্কের জনপদ ‘শাহপরাণ থানা’

আঞ্জুমানের ভবন নির্মাণে সহায়তা দিতে ব্যাংকগুলোর প্রতি সালমান এফ রহমানের আহ্বান

‘হাইকোর্টকে হাইকোর্ট দেখাচ্ছেন’

জমে উঠেছে ঈদ বাজার

মোদিকে বিএনপি’র অভিনন্দন

রাজশাহী বিমানবন্দরে পিস্তল ও গুলি জব্দ

গাড়ি পাচ্ছেন সংসদের উপ-সচিবরা: বাজেট ৬ কোটি টাকা

গোপন ভোটাভুটিতে নির্বাচিত হবেন শীর্ষ ৫ নেতা

কর্মকর্তাদের সতর্ক করে সব মিশন প্রধানকে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর চিঠি

নেহরু ও ইন্দিরার পর পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় ফেরা একমাত্র প্রধানমন্ত্রী মোদি